adimage

২৩ এপ্রিল ২০১৮
বিকাল ০৭:৫০, সোমবার

সব ফাঁস করে দেব: নওয়াজ শরিফ

আপডেট  06:58 PM, জানুয়ারী ০৩ ২০১৮   Posted in : আন্তর্জাতিক    

সবফাঁসকরেদেব:নওয়াজশরিফ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ৪ জানুয়ারি : পাকিস্তান শত শত কোটি ডলার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ছলনা করেছে—মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন টুইটের পর দুই দেশের কথার লড়াই শুরু হয়েছে। এ সুযোগে মুখ খুলেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। আজ বুধবার তিনি বলেছেন, নাইন-ইলেভেনের পরে যদি পাকিস্তানে বেসামরিক সরকার ক্ষমতায় থাকত, তবে কখনো যুক্তরাষ্ট্রের কাছে বিক্রি হতো না।

দ্য ডনের এক খবরে বলা হয়, পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী হুমকি দিয়ে বলেছেন, ‘তারা’ যদি অপপ্রচার বন্ধ না করে, তবে গত চার বছরে ইসলামাবাদে যা ঘটেছে, সব ফাঁস করে দেবেন। সেই ‘তারা’ কারা, তা স্পষ্ট করেননি তিনি।

সৌদি আরব সফর শেষে ইসলামাবাদে ফিরে সংবাদ সম্মেলনে নওয়াজ দাবি করেন, ২০০১ সালে যদি পাকিস্তানে স্বৈরশাসকের বদলে গণতান্ত্রিক সরকার ক্ষমতায় থাকত, তবে পাকিস্তান কখনো তাদের সক্ষমতা ও আত্মসম্মান বিসর্জন দিত না।

উল্লেখ্য, সৌদি আরব সফরে গিয়ে সেখানকার যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানসহ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন নওয়াজ শরিফ।

এর আগে গত সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইট করে বলেন, ওয়াশিংটনকে মিথ্যা ও ছলনা ছাড়া কিছুই দেয়নি পাকিস্তান। পাকিস্তান যুক্তরাষ্ট্রের নেতাদের ‘বোকা’ ভাবে বলেও মন্তব্য করেন ট্রাম্প। গত ১৫ বছরে বোকামি করে ওয়াশিংটন পাকিস্তানকে ৩ হাজার ৩০০ কোটি মার্কিন ডলার সহযোগিতা করেছে। বিনিময়ে আফগানিস্তানে খুঁজে ফেরা সন্ত্রাসীদের জন্য নিরাপদ স্বর্গ বানিয়েছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে ট্রাম্প বলেন, দেশটি প্রতিবছর যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে প্রচুর সহযোগিতা নেয়। তাই ইসলামাবাদ ওয়াশিংটনকে সহযোগিতা করতে বাধ্য।

ট্রাম্পের ওই মন্তব্যের জবাবে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা আসিফের সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়ায় বলেন, পাকিস্তান শিগগিরই প্রকৃত তথ্য দিয়ে আসল পরিস্থিতি বিশ্বকে বুঝিয়ে দেবে।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul