২০ আগস্ট ২০১৭
সন্ধ্যা ৭:২১, রবিবার

রাজবাড়ীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই চরমপন্থী নিহত

রাজবাড়ীতে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই চরমপন্থী নিহত 

45

রাজবাড়ী, ১৩ মে : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই চরমপন্থী নিহত হয়েছেন। নিহত দুইজনের নাম বাপ্পি ও লালন।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টা থেকে সাড়ে ৩টার দিকে গোয়ালন্দ উপজেলার দুর্গম রাখালগাছি চর (পদ্মা নদীর চর) এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, নিহত দুইজনের মধ্যে বাপ্পী পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির (এমএল-লাল পতাকা) প্রধান ও লালন তার সহযোগী।

র‌্যাব-৮ এর কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই চরমপন্থী নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার দিবাগত রাতে নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি সংগঠন পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টি (এম এল, লাল পতাকা) বাহিনীর বাপ্পী গ্রুপের প্রধান রকিবুল হাসান রকি ওরফে বাপ্পী তার ৭/৮ জন সহযোগী নিয়ে রাখালগাছি চরে গোপন বৈঠক করছিলো। খবর পেয়ে রাত ৩টার দিকে সেখানে অভিযান চালানো হয়।

তিনি জানান, এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে চরমপন্থিরা গুলি চালানো শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় আধাঘণ্টা বন্দুকযুদ্ধের পর বাপ্পী ও লালন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। চরমপন্থি দলের অন্যান্য সহযোগীরা পালিয়ে যায়।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি একে ২২ রাইফেল, দুটি বিদেশি ওয়ান শুটারগান, একটি রাম দা, একটি তলোয়ার ও ৬০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয় বলে জানান রইছ উদ্দিন।

বন্দুকযুদ্ধে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রইছ উদ্দিন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১ 

রাজবাড়ী, ১৭ ফেব্রুয়ারি : রাজবাড়ীর পাংশায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মোয়াজ্জেম হোসেন নামে একজন নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, মোয়াজ্জেম সাত মামলার আসামি এবং চরমপন্থী দলের সদস্য।

পাংশা থানার ওসি মোফাজ্জল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল থেকে পিস্তল ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পাংশায় অস্ত্র-গুলিসহ চরমপন্থী গ্রেফতার 

14

পাংশা, ১৩ নভেম্বর : রাজবাড়ীর পাংশায় অস্ত্র ও গুলিসহ বাবুল সরদার (৩০) নামে এক চরমপন্থীকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। গ্রেফতারকৃত চরমপন্থী শরিষা ইউপির বহলাডাঙ্গী গ্রামের আরশেদ সরদারের ছেলে।

ডিবি পুলিশের এসআই কামাল হোসেন ভূইয়া বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার দিবাগত রাতে সরিষা ইউপির বিত্তিডাঙ্গা থানার মোড় এলাকা থেকে একটি ওয়ান শুটারগান ও দুটি কাতুর্জসহ গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃত বাবুলের বিরুদ্ধে সাতটি মামলা রয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোয়ালন্দে বজ্রপাতে তিন কৃষকের মৃত্যু 

6555

রাজবাড়ী, ১৭ আগস্ট : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বজ্রপাতে ৩ কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এরা হলেন, ওয়াজুদ্দিন মণ্ডলের ছেলে লাল মিয়া, মৃত জামাল সেখের ছেলে আবু বক্কার সেখ এবং টাংগাইল জেলার আবুল শাহ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের নলডুবি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, তিন কৃষক তখন ক্ষেতে চাষাবাদের কাজ করছিলেন। এ সময় বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এত করে তারা আহত হন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাদের গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দেখার পর মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে গত কয়েক বছরে বজ্রাঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। দুর্যোগ ফোরামের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৬ সালের এপ্রিল পর্যন্ত কেবল বজ্রাঘাতে মৃত্যুর সংখ্যা ৪৮। এর মধ্যে ১৪ শিশু ও ৩১ জন পুরুষ। আর ১২ মে একদিনেই ১৬ জেলায় কমপক্ষে ৪০ জন মারা গেছে।

২০১০ থেকে গত ৬ বছরের হিসাব বলছে, একেবারেই নজর না দেওয়া এই দুর্যোগে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় এক হাজার।

২০১৫ সালে বজ্রাঘাতে ২৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয় মে মাসে। এই মাসে মোট ৯১ জন মারা যায়। এর মধ্যে মে মাসের ২ তারিখে ১৯ জন, ৭ তারিখে ১৮ জন এবং ১৫ তারিখে ১৪ জন মারা যায়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

৩৬ ঘণ্টা পর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় লঞ্চ চলাচল শুরু 

0000008

রাজবাড়ী, ১১ আগস্ট : ৩৬ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে এ রুটে নৌ-দুর্ঘটনা এড়াতে লঞ্চ চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়।

জানা গেছে, পদ্মা নদীতে প্রবল স্রোত ও ঢেউয়ের কারণে এ নৌরুটে যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে লঞ্চ চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রাখে ঘাট কর্তৃপক্ষ।

বিআইডব্লিটিএ এর ট্রাফিক বিভাগের সহকারী পরিচালক ফরিদুল ইসলাম সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ নৌরুটে ২৫টি লঞ্চ চলাচল করছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নদীতে প্রবল স্রোত ও ঢেউ থাকায় যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়ে চিন্তা করে দুর্ঘটনা এড়াতে  সাময়িকভাবে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় পুনরায় লঞ্চ চলাচল শুরু করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে ট্রলারডুবি: শিশুসহ ৫ জনের লাশ উদ্ধার 

086555

রাজবাড়ী, ৬ আগস্ট : রাজবাড়ীর কালুখালীর পদ্মা নদীতে ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ ছয়জনের মধ্যে শিশুসহ পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার সকালে রাজবাড়ীর কালুখালীর হরিণবাড়িয়া এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

মৃত ব্যক্তিরা হলেন- পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চর রামনগর গ্রামের আকবরের স্ত্রী হালিমা বিবি (৫০), মেয়ে ফরিদা খাতুন (২২), রোকন শেখের মেয়ে বেগম (৪০), কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের আলোকদিয়া গ্রামের আলতাফের ছেলে রাজু (৬) ও শিশু রাহুল (৬)।

কালুখালী থানার ওসি নূরে আলম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় কালুখালীর উপজেলায় পদ্মা নদীর ক্যানেলে ট্রলার ডুবির ঘটনায় শিশু ও নারীসহ নিখোঁজ ছয়জনের মধ্যে পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ আরেক জনের সন্ধানে অভিযান চলছে।

কালুখালীর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসান জানান, স্থানীয় জনতা ও পুলিশের সহায়তায় নিখোঁজদের উদ্ধারে নদীতে অভিযান চালানো হয়। পরে সকালে শিশুসহ পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এর আগে  শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের হরিনবাড়িয়া বাজার এলাকা হতে একটি ট্রলার ৩০-৩৫ জনের মত যাত্রী বোঝাই করে ক্যানেলে রওনা দেয়। পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের সাদার চরের উদ্দেশে রওনা হয়ে প্রায় একশ’ গজ যাওয়ার পর পরই ক্যানেলের তীব্র স্রোতে ও ঢেউয়ের ধাক্কায় উল্টে গিয়ে ট্রলারটি ডুবে যায়।

এ সময় যাত্রীদের মধ্যে বেশিরভাগ সাঁতরে বিভিন্ন এলাকায় উঠতে সক্ষম হলেও ছয়জন নিখোঁজ হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে ট্রলারডুবি: ৩ জনের লাশ উদ্ধার 

0866

রাজবাড়ী, ৬ আগস্ট : রাজবাড়ীর কালুখালীতে হরিনবাড়ীয়া বাজার ব্রিজের কাছে ট্রলার ডুবির ঘটনায় শিশুসহ তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন আরো চারজন।

শনিবার ভোরে ঘটনাস্থল থেকে নদীর দুইকিলোমিটার ভাটি থেকে লাশ তিনটি উদ্ধার করে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নিহতরা হলেন- হালিমন বেগম (৫০), ফরিদা বেগম (৪০) ও মো. রাজু (০৪)।

এছাড়া বেগম (২০), রাহুল (৬), হাসনা (৫) ও দুলাল (৩৬) নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের গ্রামের বাড়ি জেলার পাংশা থানার চর রামনগর  এবং কালুখালী থানার আলেকদিয়া  গ্রামে।

কালুখালী থানার ওসি নুরে আলম ফকির জানান, রাজবাড়ী ফায়ার সাভির্স ও সিভিল ডিফেন্সের একটি ডুবুরি দল ভোরে ঘটনাস্থল পদ্মা নদীতে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। বাকিদের উদ্ধারে অভিযান চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পদ্মায় ট্রলারডুবি, ছয় যাত্রী নিখোঁজ 

011

রাজবাড়ী, ৬ আগস্ট : রাজবাড়ীর কালুখালীর পদ্মা নদীর কোলে যাত্রীবাহী ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। আজ শুক্রবার রাত ৮টা পর্যন্ত ছয়জন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। নিখোঁজরা দুই শিশু, তিন নারী এবং একজন পুরুষ।

কালুখালী ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য বিল্লাল মণ্ডল জানান, আজ শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে একই ইউনিয়নের হরিণবাড়ীয়া বাজার থেকে ২০ জন নারী-পরুষ এবং শিশু যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার পদ্মা নদীর কোল (শাখা) দিয়ে জেলার পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চর,  রামনগর এবং সাদারচর গ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়। ট্রলারটি কয়েক শ গজ দূরে থাকা ব্রিজের নিচে পৌঁছাতেই তীব্র স্রোতের কারণে তা তলিয়ে যায়। এ সময় ১৪ জন যাত্রী তীরে উঠতে সক্ষম হলেও আলোকদিয়া গ্রামের রাজু (৪), রহমত (৬), চর রামনগর গ্রামের বেগম (৪০), একই গ্রামের ছয় মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূ ফরিদা বেগম (২০), গৃহবধু হালিমা বেগম (৫০) এবং দুলাল (৩৬) নিখোঁজ হন।

কালুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান বলেন, “ঘটনার পরপরই একধিক ট্রলারযোগে নদীর বেশ কয়েক কিলোমিটার এলাকায় তল্লাশি চালানো হয়। ফায়ার সার্ভিসের রাজশাহীর ডুবুড়ি দলকে সংবাদ দেওয়া হয়েছে। তারা রাতেই এসে পৌঁছাবে। তারা পৌঁছালে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ 

full_619482641_1424330407

রাজবাড়ী, ৬ জুন :  রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামের কালারদুয়াল এলাকায় ট্রাকের সঙ্গে ভ্যানগাড়ির সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছে। আজ সোমবার সকাল সোয়া ৬টার দিকে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত দুজনের নাম আবদুস সামাদ মোল্লা (৪৮) ও আবদুল রহিম সরদার (৫২)। তাদের মধ্যে আবদুস সামাদ মোল্লা ভ্যানচালক। তার বাড়ি বাগমারা গ্রামে। আবদুল রহিমের বাড়ি মর্জ্জৎকোল গ্রামে।

স্থানীয় বাসিন্দা সোহাদ শিকদার ও কার্তিক চন্দ্র দাসের ভাষ্য, বাগমারা মোড় থেকে ভ্যানটি রাজবাড়ী বাজারের দিকে যাচ্ছিল। কালারদুয়াল এলাকায় বরিশাল থেকে কুষ্টিয়াগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে দুজন মারা যায়। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন।

পাংশা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাৎ হোসেনের ভাষ্য, ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। ট্রাকের চালক ও সহকারী পালিয়ে গেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের প্রক্রিয়া চলছে। সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ মোকাবেলায় প্রস্তুত সরকার: মায়া 

0546

ঢাকা : ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানুর’ প্রভাবে সৃষ্ট যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় মন্ত্রণালয় প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনামন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। শনিবার সকালে নিজ মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর মোকাবেলায় ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে তার মন্ত্রণালয়। উপকূলীয় ১৪টি জেলায় কাজ করছে ১ লাখেরও বেশি স্বেচ্ছাসেবক। ইতিমধ্যে পাঁচ লাখ মানুষকে সরিয়ে নিয়ে বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে অবস্থান নেওয়া মানুষদের জন্য মন্ত্রণালয় থেকে খাবার, বিশুদ্ধ পানি ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, আবহাওয়ার সর্বশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, শনিবার বিকেল নাগাদ ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ চট্টগ্রাম ও বরিশাল উপকূল অতিক্রম করবে। চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা সমূদ্রবন্দরসহ বরিশাল বিভাগের সব জেলায় ৭ নম্বর ও কক্সবাজার উপকূলে ৬ বিপদ সংকেত জারি করা হয়েছে।

এদিকে কক্সবাজার ও পটুয়াখালী উপকূল প্লাবিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আর রোয়ানুর আঘাতে পটুয়াখালীর দশমিনা, ভোলার তজুমদ্দিন, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গোয়ালন্দের তরুণীকে টাঙ্গাইলের যৌনপল্লিতে বিক্রির অভিযোগ 

1458548958

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী), ২১ মার্চ : বিদেশে লোক পাঠানোর কথা বলে রাজবাড়ির গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচরের এক তরুণীকে (১৭) সম্প্রতি টাঙ্গাইলের যৌনপল্লিতে বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রায় দুই সপ্তাহ পর গত মঙ্গলবার সে স্থানীয় এক ব্যক্তির সহযোগিতায় পালিয়ে বাড়ি ফিরে আসে।

ওই তরুণী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের নলিয়া পাড়ার মৃত জববার প্রামাণিকের ছেলে কাজল প্রামাণিক(৪৫) বিদেশে(মরিসাস) পাঠানোর কথা বলে তাদের থেকে ৬০ হাজার টাকা নেন এবং ঢাকা গাবতলীর একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ভর্তি করে। দুই সপ্তাহ আগে কাজল প্রমাণিক তার সাথে প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে দেখা করে। শরীর দুর্বলের কথা বলে তাকে ঔষুধ কিনে দেয় এবং সেবন করায়। কিছুক্ষণ পর সে সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলে। জ্ঞান ফিরলে মুন্নি নামের এক নারী তাকে জানান, এটা টাঙ্গাইলের যৌনপল্লি এবং তাকে এখানে বিক্রি করেছে।

ওই তরুণী আরো জানান, এরপর থেকে তার উপর পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়। থাকতে না পেরে স্থানীয় এক ব্যক্তির সহযোগিতায় গত মঙ্গলবার খুব ভোরে সে পালিয়ে বাড়ি আসে। বাড়ি আসলে কাজল প্রামাণিক বিষয়টি কাউকে জানাতে বারণ করে ও সমাধানের কথা জানান। গত শুক্রবার সকালে তারই বড় ভাই এলাকার মাতুব্বর নুরুউদ্দিন প্রামাণিক ৬০ হাজার টাকার মধ্যে ৪০ হাজার টাকা ফিরিয়ে দেয়ার কথা জানায়। তরুণীর মাসহ অন্যান্যরা জানান, কাজল প্রামাণিকরা প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ কিছু বলতে সাহস পাচ্ছে না। এমনকি আমরাও থানা পুলিশকে জানাতে পারছি না।

স্থানীয় ইউপি সদস্য, আ.লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ, আবুল হোসেন ফকির, হযরত আলীসহ অনেকেই সাংবাদিকদের জানান, দরিদ্র পরিবারের তরুণীকে বিদেশে পাঠানোর কথা বলে যৌনপল্লিতে বিক্রি করে জঘন্য অপরাধ করেছে। তরুণীর পরিবার অসহায় হওয়ায় পুলিশের কাছে যেতে সাহস পাচ্ছে না।

কাজল প্রামাণিক অভিযোগ অস্বীকার করে সাংবাদিকদের বলেন, বিদেশে পাঠাতে তাকে প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছিল ঠিক। কিছুদিন পর সে কাউকে না জানিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। শুনেছি তাকে টাঙ্গাইলের যৌনপল্লিতে বিক্রি করা হয়েছিল। এর সাথে কারা জড়িত জানি না, তবে অহেতুক আমাকে জড়ানো হচ্ছে। এলাকার হালিম নামের এক যুবকের সাথে তার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রয়েছে এবং তার মাধ্যমেই সে বাড়ি ফিরে আসে।

হালিম বলেন, কারা যৌনপল্লিতে বিক্রি করেছে জানা নেই। তবে মাঝেমধ্যে পরিবারকে খবর দিতে আমাকে ফোন করতো। তার ফোন পেয়েই গত মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার নবীনগর থেকে বাড়ি নিয়ে আসি। এর আগে কোথায় ছিল সঠিক বলতে পারব না।

গোয়ালন্দঘাট থানার ওসি এস.এম শাহজালাল বলেন, যেহেতু তরুণী ঢাকার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে নিখোঁজ হন এবং টাঙ্গাইলের যৌনপল্লি থেকে পালিয়ে বাড়ি আসে। তাই ঢাকা বা টাঙ্গাইলেই মামলাটা হবে। তবে চাইলে তাকে সব ধরনের আইনগত সহযোগিতা দেয়া হবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে বালু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা 

khun

রাজবাড়ী, ১৬ মার্চ : রাজবাড়ীর পাংশায় অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে আমির সিকদার (৪৫) নামে এক বালু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে সাদার চর থেকে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আমির সিকদার পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চর রামনগর গ্রামের বাজু সিকদারের ছেলে।

পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু শ্যামা মো. ইকবাল হায়াত জানান, আমির সিকদারের বিরুদ্ধে স্থানীয়ভাবে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন আপকর্মের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। রাতে তিনি সাদার চর থেকে তার বাড়ি চর রামনগর এলাকায় যাচ্ছিলেন। পথে একদল দুর্বৃত্ত তাকে কুপিয়ে হত্যা করে।

তিনি আরো বলেন, অভ্যন্তরীণ কোন্দোলের জেরে এ হত্যার ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

৭ম শ্রেণির স্কুলছাত্রকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা 

image_288272.6

রাজবাড়ী, ৮ নভেম্বর : রাজবাড়ী সাদ (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার সকাল ৮টার দিকে সদর থানার পিছনের সড়কে এ ঘটনা ঘটে। তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সাদ জেলা সদরের মিজানপুর ইউনিয়নের চরলক্ষ্মীপুর গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য আব্দুস সোবাহানের ছেলে। সে শহরের অংকুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৭ম শ্রেণির ছাত্র।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  আওলাদ হোসেন বলেন, সাদের ওপর হামলাকারীদের চিহ্নিত করে আটকের চেষ্টা চলছে। খবর পেয়ে রাজবাড়ী পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির, অংকুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক ও সহপাঠীরা হাসপাতালে ছুটে আসেন। সদর হাসপাতালের চিকিৎসক শামিম বলেন, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সাদের গলার অনেকটা কেটে গেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহত সাদের বাবা আব্দুস সোবাহান বলেন, সকালে শহরের মণ্ডলবাড়ি মসজিদ সংলগ্ন অংকুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক লিয়াকত আলির বাসায় প্রাইভেট পড়ে নতুন বাজার এলাকার নিজ বাসায় ফিরছিল সাদ। এ সময় সদর থানার পিছনের রাস্তায় তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসীর মৃত্যু 

1446691810

রাজবাড়ী, ৫ নভেম্বর : রাজবাড়ী গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হত্যা ও অস্ত্র মামলার আসামি শাহীন ওরফে পিচ্চি শাহীন (৩০) নামের এক সন্ত্রাসীর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে সদর উপজেলার আলীপুরে এ ঘটনা ঘটে। বন্দুকযুদ্ধে পুলিশের তিন সদস্যও আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। শাহীন সদরের খানখানাপুর এলাকার জয়নাল খানের ছেলে।

জেলা ডিবি পুলিশের এসআই কামাল হোসেন জানান, মধ্যরাতে শাহীনকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে গুলি ছুড়ে। এ সময় শাহীন পালানোর চেষ্টা করলে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। বন্দুকযুদ্ধে তিন পুলিশ সদস্যও আহত হন। বন্দুকযুদ্ধের সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি শ্যুটারগান ও একটি রিভলবার উদ্ধার করা হয়েছে।

পিচ্চি শাহীনের বিরুদ্ধে আটটি হত্যা, চারটি অস্ত্র ও একটি পুলিশের ওপর হামলা মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাজবাড়ীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১ 

বন্দুকযুদ্ধ

রাজবাড়ী, ২৬ অক্টোবর : রাজবাড়ীতে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আরশাদ নামের একজন নিহত হয়েছেন। রবিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার দৌলতদিয়ায় এ বন্দুকযুদ্ধ হয়। আরশাদ গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ইমান খাঁ পাড়ার শাহজুদ্দিন ব্যাপারীর ছেলে।

গোয়ালন ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম শাহজালাল জানান, রাত ১০টার দিকে সন্ত্রাসী আরশাদকে দৌলতদিয়া কবরস্থান এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে রাত দেড়টার দিকে তাকে নিয়ে গোয়ালন্দ পদ্মার মোড় এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে বের হলে আরশাদের বাহিনী পুলিশের ওপর হামলা চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে আরশাদ গুলিবিদ্ধ হন। এছাড়া এসআই মো. রফিক উদ্দিন ও ওসি নিজেও আহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ আরশাদকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আজাহারুল ইসলাম মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি একনলা সচল বন্দুক, দুটি কার্তুজ ও একটি কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশের দাবি, আরশাদের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে পুলিশের ওপর বোমা হামলা, তিনটি ডাকাতি, হত্যা ও বিভিন্ন অপরাধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তিনি পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর