adimage

২২ নভেম্বর ২০১৯
সকাল ০৫:৫৪, শুক্রবার

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারালো ইংল্যান্ড

আপডেট  01:33 AM, Jun ১৫ ২০১৯   Posted in : আন্তর্জাতিক স্পোর্টস    

ওয়েস্টইন্ডিজকে৮উইকেটেহারালোইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৫ জুন :বিশ্বকাপের ১৯তম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে স্বাগতিক দেশ ইংল্যান্ড। উইন্ডিজের দেয়া ২১৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৬.৫ ওভার হাতে রেখে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। দলের হয়ে সর্বে্াচ্চ ১০০ রান করে অপরাজিত থাকেন জো রুট। এর আগে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৪৪.৪ ওভারে ২১২ রান সংগ্রহ করে উইন্ডিজ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ (৬৩) রান করেন নিকোলাস পুরান।

শুক্রবার সাউদম্পটন দ্য রোজ বোলে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় ম্যাচটি শুরু হয়। টসে জিতে ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায়।

স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে একাদশে তিন পরিবর্তন আনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফেরেন আন্দ্রে রাসেল। এছাড়া একাদশে অন্তর্ভূক্ত করা হয় ওপেনার এভিন লুইজ ও পেসার শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৪ রানে ওপেনার এভিন লুইজের উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে উইন্ডিজ। ওয়ানডাউনে ব্যাট করতে নামা শাই হোপকে নিয়ে আরেক ওপেনার ক্রিস গেইল প্রাথমিক বিপর্যয় কাটানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু এই জুটি যখন ৫২ রান করে, জুটি আর বড় করতে দেননি পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেট। ৪১ বলে ৫ চার ও এক ছয়ে ৩৬ রান করা গেইলের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন প্লাঙ্কেট। দলীয় ৫৪ রানে গেইল ফিরলে ৫৫  রানে শাই হোপের উইকেট হারিয়ে ফের চাপে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর দলের হাল ধরেন পুরান ও হেটমায়ার।

দুজনে গড়েন ৮৯ রানের জুটি। ৩৯ রান করে দলের ১৪৪ রানের মাথায় জো রুটের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন হেটমায়ার। পরবর্তী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আর কোন ব্যাটসম্যান বড় কোন ইনিংস খেলতে পারননি। নিকোলাস পুরানের ব্যাট থেকে আসে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি। পুরান ৭৮ বলে ৩ চার ও এক ছয়ে ৬৩ রান করে জোফরা আর্চারে শিকার হয়ে ফেরেন। আন্দ্রে রাসেল ২১, কার্লোস ব্রাথওয়েট ১৩ ও জেসন হোল্ডার করেন ৯ রান। ফিনিশারদের ব্যটিং ব্যর্থতায় দ্রুত উইকেট হারিয়ে ৪৪.৪ ওভারে  ২১২ রানে উইন্ডিজের ইনিংস থেমে যায়।

ইংল্যান্ড বোলারেদের মধ্যে জোফরা আর্চার ৩টি, মার্ক উড ও জো রুট ২টি, লিয়াম প্লাঙ্কেট এবং  ক্রিস ওয়াকস একটি করে উইকেট শিকার করেন।

২১৩ রানের লক্ষ্যে পাড়ি দিতে দলের নিয়মিত ওপেনার জেসন রয়কে চাড়া নামতে হয় ইংল্যান্ডকে। রয় ফিল্ডিং করার সময় পায়ের গোড়ালিতে আঘাতপ্রাপ্ত  হন। তার জায়গায় ওপেন করতে নামেন জো রুট। জনি বায়েস্ট্রো ও রুটের ওপিনং জুটিতে শুভ সূচনা করে ইংলিশরা। ১৪.৪ ওভারে দলীয় ঝুলিতে দু’জনে মিলে জমা করেন ৯৫ রান। ৪৬ বলে ৭চারে ৪৫ রানের ইনিংস খেলে শ্যানন গাব্রিয়েলের বলে ব্রাথওয়েটের তালুবন্দী হয়ে ফেরেন বায়েস্ট্রো।

নিরুত্তাপ ম্যাচে বায়েস্ট্রো আউট হলে ওয়ানডাউনে ব্যাট করতে নামেন ক্রিস ওয়াকস। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ওয়াকস-রুট মিলে গড়েন ১০৪ রানের জুটি। ৫৪ বলে ৪০ রান করে গাব্রিয়েলের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরেন ওয়াকস। যখন দল জয় থেকে মাত্র ১৩ রান দূরে। বাকি কাজটুকু বেন স্টোকসকে নিয়ে সারেন রুট। দেখশুনে খেলে শেষ পর্যন্ত এই টপ ওর্ডার তুলে নেন ক্যারিয়ারের ১৫তম সেঞ্চুরি। ৯৪ বলে ১২ চারে অপরাজিত করেন ১০০ রান। স্টোকস থাকেন ৬ বলে ১০ রান নিয়ে থাকেন অপরাজিত। ৩৩.১ ওভারে মাত্র দুটি উইকেট হারিয়ে কাঙ্খিত জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড।

উইন্ডিজ বোলারদের মধ্যে শ্যানন গাব্রিয়েল ইংলিশদের উইকেট দুটি শিকার করেন।

বল হাতে দুই উইকেট এবং ব্যাট হাতে ১০০ রান করে ম্যাচ সেরা হন ইংলিশ ব্যাটনম্যান জো রুট।


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul