adimage

১৫ নভেম্বর ২০১৯
সকাল ১১:০২, শুক্রবার

‘গোপন অস্ত্র’ দিয়ে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ডুবিয়ে দিতে পারে ইরান

আপডেট  03:00 AM, মে ২৬ ২০১৯   Posted in : আন্তর্জাতিক    

‘গোপনঅস্ত্র’দিয়েমার্কিনযুদ্ধজাহাজডুবিয়েদিতেপারেইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৬ মে : ইরানের সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তা জেনারেল মর্তেজা কোরাবানি বলেছেন, উপসাগরীয় অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র ও গোপন অস্ত্রের মাধ্যমে মার্কিন যুদ্ধজাহাজগুলো ডুবিয়ে দিতে পারে ইরান। শনিবার দেশটির আধা সরকারি সংবাদ সংস্থা মিজানের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় তুরস্কভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ইয়ানি শাফাক।

গত শুক্রবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্যে আরো ১৫০০ সেনা মোতায়েন করবে। ইরানের বিরুদ্ধে অভিযোগে এনে বলা হয়, এ মাসে তেলের ট্যাংকারে ইরানের বিপ্লবী বাহিনী হামলার দায় সরাসরি স্বীকার করে নেয়ায় তেহরানের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষা জোরদার করার অংশ হিসেবে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ইরানের সামরিক কমান্ডের উপদেষ্টা জেনারেল মর্তেজা কোরাবানি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এই অঞ্চলে দু’টি যুদ্ধজাহাজ পাঠিয়েছে। যদি তারা সামান্যতম মূর্খতা ঘটায়, আমরা দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র বা দু’টি নতুন গোপন অস্ত্র ব্যবহার করে তাদের জাহাজ এবং ক্রুসহ বিমান সমুদ্রের নিচে পাঠিয়ে দেবো।

ইরান কর্তৃক সম্ভাব্য আক্রমণের হুমকি হিসেবে ট্রাম্প প্রশাসন বিমানবাহী রণতরীর বহরের সাথে বোমারু বিমান এবং অতিরিক্তি প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র মধ্যপ্রাচ্যে পাঠিয়েছে। পশ্চিমা গবেষকরা বলছেন, ইরান তাদের অস্ত্র ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলছে, তারা তেহরানের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা নিয়ে উদ্বিগ্ন, বিশেষ করে তাদের দূরপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র।

এএফপি জানায়, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ গতকাল বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে অতিরিক্ত ১৫০০ সেনা মোতায়েসের মার্কিন সিদ্ধান্ত ‘বিশ্ব শান্তির প্রতি হুমকি। ইরানের শীর্ষ নেতাদের অনুমোদনে সম্প্রতি হামলা অভিযানের জবাবে যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্যে বিমানবাহি রনতরী ও বি-৫২ বোমরু বিমান মোতায়েনের পর এ সেনা পাঠানোর কথা ঘোষণা করল। এ প্রসঙ্গে জারিফ বলেন, আমেরিকা তার বৈরী নীতিকে যুক্তিসঙ্গত করতে ও পারস্য উপসাগরে উত্তেজনা বাড়াতে এসব অভিযোগ করছে। সূত্র : রয়টার্স


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul