adimage

২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
সকাল ০৫:২৩, বুধবার

‘রোহিঙ্গা সঙ্কট মায়ানমার সরকার সৃষ্টি করেছে, তাই সমাধানও তাদেরকে করতে হবে’

আপডেট  07:10 PM, ফেব্রুয়ারী ০৫ ২০১৮   Posted in : রাজনীতি    

‘রোহিঙ্গাসঙ্কটমায়ানমারসরকারসৃষ্টিকরেছে,তাইসমাধানওতাদেরকেকরতেহবে’

ঢাকা, ৫ ফেব্রুয়ারি :  ‘রোহিঙ্গা সঙ্কট মায়ানমার সরকার সৃষ্টি করেছে, তাই সমাধানও তাদেরকে করতে হবে, এক্ষেত্রে কফি আনান কমিশনের রিপোর্ট বাস্তবায়ন করতে হবে, রোহিঙ্গা সঙ্কটে বাংলাদেশের পাশে থাকবে সুইজারল্যান্ড’ বলে যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সফররত সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেইন বারসেট।

সোমবার বিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সফররত সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেইন বারসেট দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে এক যৌথ বিবৃতিতে এসব কথা বলেন। এসময় ১২ মিলিয়ন সুইস ফাঙ্ক সহায়তার আশ্বাস দেন সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেইন বারসেট।

এর আগে সোমবার বেলা ১১টা ০৫ মিনিটে জাতীয় স্মৃতিসৌধে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন সফররত সুইজারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট অ্যালেইন বারসেট। শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করার পর এক মিনিট নীরবতা পালন করেন সুইস প্রেসিডেন্ট। পরে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর পরিদর্শন করেন এবং সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

স্মৃতিসৌধে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে স্মৃতিসৌধের পরিদর্শন বইতে নিজের অনুভূতি লিপিবদ্ধ করেন প্রেসিডেন্ট অ্যালেই বারসেট। পরে স্মৃতিসৌধের ভিআইপি বাগানে একটি নাগেশ্বর চাপা গাছের চারা রোপন করে স্মৃতিসৌধ এলাকা ত্যাগ করেন তিনি।

এর আগে গত রবিবার দুপুরে সোয়া ১টায় তিনি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। তাকে সেখানে স্বাগত জানান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বিমানবন্দরে লাল গালিচা অভ্যর্থনাও দেওয়া হয় সুইস প্রেসিডেন্টকে।

এছাড়া বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি সুইস প্রেসিডেন্ট অ্যালেই বারসেটের সম্মানে নৈশভোজের আয়োজন করেছেন। সফরকালে বারসেট সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

রবিবার সন্ধ্যা ৬টায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠকের মধ্যদিয়ে বারসেটের আনুষ্ঠানিক সফর কার্যক্রম শুরু হয়।

বৈঠকে দুই দেশ বর্তমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারের পাশাপাশি অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সহযোগিতা জোরদারের উপায় নিয়ে আলোচনা হবে।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul