adimage

২৫ মে ২০১৮
বিকাল ০৩:২০, শুক্রবার

মতপ্রকাশের অধিকার লঙ্ঘন করছে বাংলাদেশ

আপডেট  09:37 AM, ফেব্রুয়ারী ০৯ ২০১৮   Posted in : জাতীয়    

মতপ্রকাশেরঅধিকারলঙ্ঘনকরছেবাংলাদেশ

ঢাকা, ৯ ফেব্রুয়ারি : বিরোধী দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) সমর্থকদের বিক্ষোভ-প্রতিবাদ প্রতিহত করে তাদের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশের অধিকার লঙ্ঘন করছে বাংলাদেশ সরকার। দলটির নেতাকর্মী ও অন্যদের খেয়ালখুশিমতো গ্রেফতার ও আটক করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সরকারের এগুলো বন্ধ করা উচিত। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেছে মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরসি)। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বিক্ষোভ-প্রতিবাদের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোকে আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনে চলতে প্রকাশ্যে নির্দেশ দেয়া উচিত বাংলাদেশ সরকারের।

এইচআরসির বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তার ছেলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে একটি দুর্নীতি মামলার রায়কে সামনে রেখে বিরোধী নেতাকর্মীদের ব্যাপক ধরপাকড় করা হয়েছে। ওই বিবৃতিতে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ব্রাড এডামস বলেন, ‘বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের বিক্ষোভ থেকে বিরত রাখার মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকার মতপ্রকাশের স্বাধীনতা লঙ্ঘন করছে। তারা বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার অধিকারও লঙ্ঘন করছে।’ ব্রাড এডামস আরও বলেন, সব দলের নেতাদের উচিত নিজেদের সমর্থকদের সহিংসতায় জড়িত হওয়ার বিষয়ে সতর্ক করা। একইভাবে সরকারের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনীকে সব সময় সংযত থাকার পরামর্শ দেয়া উচিত। জনগণের মতপ্রকাশের স্বাধীনতার জন্য সরকারের পক্ষে এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

এইচআরসির বিবৃতি অনুযায়ী, আইন ও সালিশ কেন্দ্র বলেছে, গত আট দিনে গ্রেফতার করা হয়েছে ১ হাজার ৭৮৬ জনকে। বিরোধী দলের একজন মুখপাত্র হিউম্যান রাইটস ওয়াচকে বলেছেন, বিএনপি, জামায়াতে ইসলামী ও তাদের জোটের সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য দলের সদস্যসহ কয়েক হাজার মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের কাছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ আহ্বান জানিয়ে বলেছে, জাতিসংঘের বেসিক প্রিন্সিপাল অন দ্য ইউজ অব ফোর্স অ্যান্ড ফায়ার আর্মস মেনে চলতে আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের প্রতি প্রকাশ্যে যেন নির্দেশ দেয় সরকার। ব্রাড এডামস বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার নিজেদের উদার ও গণতান্ত্রিক দাবি করছে। কিন্তু তারা রাজনৈতিক ভিন্নমতাবলম্বীদের দমন-পীড়নের মাধ্যমে সেই দাবিকে অন্তঃসারশূন্য করে তুলছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘সহিংসতা প্রতিরোধ ও সহিংসতা কমিয়ে রাখা সরকারের দায়িত্ব। তবে তা করতে হবে মৌলিক অধিকারের প্রতি সম্মান দেখিয়ে, অবজ্ঞা করে নয়।’

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul