adimage

১৬ নভেম্বর ২০১৯
সকাল ১২:৩৬, শনিবার

ভারত-পাকিস্তান পাল্টাপাল্টি হামলায় নিহত ১৬

আপডেট  01:41 AM, অক্টোবর ২১ ২০১৯   Posted in : আন্তর্জাতিক    

ভারত-পাকিস্তানপাল্টাপাল্টিহামলায়নিহত১৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২১ অক্টোবর : ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে পাল্টাপাল্টি হামলায় সংঘাত চরমে পৌঁছেছে। এরইমধ্যে এই হামলায় ৭ পাকিস্তানী ও ৯ ভারতীয় নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে পাকিস্তানী বার্তা সংস্থা ডনের দাবি, নিহত ৭ পাকিস্তানীর মধ্যে সকলেই বেসামরিক নাগরিক। আর নিহত ৯ ভারতীয়দের সকলেই সে দেশের সেনা সদস্য।

রবিবার নয়াদিল্লির বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা দ্য ইকোনোমিক টাইমস প্রকাশিত এক সংবাদের তথ্যমতে, এদিন সকালের দিকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের তাঙধর সেক্টরের বিপরীত পাশে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই হামলায় ব্যাপক হতাহত হয়েছে।

পাকিস্তানি বার্তা সংস্থা ডনের দাবি, নিহত ৭ পাকিস্তানির মধ্যে সকলেই বেসামরিক নাগরিক। আর নিহত ৯ ভারতীয়দের সকলেই সে দেশের সেনা সদস্য।

এদিকে ভারতীয় সংবাদসংস্থা এএনআই জানায়, পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নিলাম ঘাট উপত্যকায় সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি ও চৌকিতে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর চার থেকে পাঁচ সদস্য ও জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ এবং লস্কর-ই-তৈয়বার অনেক সদস্য হতাহত হয়েছে।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, রোববার সকালের দিকে ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের কুপওয়ারা সীমান্তে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে পাক সেনাবাহিনীর ছোড়া গুলিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর দুই সদস্যসহ ৩ জন নিহত হওয়ার পর এই পাল্টা হামলা চালায় ভারত। এ সময় পাক ভূখণ্ডে অবস্থিত কয়েকটি জঙ্গি ঘাঁটি লক্ষ্য করে ভারতীয় সীমান্তে অবস্থিত ৪/৫টি আর্টিলারি লঞ্চিং প্যাড থেকে একযোগে হামলা চালায় সেনারা।

এই হামলায় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ৪ থেকে ৫ জন সদস্য ও জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ এবং লস্কর-ই-তৈয়বার বেশ কয়েকজন সদস্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের চারটি আস্তানা ধ্বংসের দাবি করা হয়েছে।

সর্বশেষ তথ্যমতে, সীমান্তের নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারতের গোলাবর্ষণে পাকিস্তানের অন্তত সাতজন সামরিক ও বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। অপর দিকে পাকিস্তানিদের হামলায় নিহত হয়েছে ৯ ভারতীয় সেনা।

সর্বশেষ তথ্য মতে, সীমান্তের নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারতের গোলাবর্ষণে পাকিস্তানের অন্তত সাতজন সামরিক ও বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। অপর দিকে পাকিস্তানিদের হামলায় নিহত হয়েছে ৯ ভারতীয় সেনা।

পাকিস্তানের স্থানীয় প্রশাসনের বরাতে দ্য ডন প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, চলতি বছর নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারতের গোলাবর্ষণে একদিনে এটাই সবচেয়ে বেশি হতাহতের ঘটনা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পাকিস্তানের ইন্টার সার্ভিসেস পাবলিক রিলেশনস (আইএসপিআর)। এক টুইট বার্তায় তারা জানিয়েছে, ভারতের সঙ্গে সংঘর্ষে এক সেনা নিহত হয়েছেন। আর আহত হয়েছেন দুই সেনা।

আইএসপিআর আরও বলেছে, সীমান্তের জুরা, শাহকোট এবং নওসেরি সেক্টরে বিনা উস্কানিতে ভারতের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের জবাব দিয়েছে পাক সেনাবাহিনী। এতে ভারতের ৯ সেনা নিহত হয়েছে। এছাড়া আরও আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন।

তবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএনআই জানায়, শনিবার (১৯ অক্টোবর) অস্ত্রবিরতির শর্ত ভেঙে পাক সেনারা ভারতে জঙ্গি অনুপ্রবেশে সহায়তা দিতে ভারতীয় সেনাদের উদ্দেশ্যে গুলিবর্ষণ শুরু করে। পরে জঙ্গি অনুপ্রবেশ প্রতিহত করতে এবং পাক সেনাদের জবাব দিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর আর্টিলারি ডিভিশনের একটি ইউনিট পাক অধিকৃত কাশ্মীরের তাঙধর সেক্টরে গোলাবর্ষণ শুরু করে।

পরবর্তীতে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের কাঠুয়া জেলার হিরানগর সেক্টরের মানিয়ারি গ্রামে অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে ফের হামলা চালায় পাক রেঞ্জার্স। এ সময় বেসামরিক এলাকা লক্ষ্য করে ভারি অস্ত্র দিয়ে গুলি এবং মর্টার শেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। পাকিস্তানের হামলায় মানিয়ারি গ্রামে অন্তত তিনজন বেসামরিক নাগরিক দগ্ধ হয়েছেন বলেও দাবি করে সংস্থাটি।

তবে এ প্রসঙ্গে ভারত ও পাকিস্তান এখন পর্যন্ত কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul