adimage

২২ নভেম্বর ২০১৯
সকাল ০৫:৫৪, শুক্রবার

জয় ছাড়া কিছু ভাবছেন না ওয়ালশ

আপডেট  01:42 AM, Jun ১৫ ২০১৯   Posted in : স্পোর্টস    

জয়ছাড়াকিছুভাবছেননাওয়ালশ

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৫ জুন : একসময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেললেও এখন কোর্টনি ওয়ালশের পরিচিতি বাংলাদেশ টিমের বোলিং কোচ হিসেবে। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পরের ম্যাচ ওয়ালশের দেশের বিপক্ষেই। তবে আগামী সোমবারের ঐ ম্যাচে বাংলাদেশকেই জয়ী দেখতে চান তিনি। গতকাল টনটনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমন প্রত্যাশার কথাই জানালেন সাবেক এ ফার্স্ট বোলার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ টিমে ক্রিস গেইল সব সময় একটা আতঙ্কের নাম। এখন নতুনভাবে আন্দ্রে রাসেলের নাম এসেছে। রাসেলকে ঠেকানোর কি পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ বোলিং টিম। ওয়ালশ বলেন, ‘অবশ্যই এ ম্যাচ সামনে রেখে আমরা কিছু পরিকল্পনা করব। তারা দুজনে (গেইলস ও রাসেল) খুব বিপজ্জনক ক্রিকেটার। তাদের যতটা সম্ভব আটকে রাখার চেষ্টা করব। তবে বিশেষ কোনো টিমকে বিবেচনায় না নিয়ে আমরা একে খেলা হিসেবে নিচ্ছি। আমরা সে সব খেলোয়াড়ের দিকেই লক্ষ্য রাখছি যারা বাংলাদেশে আসেনি বা বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলেনি। সম্ভবত তারা পুরো শক্তি নিয়েই খেলবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে আমরা ধারাবাহিকভাবে ভালো করছি। তবে আমরা আত্মতুষ্টিতে ভুগছি না।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারানোর দৃষ্টান্ত আছে বাংলাদেশের। ঐ সব ম্যাচে তাদের ক্রিস গেইল ও আন্দ্রে রাসেলও খেলেছিল। এটা কি বাড়তি অনুপ্রেরণা জোগাবে বাংলাদেশ দলকে। ওয়ালশ বলেন, ‘এটা আলাদা এক টুর্নামেন্টে সম্পূর্ণ আলাদা একটি খেলা। আমরা কি রকম পরিকল্পনা করছি আর তা কাজে লাগাচ্ছি সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আশা করছি যে আমরা সুন্দরভাবেই আমাদের পরিকল্পনা কাজে লাগাতে পারব।’

ওয়ালশ কথা বলেন তার চার পেসারকে নিয়েও। টিমে রুবেল সুযোগ না পাওয়ার বিষয়টি নির্বাচকদের এখতিয়ারে মন্তব্য করে ওয়ালশ বলেন, ‘গত মৌসুমটা ওর (রুবেল) খুব ভালো কেটেছে। এ বছরও সে বেশ ভালো বোলিং করেছে। এখানে নেটেও সে ভালো বল করছে। তবে টিমের ফরমেশনের কারণে সে এখনো খেলার সুযোগ পায়নি। এ টুর্নামেন্টের আরো কিছু খেলা বাকি আছে। আশা করি সে সামনে সুযোগ পাবে।’

মুস্তাফিজ সম্পর্কে কোচ বলেন, ‘মুস্তাফিজ প্রথম বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ভালো বোলিং করেছিল। কিন্তু ইংল্যান্ড ম্যাচে সে রান দিয়েছে। আমি মনে করি না সে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খারাপ বোলিং করেছে। তার লুজ ডেলিভারিগুলো বাউন্ডারি হয়ে যাচ্ছিল। এ কারণে তার বোলিং ফিগারটা আর দেখতে ভালো লাগছিল না। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি যে সে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভালো বোলিং করেছে।’

দ্বিতীয় ম্যাচের পর থেকেই মাশরাফিকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় বইছে। তার খেলার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। ব্যাপারটাকে কিভাবে দেখছেন ওয়ালশ। বলেন, ‘আমি মনে করি না এ ধরনের সমালোচনার প্রয়োজন রয়েছে। আমরা সবাই জানি মাশরাফি একজন যোদ্ধা। অধিনায়ক হিসেবে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছে। তার সামান্য ইনজুরি আছে। তা সত্ত্বেও সে ভালো কিছু স্পেল বোলিং করেছে। সমর্থকরা শুধু জয় আর জয় চায়। এটা সব সময় সম্ভব নয়। আমরা গত দুটি ম্যাচ হেরেছি। একটা ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেসে গেছে। আমরা যদি দুটি ম্যাচ জিতে যাই তাহলে সবাই আমাদের শক্তিটা বুঝতে পারবে। গত দুটি দিন মাশরাফি বিশ্রাম পেয়েছে। আমার বিশ্বাস সে এখন আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় রয়েছে।’

পরের ম্যাচে টিমে কোনো পরিবর্তন আসছে সেটা খেলার আগে দুদিনের অনুশীলন দেখার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানালেন ওয়ালশ, ‘এটা আসলে অধিনায়ক, প্রধান কোচ ও নির্বাচকদের কাজ। আমি শুধু বলতে পারি কে ফিট আর কে ফিট না। নতুন কেউ যোগ হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে সে কে তা আমার জানা নেই।’

প্রসঙ্গক্রমে জানিয়ে রাখা ভালো, গতকাল টনটনের মাঠে অনুশীলন করেছেন মুশফিক, মোস্তাফিজুর, সৌম্য সরকার, সাইফুদ্দিন ও মিথুন। অনুশীলনের বিষয়টি ঐচ্ছিক হওয়ায় টিমের বাকিরা হোটেলেই সময় কাটিয়েছেন। অনুশীলনের আগে এ পাঁচজন ইউনিসেফের আয়োজনে এক কমিউনিটি ক্লিনিকে অংশ নেন। প্রায় ঘণ্টাখানের এ প্রশিক্ষণে যোগ দেয় খুদে ক্রিকেটাররা।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul