adimage

২৮ মে ২০১৮
সকাল ০৯:০৭, সোমবার

তালাক নোটিশের স্বাক্ষর শাকিব খানের নয় : অপু

আপডেট  03:46 PM, জানুয়ারী ১৫ ২০১৮   Posted in : বিনোদন    

তালাকনোটিশেরস্বাক্ষরশাকিবখানেরনয়:অপু

বিনোদন ডেস্ক, ১৫ জানুয়ারি : শাকিব খানের পাঠানো তালাকের নোটিসের ওপর শুনানিতে সোমবার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে হাজির হয়েছিলেন অপু বিশ্বাস। সেখানে তিনি জবানবন্দি দিয়েছেন। অপু বলেছেন, ‌‌‘শাকিব খানের পাঠানো তালাক নোটিশে যে স্বাক্ষর করা হয়েছে তা শাকিব খানের নয়।’

তা মতে, ‘বিভিন্ন সময় তার যে স্বাক্ষর দেখেছি সেটির সঙ্গে তালাক নোটিশের স্বাক্ষরের কোনো মিল নেই।’

ডিএনসিসির পারিবারিক আদালতে সকাল ১০টায় শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাস দুজনকেই থাকতে বলা হয়েছিল। ডিএনসিসি অঞ্চল-৩ মহাখালী কার্যালয়ে অপু এলেও আসেননি শাকিব খান।

সেখানে প্রায় ৩০ মিনিট এই ঢালিউড তারকাদের বিচ্ছেদ নিয়ে শুনানি হয়। সালিশে শাকিব খান না থাকায় নতুন তারিখ ধার্য করা হয়েছে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি।

সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল ৩-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হেমায়েত হোসেনের সাথে তালাক নোটিশের বিপরীতে সমঝোতা বৈঠকে বসেন অপু।

জবানবন্দিতে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘শাকিব খানের জন্য ধর্ম ছেড়েছি। কিন্তু অন্যদের কথায় ভুল বুঝে নায়ক তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন সম্প্রতি। আমি বিচ্ছেদ চাই না।’

তিনি বলেন, ‘আমার একটা সন্তান রয়েছে, আমি এখন বিচ্ছেদ চাই না। তাছাড়া শাকিব যে অভিযোগগুলো করেছে এগুলো ঠিক না। ওকে আমি পাচ্ছি না। ভেবেছিলাম আজ পাবো, পেলাম না। ওর সাথে সামনাসামনি কথা বললে সব ঠিক হয়ে যেতো। এছাড়া এখানে যে স্বাক্ষর তা তো তার না। ওর জন্য আমি ধর্ম ত্যাগ করেছি। ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তাকে অন্যরা ভুল বুঝিয়েছে।’

গত ২৮ নভেম্বর আইনজীবীর মাধ্যমে ডিভোর্সের নোটিশ পাঠান শাকিব খান। তার প্রেক্ষিতে সালিশের আয়োজন করে সিটি কর্পোরেশন।

বছরখানেক অন্তরালে থাকার পর ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে এসে বিয়ে ও সন্তানের খবর জানান অপু বিশ্বাস।

তিনি জানান, ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিবের সঙ্গে বিয়ে হয়। কলকাতার একটি ক্লিনিকে ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় ছেলে আব্রাহাম খান জয়ের।

এ খবর প্রকাশের পর থেকেই শাকিবের সঙ্গে অপুর মান-অভিমান চলছিল। তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়। বর্তমানে ছেলেকে নিয়ে রাজধানীর নিকেতনে একাই থাকছেন অপু।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul