২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
সকাল ৭:১৫, রবিবার

শিক্ষক পদক প্রদান একটি ব্যাতিক্রমধর্মী উদ্দ্যোগ

শিক্ষক পদক প্রদান একটি ব্যাতিক্রমধর্মী উদ্দ্যোগ 

0

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ১৯ ফেব্রুয়ারি : গোলাপগঞ্জে বৃত্তি ও শিক্ষকপদক বিতরণ কালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর ড. হোসেন আল মামুন বলেছেন, নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের চাহিদা পূরণে শিক্ষক ও অভিভাবকদের সচেতন হতে হবে। উৎসাহ প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শেখার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে পারলে তাদের কাছে ভালো ফলাফলের আশা করা যায়। শিক্ষার্থীর পাশাপাশি শিক্ষকদের অনুপ্রেরণা দানের লক্ষ্যে শিক্ষক পদক প্রদান একটি ব্যাতিক্রমধর্মী উদ্দ্যোগ। আমাদের সমাজে ভালো মানুষের অভাব, শিক্ষকগণ ভালো মানুষ গড়তে অবদান রাখেন। তিনি শনিবার গোলাপগঞ্জে এহিয়া আহমদ চৌধুরী স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত বৃত্তি বিতরণ, শিক্ষক পদক ও অনুদান প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উক্ত কথাগুলো বলেন।

গোলাপগঞ্জ জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে পরিষদের উপদেষ্টা, জামেয়ার ভাইস প্রিন্সিপাল জিন্নুর আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে, পরিষদের সহ-সাধারণ সম্পাদক শাহেদ আহমদ চৌধুরীর উপস্থাপনায় ও জামেয়ার ছাত্র মুমাদ আহমদের পবিত্র কোরআন তেলওয়াতের মাধ্যমে সূচিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল জামেয়া ইসলামিয়া স্কুল ও কলেজ মিরাবাজারের প্রিন্সিপাল  মুহাম্মদ মজির উদ্দিন ও সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক সিলেটের ডাকের চীফ রিপোর্টার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আহমদ চৌধুরী, বক্তব্য রাখেন পরিষদের প্রধান পৃষ্টপোষক চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া রেহেল, গোলাপগঞ্জ জামেয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, এহিয়া আহমদ চৌধুরী স্মৃতি ষষ্ঠ শিক্ষক পদকপ্রাপ্ত গুনী শিক্ষক মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন,পরিষদের উপদেষ্টা সৈয়দ নাসির উদ্দিন, রণকেলী লেক ভিউ প্রজেক্টের চেয়ারম্যান দিনার আহমদ চৌধুরী, ঢাকাদক্ষিন জামেয়া স্কুলের প্রিন্সিপাল আনেয়ার হোসেন কিবরিয়া, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের পক্ষে মাওলানা আজমল হোসেন শুভন, বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী রাফিউল ইসলাম, আহমদুল হক চৌধুরী, বৃত্তি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ ইখতিয়ার উদ্দিন, পরিষদের নির্বাহী সদস্য ও জামেয়ার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা আব্দুল কাদির।

অনুষ্ঠানে স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত চতুর্দশ জুনিয়র বৃত্তি পরীক্ষায় ১ম স্থান অধিকার কারীকে একটি কম্পিউটার ও ক্রেষ্ট, ২য় স্থান অধিকার কারীকে ১টি ট্যাব ও ক্রেষ্ট, ৩য় স্থান অধিকার কারীকে নগদ ২হাজার ৫শত টাকা ও ক্রেষ্ট এবং মেধাতালিকায় স্থান লাভকারী বাকি ৭ জনকে নগদ অর্থ ও ক্রেষ্ট, স্কুল কোটায় বৃত্তিপ্রাপ্ত ১৪ জনকে নগদ অর্থ ও ক্রেষ্ট, ৫ জন মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে নগদ অর্থ ও ক্রেষ্ট, শাবিতে অধ্যয়নরত একজন শিক্ষার্থীকে নগদ ৫০ হাজার টাকা, ১ জন মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে নগদ ১২ হাজার টাকা, স্থানীয় ৮ জন শিক্ষার্থীকে জনপ্রতি ৪ হাজার টাকা করে ৩২ হাজার টাকা, ১টি জুনিয়র স্কুলের উন্নয়নে ২০হাজার টাকা, ২টি মাদ্রাসার উন্নয়নে ১৭ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

আলোচনা সভা শেষে মরহুম এহিয়া আহমদ চৌধুরীর মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন পরিষদের নির্বাহী সদস্য ও জামেয়ার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা আব্দুল কাদির। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মছনুন চৌধুরী, উপদেষ্টা হাফিজ আহমদ চৌধুরী, গোলাপগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, সাংবাদিক গোলাম দস্তগীর খাঁন ছামিন, দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি হারিছ আলী, চৌধুরী ইউসুফ এহিয়া প্রমুখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

স্কাউটস এর ৬ষ্ঠ জেলা সমাবেশ সম্পন্ন হয়েছে 

0

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ১৭ ফেব্রুয়ারি : বাংলাদেশ স্কাউটস, সিলেট জেলা আয়োজিত ৬ষ্ঠ জেলা সমাবেশ সম্পন্ন হয়েছে। বিকেএসপি সিলেট কেন্দ্র খাদিমনগরে আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী ক্যাম্পের সমাপনী ও মহাতাঁবু জলসা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ও বাংলদেশ স্কাউটসের ডিএনসি (সমাজ উন্নয়ন) ড. মোছাম্মত নাজমানারা খানুম।

গত রোববার রাতে সিলেট জেলা স্কাউটস এর সহ-সভাপতি মোহাম্মদ জারউল্লাহর সভাপতিত্বে জেলা স্কাউট লিডার স্বপন চন্দ্র নাথের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান স্কাউট ব্যক্তিত্ব হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্কাউট সিলেট অঞ্চলের কমিশনার মুবিন আহমদ জায়গীরদার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্কাউটসের ডিএনসি (জনসংযোগ ও মার্কেটিং) আমিমুল এহসান খান পারভেজ, সিলেট অঞ্চলের সম্পাদক মহিউল ইসলাম মুমিত, জার্মান কবি দম্পতি টোবিয়াস বুরগাট ও ইওনা বুরগাট। আলোচনা সভা শেষে স্কাউটদের অংশ গ্রহনে তাঁবু জলসা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া শনিবার রাতে আয়োজিত লিডার্স নাইটে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি অব পুলিশ মো. কামরুল আহসান পিপিএম।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সৈয়দ মোহাম্মদ আমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে ও স্কাউটার মাহফুজ আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় প্রধান স্কাউটার ব্যক্তিত্ব হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা বিভাগের সিলেট বিভাগীয় উপ-পরিচালক তাহমিনা খাতুন। একই দিন বিকেলে স্কাউটার আবুল হাশেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গ্রেন্ড ডিসপ্লেতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্কাউটস সিলেট অঞ্চলের সহ-সভাপতি মিরাজ মাধব চক্রবর্তী মানস। স্কাউটার সালেহ আহমদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্কাউট ব্যক্তিত্ব হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আঞ্চলিক উপ-কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন) আমির আজম চৌধুরী। সমাবেশে সিলেট জেলার ৮০টি স্কাউটস দলের প্রায় ১ হাজার সদস্য অংশ গ্রহণ করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোলাপগঞ্জে দিন্যবাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ 

0

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ১৬ ফেব্রুয়ারি : গোলাপগঞ্জে দিনভর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গতকাল ব্যস্থতম দিন কাটালেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। লক্ষীপাশা ও ফুলবাড়ী ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন, পূর্বরেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমীক ভবনের উদ্বোধন, সুন্দিশাইল ও ঘাগুয়া রাস্তার পাকাকরণের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনসহ ৪ কিলোমিটার গ্রাম বিদ্যুতায়নের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। সর্বশেষ বিকেল সাড়ে ৩টায় উপজেলার সব চেয়ে কম সুবিধা প্রাপ্ত অঞ্চল কুশিয়ারা নদী তীরবর্তী ঘাগুয়া গ্রামে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেছেন, শেখ হাসিনার মত যোগ্য নেতার কারনে বাংলাদেশ আজ এত উন্নতি লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশ ও জাতির কল্যাণে আজ নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। যোগ্য নেতৃত্বের কারনে বাংলাদেশ আজ অভাবনীয় সফলতা অর্জন করেছে। বাংলাদেশের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে পৃথিবীর অনেক দেশে গবেষণা চলছে। আমরা মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হচ্ছি। একদিন বাংলাদেশ সমৃদ্ধি অর্জন করে ধনী রাষ্ট্রে পরিণত হবে, এমন প্রত্যাশা করি।

তিনি সুন্দিশাইল ও ধারাবহর গ্রামের বিভিন্ন অংশে সাম্প্রতিক সময়ে সম্পন্ন হওয়া বিদ্যুৎ লাইনের শুভ গ্রাম বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন ঘোষণা করে বলেন, বিদ্যুৎ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে গভীর ভাবে জড়িয়ে আছে। প্রতিটি মুহূর্তেই যেন বিদ্যুৎ প্রয়োজন। মানুষের এই প্রয়োজনের বিষয়টির প্রতি গুরুত্ব দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎখাতকে প্রধান্য দিয়েছেন। যার ফলে বিএনপি জোট সরকারের সাড়ে ৩ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ এখন প্রায় ১৫ হাজার মেগাওয়াডে উন্নীত হয়েছে। আমাদের দেশে বিদ্যুতের কোন ঘাটতি নেই, পুরাতন লাইন লোড বহন করতে গিয়ে মাঝে মধ্যে সমস্যা দেখা দেয়। অচিরেই এ সমস্যার সমাধান হবে বলে তিনি আশ্বস্থ করেন। চলতি বছরের মধ্যেই গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার উপজেলার সব এলাকা বিদ্যুতায়নের আওতায় চলে আসবে বলে তিনি ঘোষণা করেন।

ঘাগুয়া গ্রামের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী হাজী রফিক উদ্দিনের সভাপতিত্বে, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা জসিম উদ্দিন কুটলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত জনসভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি- ১ এর সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মাহবুবুল আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম নেতা সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এডভোকেট আব্বাস উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক, সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ছালিক, আমুড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বদরুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাওসার হোসেন তেরা মিয়া, সাবেক ইউপি সদস্য জুবায়ের আহমদ আফতাব, প্রবীণ ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ বালা মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা সাহেদ আহমদ।

এ সময় মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সচিব ও গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুল আহাদ, গোলাপগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডিজিএম সুজিত কুমার বিশ্বাস, উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আলী আকবর ফখর, দেশের শ্রেষ্ট সমবায়ী ব্যক্তিত্ব আওয়ামীলীগ নেতা আর্জমন্দ আলী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারী এমএ ওয়াদুদ এমরুল, আমুড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজিম উদ্দিন লস্কর, বিশিষ্ট সমাজসেবী এনাম আহমদ, কবি ও লেখক আলীম উদ্দিন বাবলু, তরুণ শিক্ষক আবু সুফিয়ান আজম, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা এমদাদ রহমান, রুমেল সিরাজ, ঢাকাদক্ষিণ ডিগ্রী কলেজের সাবেক এজিএস মনসুর আহমদ, উপজেলা যুবলীগ নেতা ফখরুল ইসলাম, আজমল আহমদ, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মোহাম্মদ আনা মিয়া, আমুড়া ইউপি সদস্য যুবলীগ নেতা কামরান হোসেন, ইউপি সদস্য তারেক আহমদ, লুকুছ আহমদ, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি কামরান আহমদ, সেক্রেটারী দেলওয়ার হোসেন দিপন, আমুড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ফরহাদ আহমদ প্রমুখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোলাপগঞ্জের অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ 

0

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ১৪ ফেব্রুয়ারি : গোলাপগঞ্জে ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে নব-নির্মিত পল্লী বিদ্যুতের সাব স্টেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, উন্নয়ন ও উৎপাদনের চালিকা শক্তি হচ্ছে বিদ্যুৎ। বিদ্যুৎ ব্যবস্থাকে পিছনে রেখে জাতীয় অগ্রগতির কথা চিন্তা করা যায় না। বিগত দিনে বিএনপি জোট সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদন না করে, উৎপাদনের নামে হাজার হাজার কোটি টাকা লুঠপাট করেছে। আওয়ামীলীগ ক্ষমতা লাভের পর বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নতির লক্ষে অগ্রাধিকার দেয়ায় আজ ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। আমরা ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে নিজেদের অবস্থান গড়তে চাই। তিনি বিদ্যুতের ব্যবহারে আরো সাশ্রয়ী নীতি অবলম্বন করার জন্য গ্রাহকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, শুধু কল-কারখানার উৎপাদনে বিদ্যুতের চাহিদা বাড়ছে না, গ্রামীণ জনপদে মাছ-মুরগীর উৎপাদনেও বিদ্যুতের প্রয়োজন রয়েছে। তিনি আরো বলেন, বিদ্যুৎ জাতীয় সম্পদ, এ সম্পদের মালিক এদেশের জনগণ। আপনার সম্পদ আপনাকেই রক্ষা করতে হবে। গোলাপগঞ্জের বাঘা ও নালীউরিতে দুটি সাব স্টেশন সহ গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজারের ৬টি নতুন সাব স্টেশনের কথা উল্লেখ করে বলেন, পূর্ব সিলেটের বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে ৬শ কোটি টাকা ব্যয়ে চারখাইয়ে গ্রীড উপ-কেন্দ্র হচ্ছে।

মঙ্গলবার বিকেল ৩টায় গোলাপগঞ্জ কদমতলীস্থ পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিস প্রাঙ্গনে এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সভাপতি হানিফ আহমদের সভাপতিত্বে ও সমিতি বোর্ডের সেক্রেটারী (সচিব) সাংবাদিক আব্দুল আহাদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মাহবুব আলম, গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী রফিক আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আলী আকবর ফখর, গোলাপগঞ্জ জোনাল অফিসের ডিজিএম সুজিত কুমার বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর বিয়ানীবাজার এলাকা পরিচালক শফিউর রহমান শফি, দক্ষিণ সুরমা এলাকা পরিচালক মাহবুব আহমদ, বুধবারী বাজার ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাব উদ্দিন কামাল, বাদেপাশা ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ, শরীফগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান এমএ মুমিত হীরা, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক, ভাদেশ্বর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ছালিক, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি হাজী আব্দুল ওয়াদুদ, লক্ষীপাশা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মাহমুদ আহমদ, গোলাপগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুস সামাদ জিলু, সেক্রেটারী ইসমাইল আলী মেম্বার, ভাদেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার লুৎফুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ওয়েছুর রহমান, যুবলীগ নেতা ফয়জুল ইসলাম ফয়ছল, জহির উদ্দিন, রুহেল আহমদ, তাহের উদ্দিন তাজ্জুব, ফখরুল ইসলাম, নাজিম উদ্দিন লস্কর, আজমল আহমদ, বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা আর্জমন্দ আলী, উপজেলা মৎস্যজীবি সমিতির সেক্রেটারী নুরুল ইসলাম, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা রুমেল সিরাজ, জাফরান জামিল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল আজিজ শুকুর, পৌর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সাদেক আহমদ, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা জিল্লুর রহমান, বিশিষ্ট সমাজসেবী ডা. ইব্রাহিম, ইউপি সদস্য তারেক আহমদ, আব্দুল মান্নান, ইজলাল আহমদ, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আনা মিয়া, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি কামরান আহমদ, সেক্রেটারী দেলওয়ার হোসেন দিপন প্রমুখ।

বিকেল সাড়ে ৪টায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলতাফ হোসেনের সভাপতিত্বে, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার নজরুল ইসলামের পরিচালনায় ও উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুল মতিনের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, আমরা আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বাংলাদেশ আজ নিজের খাদ্যের চাহিদা পূরন করে বিদেশে রপ্তানি করছে। চাল-ডাল-মাছ-মাংশ সব ক্ষেত্রে আমাদের অভাবনীয় সফলতা খাদ্য নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এজন্য তিনি কৃষক ও কৃষি বিভাগের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মদ খায়রুল আমিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী রফিক আহমদ, পৌর মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী, পৌর আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার আলহাজ শফিকুর রহমান, সাংগঠনিক কমান্ডার আব্দুল মুহিত, পৌর কমান্ডার মোহাম্মদ হানিফ আলী, উপজেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন সোনা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক রুহেল, ঢাকাদক্ষিণ ডিগ্রী কলেজের সাবেক এজিএস মনসুর আহমদ, শরীফগঞ্জ ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক, তরুণ লেখক আলীম উদ্দিন বাবলু, ইউপি সদস্য সেলিম আহমদ, তারেক আহমদসহ সরকারী বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোলাপগঞ্জে শ্রমিক ব্যবসায়ী সংঘর্ষে আহত ২০ 

1

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ১১ ফেব্রুয়ারি : সিলেটের গোলাপগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেলে পৌর এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সিএনজিচালিত অটোরিকশার একচালক স্থানীয় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে গাড়ি রাখা নিয়ে চালক ও দোকানির মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার একপর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শর্টগানের গুলি ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষ চলাকালে অন্তত ১৫/১৬টি অটোরিকশা ও ১০/১২টি দোকান ভাঙচুর করা হয়েছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে গোলাপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুল হক শিবলী বলেন, ‘ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে সিএনজিচালিত অটোরিকশা রাখাকে কেন্দ্র করে বেলা আড়াইটার দিকে শ্রমিক ও ব্যবসায়ীর মধ্যে সংঘর্ষ লাগে। শুক্রবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত দফায়-দফায় সংঘর্ষ চলে। ‘ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ২৫ রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়েছে এবং বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলেও জানান তিনি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিলেটে ৩ শ্রমিক হত্যায় মামলা, গ্রেপ্তার ২ 

44452

সিলেট, ১১ ফেব্রুয়ারি : সিলেটের বিছানাকান্দির পাথর কোয়ারিতে তিন শ্রমিক হত্যার ঘটনায় মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ।

শনিবার ভোর রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার একই এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- চট্টগ্রামের জাহিদ মিয়া ও লক্ষীপুরের রাজু মিয়া ওরফে জাহিদ হাসান।

জাহিদ ওই পাথর কোয়ারীর পে-লোডার ড্রাইভার ও রাজু হেলপারের কাজ করেন। তারা দু’জনই তিন শ্রমিক নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। গোয়াইনঘাট থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গর্ত থেকে পাথর উত্তোলনের সময় মাটিচাপায় তিন শ্রমিক নিহত ও বিষয়টি ধামাচাপা দিতে রাতের আঁধারেই শ্রমিকদের লাশ গুমের ঘটনায় বাদী হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় শুক্রবার রাতে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নম্বর ১৪।

মামলায় আসামি করা হয়েছে পাঁচজনকে। আসামিরা হলেন- পাথর ব্যবসায়ী বাছির মিয়া, আজাদ মিয়া, কামাল হোসেন, চট্টগ্রামের জাহিদ মিয়া, লক্ষীপুরের রাজু মিয়া ওরফে জাহিদ হাসান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিলেটে মাটিচাপায় তিন শ্রমিকের মৃত্যু 

6678

সিলেট, ১০ ফেব্রুয়ারি : সিলেটের গোয়াইনঘাটে পাথর উত্তোলনের সময় মাটিচাপায় তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তবে তাদের নাম পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গোয়াইনঘাটের বিছনাকান্দি পাথর কোয়ারি এলাকায় পাথর উত্তোলনের সময় মাটিচাপায় তিন শ্রমিক মারা যান।

গোয়াইনঘাট থানার ওসি শুক্রবার সকালে জানান, মাটিচাপায় তিন শ্রমিকের মৃত্যুর বিষয়টি তিনি শুনেছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার পর পর ওই তিন শ্রমিকের মরদেহ সরানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে তিনি মৃত তিন শ্রমিকের নাম পরিচয় জানাতে পারেননি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ভাদেশ্বর উন্নয়ন সমিতি ইউকের উদ্যোগে বৃত্তি প্রদান 

1

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ৫ ফেব্রুয়ারি : গোলাপগঞ্জে ভাদেশ্বর উন্নয়ন সমিতি ইউকের উদ্যোগে মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার দুপুর ১২টায় উপজেলার ভাদেশ্বর কলেজ মিলনায়তনে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জিলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে, বিশিষ্ট লেখক আবুল হাসনাতের উপস্থাপনায় ও কলেজের শিক্ষার্থী আবু রায়হান শাকিবের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য ও গোলাপগঞ্জ ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবি এডভোকেট শেখ আখতারুল ইসলাম, কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ছালিক, ভাদেশ্বর উন্নয়ন সমিতি ইউকের সভাপতি শামসুজ্জামান বেলু মিয়া, উপদেষ্টা নুরুল গণি পাখি মিয়া, ভাদেশ্বর এসোসিয়েশন ইউকের সহ-সভাপতি লুৎফুর রহমান চৌধুরী, ভাদেশ্বর মেশিগান এসোসিয়েশনের সদস্য শাহিন আহমদ চৌধুরী।

বক্তব্য রাখেন ভাদেশ্বর ভাদেশ্বর মডেল ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা শুয়াইবুর রহমান, ভাদেশ্বর কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল ভূষণ চন্দ্র ভৌমিক, ভাদেশ্বর উন্নয়ন সমিতি ইউকের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব মকবুল আহমদ। বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ভাদেশ্বর হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, ভাদেশ্বর কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, বিশিষ্ট সমাজসেবী শামিম আহমদ, ছাত্র নেতা মনসুর আহমদ, এলাকার প্রবীণ মুরব্বি এহিয়া আহমদ, উপজেলা শিক্ষা কমিটির সদস্য মাস্টার জহির উদ্দিন, মাস্টার জয়নাল আহমদ, লুৎফুর রহমান, শাহির উদ্দিন, আবিদুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ভাদেশ্বর ইউনিয়নের বিভিন্ন কলেজ ও মাদ্রাসার ৫৬জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান করা হয়। এছাড়া ভাদেশ্বর কলেজের উন্নয়ন ভাদেশ্বর উন্নয়ন সমিতি ইউকের পক্ষ থেকে তিন লক্ষ টাকার চেক, ভাদেশ্বর মেশিগান এসোসিয়েশনের সংস্থার পক্ষ থেকে দুই লক্ষ টাকার ঘোষণা, ও ভাদেশ্বর এসোসিয়েশনের ইউকের পক্ষ থেকে কলেজের নামে ভূমি প্রদানের ঘোষণা করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোলাপগঞ্জের চন্দরপুর গ্রামের সার্বিক উন্নয়নের দায়িত্ব নিলেন লন্ডন প্রবাসীরা 

2

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ২ ফেব্রুয়ারি : গোলাপগঞ্জের লন্ডন প্রবাসী অধ্যূষিত জনপদ কুশিয়ারা তীরবর্তী চন্দরপুর গ্রামকে আলোকিত গ্রাম হিসাবে গড়ে তোলার লক্ষে প্রবাসীরা প্রশংসনীয় উদ্যোগ গ্রহন করেছেন। ঐ এলাকার মানুষের কল্যাণে প্রবাসীরা রাস্তাঘাট সংস্কার, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ সর্ব ক্ষেত্রে তারা অবদান রাখতে চান। বিশেষ করে পুরো গ্রামকে বৈদ্যুতিক বাতি দ্বারা আলোকিত করতে কাজ শুরু করেছেন।

গোলাপগঞ্জ উপজেলার জনবহুল একটি গ্রাম হচ্ছে বুধবারী বাজার ইউনিয়নের চন্দরপুর। কুশিয়ারা নদীর উপর নব-নির্মিত ব্রীজটি চন্দরপুর গ্রামের নামেই নামকরণ করা হয়েছে। প্রায় ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ ব্রীজটি সব চেয়ে বেশী সুবিধা এনে দিয়েছে চন্দরপুর গ্রামবাসীকে। ব্রীজটি চালু হওয়ার পর তাদের জীবনে নব-দিগন্তের সূচনা হয়েছে। এক সময় রাত বেশী হলে চন্দরপুরবাসী বাড়ি ফিরতে অনীহা বোধ প্রকাশ করতেন। আজ তাদের প্রতিটি ঘরেই অনায়েশে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন নিয়ে যেতে পারছেন। এতে দেশি-বিদেশী মানুষের আগ্রহ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। তারা চন্দরপুর গ্রামকে নিয়ে নতুন করে স্বপ্নের জাল বুনছেন। ইতিমধ্যে লন্ডনে বসবাসরত চন্দরপুরের জনগণ এলাকার সার্বিক উন্নয়নে আর্থিক ভাবে সহায়তা করতে গঠন করেছেন যুক্তরাজ্যস্থ চন্দরপুর ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট। এ ট্রাস্টের অন্যতম উদ্যোগতা হচ্ছেন- লেখক, গবেষক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব একাউন্টেন্ট আবু তাহের। এছাড়া আরও উদ্যোগী হয়ে এসেছেন গোলাপগগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের অন্যতম ট্রাস্টি ফারুক মিয়া, আল-এমদাদ এডুকেশন ট্রাস্টের ট্রাস্টি তালাক সিদ্দিকী, যুক্তরাজ্য প্রবাসী গোলাম কিবরিয়া, মনসুর আলম রুবেল, দেলওয়ার হোসেন, বদরুল আলম, আব্দুল মান্নান মাখন প্রমুখ।

এদিকে বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালিয়ে আলোকিত গ্রামের কার্যক্রম শুরু উপলক্ষে গতকাল বুধবার এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এলাকার প্রবীণ ব্যক্তিত্ব সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে ও তরুন আবজল হোসেনের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সচিব ও গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুল আহাদ। অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বুধবারী বাজার ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শরীফ উদ্দিন শরফ, যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবু তাহের, হাজী ফয়জুর রহমান, মানবাধিকার কর্মী ও সাংবাদিক শফিক উদ্দিন আহমদ, জামিল আহমদ কেরল, নুর উদ্দিন, ফারুক মিয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ফিতা কেটে উন্নয়ন কার্যক্রমের ঘোষণা করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোলাপগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের নতুন সাবস্টেশন পরীক্ষামূলক চালু 

1

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ২ ফেব্রুয়ারি : গোলাপগঞ্জে ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত পল্লী বিদ্যুতের সাব স্টেশন পরীক্ষা মূলকভাবে আজ চালু হচ্ছে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এ উপলক্ষে আজ আসছেন। এ সাব স্টেশনের মাধ্যমে ৪টি ফিডার বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষে ইতিমধ্যে সংযুক্ত করা হয়েছে। সাব স্টেশনটি যথাযথ ভাবে চালু হলে গোলাপগঞ্জ পৌর এলাকাসহ উপজেলার বেশীর ভাগ অংশ বিদ্যুতের ভোগন্তি থেকে রক্ষা পাবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আশাবাদী।

গোলাপগঞ্জ পৌর শহরের কদমতলীতে স্থাপিত গোলাপগঞ্জ উপজেলা পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিস শুধু গোলাপগঞ্জ নয়, বিয়ানীবাজার ও জকিগঞ্জ উপজেলার বিদ্যুৎ নিয়ন্ত্রকের কাজ করে আসছে। বিভিন্ন কারনে গোলাপগঞ্জ সাব স্টেশন পূর্ব সিলেটের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি কেন্দ্র। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে পিডিপির উদ্যোগে এখানে বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্র ও অফিসিয়াল কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিভিন্ন ভবন নির্মাণ করা হলে ২০০৬ সালে পিডিপির মালিকানা পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ গ্রহন করে। এর পর থেকে গোলাপগঞ্জ সাব স্টেশনটি পল্লী বিদ্যুতেরই রক্ষাবেক্ষণে চলে যায়। বিগত দিনে বিদ্যুতের চাহিদার উপর নির্ভর করে সাব স্টেশনে পাওয়ার ট্রান্সফরমার স্থাপন করা হলেও এতে কাঙ্খিত মানের সেবা প্রদান করা সম্ভব হয়নি। প্রায়ই অতিরিক্ত লোডের কারনে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিত। গত দুবছরে পর পর দুবার পাওয়ার ট্রান্সফরমার বিকল হয়ে গেলে অবর্ণীয় দূর্ভোগের মধ্যে পড়েন গোলাপগঞ্জের পল্লী বিদ্যুতের হাজার হাজার গ্রাহক। তখন বিকল্প হিসাবে সিলেট সদর ও সুনামপুর সাব স্টেশন থেকে বিদ্যুৎ এনে চাহিদা পূরনের লক্ষে কাজ করা হলেও লোডশেডিংয়ের যন্ত্রনা আরও বৃদ্ধি পায়।

গোলাপগঞ্জের বিদ্যুৎ গ্রাহকদের কাঙ্খিত মানের সেবা প্রদানের লক্ষে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড ও সিলেট পল্লী সমিতি-১ এ ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগ গ্রহন করে। পাওয়ার বৃদ্ধি, আধুনিক যন্ত্রপাতি ও উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ট্রান্সফরমান স্থাপন করে গোলাপগঞ্জের সাব স্টেশনকে আরও অধিক শক্তিশালী করণের লক্ষে ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে কাজ শুরু করা হলে সম্প্রতি তা সম্পন্ন হয়। ইতিমধ্যে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেন গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সেক্রেটারী (সচিব) আব্দুল আহাদসহ পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।

এদিকে আজ উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন পাওয়ার ট্রান্সফরমার ও নতুন যন্ত্রপাতির পরীক্ষা মূলক কার্যক্রম শুরু করবেন বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ। কোন ত্রুটি দেখা না দিলে এ সাব স্টেশনটি আজ থেকেই সেবা দিতে থাকবে। ৪টি ফিডারের মাধ্যমে উপজেলার অধিকাংশ এলাকায় এখান থেকেই বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুৎতায়ন বোর্ড সিলেট জোনের নির্বাহী প্রকৌশলী (প্রকল্প বিভাগ) জগলুল হায়দার জানান, নতুন সাব স্টেশনটি গোলাপগঞ্জের মানুষের সেবাদানের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে স্থাপন করা হয়েছে। এ সাব স্টেশনের মাধ্যমে গ্রাহকরা ভোগান্তি থেকে রক্ষা পাবেন বলে আমি আশাবাদী। সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মাহবুব আলম এ ব্যাপারে অভিমত প্রকাশ করে বলেন, নতুন সাব স্টেশনটি পুরোপুরি চালু হলে গ্রাহকদের কাঙ্খিত মানের সেবা দিতে আমরা সক্ষম হব। এতে সকলের সহযোগীতা কামনা করে বলেন, গ্রাহক সমাজের সেবা দেয়াই হচ্ছে আমাদের কাজ। আমরা সেবার বিষয়টিকে প্রধান্য দিয়ে সব সময় কাজ করে থাকি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন স্কুল ও কলেজে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে সভা 

1

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ৩০ জানুয়ারি : গোলাপগঞ্জে ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ ক্যাম্পাসে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকাল ১১টায় বিদ্যালয় গভর্নিং বডির সভাপতি মাছুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সিনিয়র শিক্ষক তারেক জলিলের উপস্থাপনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভাদেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জিলাল উদ্দিন জিলাল।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ছালিক, বিদ্যালয় গভর্নিং বডির সাবেক সভাপতি আলহাজ ময়নুল হক, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী জহির উদ্দিন মাষ্টার, হারুনুর রশিদ, তমিজ উদ্দিন, গভর্নিং বডির সদস্য আলা উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন আহমদ হেলু, এনাম উদ্দিন, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ছালিক আহমদ, অবসরপ্রাপ্ত আনসার ও ভিডিপি অফিসার সুলতান আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তারা সম্প্রতি ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা চলাকালে কিছু বখাটে কলেজের ভিতরে ঢুকে ছাত্রীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ ও উত্তপ্ত করায় তীব্র নিন্দা জানান। তারা সে সময় বখাটেদের ছুরিকাঘাত ও লাঠির আঘাতে আহত শিক্ষার্থীদের আশু রোগ মুক্তি কামনা করেন। এছাড়া বখাটেদের আইনের আওতায় এনে তাদের শাস্তির দাবি করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা সম্পন্ন 

capture

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ৩০ জানুয়ারি : গোলাপগঞ্জের ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। রোববার গভর্র্নিং বডির সভাপতি মাসুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে, সিনিয়র শিক্ষক তারেক জলিল ও তাহের আহমদের যৌথ পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভাদেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জিলাল উদ্দিন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গভর্নিং বডির সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব ময়নুল হক, গভর্র্নিং বডির সদস্য আলা উদ্দিন, মঈন উদ্দিন মিনু, হেলাল উদ্দিন হেলু, মজম্মিল হক, এহতেমাম আবেদীন চৌধুরী ফরহাদ, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী সৈয়দা নাদিরা জামান, ফখরুল উদ্দিন চৌধুরী, তমিজ উদ্দিন, শিক্ষক ও শিক্ষিকাবৃন্দ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বণিক সমিতির নব-নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ 

capture

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ৩০ জানুয়ারি : গোলাপগঞ্জ উপজেলার হেতিমগঞ্জ বাজার বণিক সমিতির নব-নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। নব-নির্বাচিত কমিটির সদস্যদের সভাপতি, সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহ-সাধারণ সম্পাদকসহ কার্যকরী কমিটির অন্যান্য সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাফিজ নজমুল ইসলাম।

শপথ পরবর্তী আলোচনা সভায় তিনি তাঁর বক্তব্যে হেতিমগঞ্জ চৌমুহনী বাজার বণিক সমিতির নব-কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, হেতিমগঞ্জ বাজারকে সর্বস্তরের জনসাধারণের সুবিধার্থে একটি সেবামূলক বাণিজ্যিক কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন নিজ নিজ অবস্থান থেকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা ও ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করা। ঐতিহ্যবাহী হেতিমগঞ্জ বাজারকে আধুনিকায়ন ও মডেলে পরিণত করতে তিনি সহযোগীতার আশ্বাস প্রদান করেন।

রোববার বিকেল ৩টায় স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান নির্বাচন কমিশনার মইনুল ইসলাম সুহেলের সভাপতিত্বে, বণিক সমিতির নব-নির্বাচিত কমিটির সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান বাচ্চুর ও দপ্তর সম্পাদক শামসুল ইসলামের যৌথ উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার পত্রিকার সম্পাদক এডভোকেট মাওলানা রশীদ আহমদ, সিলেট পল্লী সমিতি-১ এর পরিচালক ও গোলাপগঞ্জ বাজার বণিক সমিতির সেক্রেটারী সাংবাদিক আব্দুল আহাদ, ফুলবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান ফয়ছল।

শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বণিক সমিতির বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমদ বেলাল। বক্তব্য রাখেন বণিক সমিতির সাবেক আহ্বায়ক আব্দুল মালিক মল্লিক, সাবেক ছাত্র নেতা জাফরান জামিল, মকসুদ আহমদ প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আহমদ চৌধুরী, অগ্রণী ব্যাংক হেতিমগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ ফরহাদ, সাবেক ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ গোলাম আজম সাইস্তা, হেতিমগঞ্জ চৌমুহনী বাজার বণিক সমিতির নব-নির্বাচিত সভাপতি কামাল উদ্দিন খান বেলাল, সহ-সাধারণ সম্পাদক আবুল খয়ের চৌধুরী রাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আসগর, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছালিক আহমদ, অর্থ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আনা, প্রচার সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সদস্য ইমরান আহমদ, মাসুম আহমদ, এমাজ উদ্দিন স্বপন, আব্দুল হাছিব আবুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে হেতিমগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ীবৃন্দ ও বিভিন্ন মহলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক প্রতিযোগীতা সম্পন্ন 

1

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ(সিলেট), ২৯ জানুয়ারি : গোলাপগঞ্জের ভাদেশ্বর নাছির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরুস্কার বিতরণী সভায় সভাপতিত্ব করেন গভর্র্নিংবডির সভাপতি মাসুম চৈৗধুরী, সভা যৌথভাবে সঞ্চালনা করেন সিনিয়র শিক্ষক তারেক জলিল ও তাহের আহমদ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভাদেশ্বর ইউপির নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান. বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ জিলাল উদ্দিন, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব ময়নুল হক, গভর্র্নিংবডির সদস্য আলা উদ্দিন, মঈন উদ্দিন মিনু, হেলাল উদ্দিন হেলু, মজম্মিল হক, এহতেমাম আবেদীন চৌধুরী ফরহাদ, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ব্যাক্তিত্ব সৈয়দা নাদিরা জামান, ফখরুল উদ্দিন চৌধুরী, তমিজ উদ্দিন, শিক্ষক ও শিক্ষিকাবৃন্দ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ইন্টারনেটের এই যুগে আমরা স্মার্টফোনের গেইম খেলতে খেলতে সত্যিকারের খেলা প্রায় ভুলতেই বসেছি! কিন্তু খেলাধুলা করা দেহের জন্য যেমন দরকারি তেমনি মনের সুস্থতায়ও উপকারী।

আবার অনেকের ধারণা খেলাধুলা শুধু ছোট বাচ্চাদের জন্য, কিন্তু আমাদের সুস্থভাবে থাকতে হলেও বড়দের জন্যও খেলাধুলা অনেক দরকারি। অনেক দেশে খেলাধুলাকে কিছুকিছু রোগের চিকিৎসা হিসেবে গ্রহণ করা হয়।

ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন সম্মানিত অতিথিবৃন্দ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ব্যাক্তি উদ্যোগে মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু 

1

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট), ২৭ জানুয়ারি : গোলাপগঞ্জ উপজেলার আমুড়া ইউনিয়নের ধারাবহরের পাহাড়ি জনপদে একটি মসজিদের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় আনুষ্ঠানিক ভাবে মসজিদের নির্মাণ কাজ শুরু হলে এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সচিব ও গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুল আহাদ, মসজিদের দাতা পল্লী বিদ্যুতের প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার জাহেদ আহমদ, স্থানীয় ইউপি সদস্য আমান উদ্দিন, পরিবেশবাদী আব্দুল লতিফ সরকার, বিশিষ্ট সমাজসেবী সাবেক ইউপি সদস্য রফিক উদ্দিন, আরমান আলী, বেলাল আহমদ, আলম আহমদ, আলাউদ্দিন সহ এলাকার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ।

উল্লেখ্য যে, ধারাবহরের টিলা ও পাহাড় বেষ্টিত এলাকার মুসল্লিদের সুবিধার্থে গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ রায়গড় গ্রামের অধিবাসী প্রবীণ শিক্ষক মনির উদ্দিন (মনির স্যার)এর পুত্র পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদার জাহেদ আহমদ প্রায় ২০ লক্ষ টাকা ব্যায় করে নিজ অর্থায়নে মসজিদ নির্মাণের উদ্যোগ নিলে শুক্রবার দোয়ার মাধ্যমে নির্মাণ কাজ শুরু হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর