adimage

১৫ ডিসেম্বর ২০১৮
বিকাল ০৯:৫৬, শনিবার

জাতীয় পার্টির মন্ত্রীরা শিগগিরই পদত্যাগ করবেন : এরশাদ

আপডেট  04:51 PM, মার্চ ০২ ২০১৮   Posted in : রাজনীতি    

জাতীয়পার্টিরমন্ত্রীরাশিগগিরইপদত্যাগকরবেন:এরশাদ

রংপুর, ১৬ ফেব্রুয়ারি (জাস্ট নিউজ) : প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, ‘মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টির যে তিন মন্ত্রী আছেন, আমিও মন্ত্রীর পদমর্যাদায় আছি, আমরা কিছুদিনের মধ্যেই মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করবো। আমাদের কাউকেই মন্ত্রিসভায় নেওয়া ঠিক হয়নি।’

শুক্রবার সকালে রংপুর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

এইচ এম এরশাদ বলেন, ‘বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ সংসদে এ বিষয়ে সঠিক কথাটি বলেছেন। তিনি বলেছেন, মন্ত্রিসভায় আমাদের দলের লোক থাকায় দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। অনেক সমালোচিত হয়েছি আমরা। তবে সরকারি দলের সঙ্গে মন্ত্রিসভায় যোগদান করার বিষয়টি ছিল রাজনৈতিক কৌশল। জার্মানিসহ অনেক দেশে এ নজির আছে। তবে আমরা আর মন্ত্রিসভায় থাকতে চাই না।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে থাকা অবস্থায় তার জামিন পাওয়া নিয়ে হৈচৈ করা প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, ‘আমি ৬ বছর ২ মাস কারাগারে ছিলাম। আমার বিরুদ্ধে সব মামলাই ছিল জামিনযোগ্য তার পরেও আমি জামিন পাইনি। হাইকোর্ট আদেশ দেওয়ার পরেও আমাকে সংসদে আসতে দেওয়া হয়নি। পৃথিবীর কোনো দেশের কোনো নেতাই আমার মতো নির্যাতন ভোগ করেনি। আমার প্রতি যে অবিচার করা হয়েছে তার কোনো নজির নেই।’

বিএনপির সাথে জাতীয় পার্টির জোট করার কোনো সম্ভাবনা নেই জানিয়ে এইচ এম এরশাদ বলেন, আগামী নির্বাচনে বিএনপি আসবে কি না-সে ব্যাপারে আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে। বিএনপি নির্বাচনে না এলেও কিছু আসে যায় না। নির্বাচন যথা সময়ে হবে। আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে। তারপরও সরকার চেষ্টা করছে, আমরাও মনে করি বিএনপির নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত।

এরশাদ বলেন, আমরা আগামী ২৪ মার্চ ঢাকায় মহাসমাবেশের তারিখ ঘোষণা করেছি। আশা করছি সেখানে পাঁচ লাখ মানুষের সমাবেশ হবে। আমরা দেখাতে চাই জাতীয় পার্টি কতটা শক্তি সঞ্চয় করেছে। আগামীতে আমরা জনগণের রায় নিয়ে এককভাবে ক্ষমতায় যেতে চাই।

এর আগে সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে সরাসরি রংপুর সার্কিট হাউজে এসে পৌঁছালে দলের নেতা-কর্মীরা তাকে স্বাগত জানান। এ সময় দলের মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু ও রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাসহ দলের নেতা-কর্মীরা তার সঙ্গে ছিলেন।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul