২৩ মে ২০১৭
ভোর ৫:১০, মঙ্গলবার

লক্ষ্মীপুরে চিকিৎসকদের মানববন্ধন

লক্ষ্মীপুরে চিকিৎসকদের মানববন্ধন 

0000

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ২১ মে : ঢাকা সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভাংচুর ও পরিচালক ডা. এমএ কাশেমের ওপর হামলা ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে লক্ষ্মীপুরে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে চিকিৎসকরা। কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে রোববার (২১ মে) দুপুরে বিএমএ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোস্তফা খালেদ আহমদ, বিএমএ জেলা সভাপতি ডা. আশফাকুর রহমান মামুন ও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আনোয়ার হোসেনসহ বিএমও নেতারা।

এসময় বক্তারা হাসপাতালে ভাংচুর ও চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুরে অস্ত্রসহ আটক রাসেল বন্দুকযুদ্ধে নিহত 

189

মো: জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১৯ মে: লক্ষ্মীপুরে বন্দুক, গুলি ও ইয়াবাসহ আটক মো. রাসেল ওরপে কালা রাসেল পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ মে) দিবাগত রাতে দুইটার দিকে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দত্তপাড়া চাটখীল সিমান্তবর্তী এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।
নিহত রাসেল নোয়াখালীর চাটখিলের চয়ানী টকবা গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে। তার মরদেহ লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তার হোসেন জানান, আটক রাসেলের তথ্যের ভিওিতে রাতে অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এসময় তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়, আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে তার সহযোগীদের গুলিতে রাসেলের মৃত্যু হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি এলজি ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। নিহত রাসেলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও ডাকাতিসহ ২০টি মামলা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (১৮ মে) সকালে লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন উত্তর জয়পুর গ্রামের কবিরাজ বাড়ির একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে একটি একনলা বন্দুক, দুই রাউন্ড গুলি ও ১১পিস ইয়াবাসহ মো. রাসেল ওরপে কালা রাসেল ও  মো. বাবলু নামে দুইজনকে আটক করে পুলিশ। আটক বাবলু জয়পুর গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুরে অস্ত্র ও গুলিসহ দুইজন আটক 

25

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১৮ মে : লক্ষ্মীপুরে একটি একনলা বন্দুক, ২ রাউন্ড গুলি ও ১১ পিস ইয়াবা বড়িসহ মো. রাসেল ওরপে কালা রাসেল ও  মো. বাবলু নামে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন উত্তর জয়পুর গ্রামের কবিরাজ বাড়ীর একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃত রাসেলের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ ও নোয়াখালির চাটখিল থানায় হত্যা ও ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

রাসেল নোয়াখালীর চাটখিল থানার চয়ানী টকবা গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে ও বাবলু স্থানীয় উত্তর জয়পুর গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি মোক্তার হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাসেল ও বাবলুকে অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবাসহ আটক করা হয়। আটক রাসেলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও ডাকাতিতে জড়িত থাকার অভিযোগে থানায় ২০টি মামলা রয়েছে। অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায়ও থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জাল টাকাসহ সিন্ডিকেটের এক সদস্য আটক 

9

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১৭ মে : লক্ষ্মীপুরে মোঃ মোস্তফা (৩৫) নামের জাল টাকা সরবরাহকারী সিন্ডিকেটের এক সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তার কাছে হাত ব্যাগে থাকা এক লাখ ৭৫ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (১৭ মে) বিকেল ৩ টার দিকে সদর উপজেলার কালির বাজার এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। মোস্তফা পটুয়াখালী সদর উপজেলার মাদারবুনিয়া গ্রামের শামছুল হকের ছেলে।

থানা পুলিশ জানায়, একটি চক্র জাল নোট সরবরাহ করে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনার সময় কালির বাজার এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় জাল টাকা সরবরাহকারী সিন্ডিকেটের সদস্য মোস্তফাকে আটক করা হয়। তার কাছে এক হাজার টাকার ১৭৫ টি জাল নোট পাওয়া যায়।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লোকমান হোসেন বলেন, জাল টাকা সিন্ডিকেটের অন্য সদস্যদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এনিয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

খালেদা জিয়া নিজেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিশ্বাস করে না : হানিফ 

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১৫ মে : আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া নিজেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিশ্বাস করেন না, খালেদা জিয়া স্বাধীনতাও বিশ্বাস করেন না। যদি উনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিশ্বাস করতেন এবং স্বাধীনতায় তার বিন্দুমাত্র আস্থা থাকতো, তাহলে মুক্তিযুদ্ধে আমাদের শহীদদের সংখ্যা নিয়ে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিতেন না।

সোমবার (১৫ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে লক্ষ্মীপুর জেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বেগম জিয়া বলেছেন, ক্ষমতায় গেলে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দেবেন। সম্মান তিনি কি দিয়েছেন, সেটা জাতি জানে। এ ধরণের ভাওতাবাজি আর মিথ্যাচার বক্তব্য দিয়ে জনগণকে বোকা বানো যাবে না।

জেলা কৃষকলীগের আহবায়ক ওমর হোছাইন ভুলুর সভাপতিত্ব ও যুগ্ন আহবায়ক হিজবুল বাহার রানার পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক  ফরিদুন্নাহার লাইলী, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সভাপতি মোতাহের হোসেন মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শামছুল হক রেজা, লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনের এমপি একেএম শাহজাহন কামাল, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিঙ্কু ও সাধারণ সম্পাদক নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন প্রমুখ।

পরে ওমর হোছাইন ভুলুকে সভাপতি, মোঃ মানিককে সহ-সভাপতি, হিজবুল বাহার রানাকে সাধারণ সম্পাদক ও মাহবুবুর রহমানকে যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আধুনিক যন্ত্রের সুফল পাচ্ছে লক্ষ্মীপুরের কৃষকরা 

0000

মো. জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১৪ মে : প্রথম বারের মতো আধুনিক যন্ত্রের সুফল পাচ্ছে লক্ষ্মীপুরের কৃষকরা। কম খরচ ও শ্রমিক সংকট সমাধানের সুফল হিসেবে আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে ধান কাটা, মাড়াই ও ঝাড়াইয়ের কাজ করা হচ্ছে। এতে করে বাড়তি লাভবান হচ্ছেন চাষীরা। এ যন্ত্রের মাধ্যমে দেড় ঘণ্টায় এক একর জমির ধান কাটা যায়। সনাতন পদ্ধতিতে একর প্রতি খরচ পড়ে ৭ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকা, যেখানে যন্ত্রটিতে খরচ হবে ২ হাজার থেকে ২৫শ’ টাকা। মেশিনটি এক সঙ্গে মাঠে ধান কাটা, মাড়াই করা এবং বস্তাবন্দী করতে সক্ষম। এতে চাষীদের কম খরচ ও বেশী লাভবানের সুযোগ রয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ।

এদিকে জেলায় এবার ইরি-বোরো ধানের ভাল ফলন হয়েছে। তাছাড়া খরচের তুলনায় বাজারে ধানের দাম বেশী পেয়ে কৃষকরা এখন মহাখুশি। ইতিমধ্যে ধান কাটা প্রায় ৫০ ভাগ শেষ হয়েছে। কৃষকের ঘরে ঘরে এখন নতুন ধান। ফলনও হয়েছে বেশ ভাল। ধান কাটা, মাড়াই ও ঝাড়াইয়ের কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। কয়েক দফা কাল বৈশাখী ঝড়ে অনেকের জমির ফসলের মাঠে হাটু পানি থাকার পরেও ফলন ভাল হয়েছে বলে জানান চাষীরা। এবার ধানের প্রতি মন বিক্রি করা হচ্ছে  ৮’শ থেকে ৯’শ টাকা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে জেলার ২৬ হাজার ৬৬০ হেক্টর জমিতে ইরি-বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। তারমধ্যে রামগতি, রামগঞ্জ ও সদর উপজেলায় আবাদ হয়েছে বেশী। এবার ১ লক্ষ মেট্রিক টন চাল উৎপাদনের আশাবাদ ব্যক্ত করেছে কৃষি বিভাগ।

লক্ষ্মীপুরে কৃষি প্রকৌশলী মো: ফজলুল করিম জানান, কোন কৃষক কিংবা কৃষক সংগঠন যন্ত্রটি কিনতে চাইলে অর্ধেক দাম ভর্তুকি দিয়ে তা ক্রয় করার সুযোগ রয়েছে।

স্থানীয় হোসেনপুর বন্টকের উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা খাজা মো. মাইন উদ্দিন বলেন, এক সাথে ধান কাটতে গিয়ে শ্রমিক সঙ্কট দেখা দেয়। এই যন্ত্রটি  শ্রমিক সঙ্কট সমাধানসহ কৃষকের খরচ কমিয়ে লাভবান করবে।

অন্যদিকে আধুনিক যন্ত্রের সুফল পেয়ে কৃষক আবুল খায়ের, জালাল উদ্দিনসহ স্থানীয় কৃষকরা সংগঠনের মাধ্যমে যন্ত্রটি ক্রয় করার কথা জানান।

লক্ষ্মীপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো: গোলাম মোস্তফা জানান, সুষম সার, বালাই ব্যবস্থাপনা ও নিয়মিত বৃষ্টি হওয়ায় ধানের ফলন ভালো হয়েছে। বাজার মূল্যও ভালো আছে জানিয়ে এবার বোরো ধান থেকে ১ লক্ষ মেট্রিক টন চাল উৎপাদনের আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

কমলনগর থানার গেট নির্মাণ কাজের উদ্বোধন 

036

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১১ মে : লক্ষ্মীপুরের কমলনগর থানার গেটের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে দোয়া ও মোনাজাতের মধ্যদিয়ে নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন হাজী আইয়ুব ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক হাজী সিরাজুল ইসলাম আইয়ুব।

এসময় উপস্থিত ছিলেন হাজিরহাট উপকূল ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মোতালেব, কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকুল চন্দ্র বিশ্বাস ও হাজিরহাট ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, হাজী আইয়ুব ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক হাজী সিরাজুল ইসলাম আইয়ুবের ব্যক্তিগত অনুদানে কমলনগর থানার প্রবেশ গেট নির্মাণ হচ্ছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সভাপতি হারুন, সম্পাদক মোস্তাফিজ 

477

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১১ মে : লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে হারুনুর রশিদ সভাপতি ও মোস্তাফিজুর রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

গতকাল বুধবার রাতে হাজিরহাট তোয়াহা’র স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা কৃষকলীগ এ আয়োজন করে। সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি ও কমলনগর) আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল মামুন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ সমীর চন্দ্র, কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ নেতা অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল হক। লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মতলব, কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম নুরুল আমিন মাস্টার, জেলা কৃষকলীগের আহবায়ক ওমর হোসাইন ভুলু, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক হিজবুল বাহার রানা।

কমলনগর উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি হারুনুর রশিদের সভাপতিত্বে ও যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হিরনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, কমলনগর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শফিক উদ্দিন, ফলকন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হারুনুর রশিদ, জেলা যুব লীগের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট রহমত উল্লাহ বিপ্লব ও কমলনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ফজলুল হক সবুজ। এসময় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকলীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

কোটি মানুষের যোগাযোগের সেতুবন্ধন হবে লক্ষ্মীপুরের মজু চৌধুরী হাটে আধুনিক নৌ-বন্দর, দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি 

65

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ৮ মে : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মজু চৌধুরী হাটে হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ও আধুনিক নৌ-বন্দর। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লক্ষ্মীপুর সফরে এসে এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে গেছেন। এনিয়ে আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে সকলের মনে। পরিকল্পিত এ বন্দর নির্মিত হলে কোটি মানুষের যোগাযোগের সেতুবন্ধন হবে এ বন্দরটি।

এদিকে এ নৌ-বন্দরের দ্রুত বাস্তবায়নের দাবী জানিয়েছেন লক্ষ্মীপুরবাসী। নৌ-বন্দরের ফলে লক্ষ্মীপুরের সাথে বরিশাল, চট্টগ্রাম, সিলেট ও খুলনা বিভাগের মানুষের যোগাযোগের সেতুবন্ধন সৃষ্টি হবে। প্রসার ঘটবে কোটি মানুষের অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক বিনিময়ের। মানুষের কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বেকার সমস্যা লাঘব হবে।

মজু চৌধুরীর হাট ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের মতে, সরকার নৌ-বন্দর নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণ করবে। তারাও রাজি বন্দর নির্মাণে সহযোগিতা করার জন্য। এ জন্য তাদের বসবাসের জমি ও স্থাপনার বর্তমান বাজারমূল্য পেতে চান। পাশাপাশি দরিদ্র পরিবারগুলোকে সরকারিভাবে পুনর্বাসনের দাবিও জানিয়েছেন তারা।
জানা যায়, লক্ষ্মীপুর শহর থেকে ১১ কিলোমিটার দূরে মজু চৌধুরীর হাটের অবস্থান। নৌ-পথে দেশের দক্ষিণ-পূর্বা লের ২১টি জেলার যোগাযোগের অন্যতম কেন্দ্র এটি। মেঘনাপাড়ের এ জনপদের অধিকাংশ মানুষই কৃষিনির্ভর। ব্যবসা-বাণিজ্যে তারা দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন। এখানে বন্দর নির্মিত হলে অবকাঠামোর পাশাপাশি আর্থসামাজিক উন্নয়ন ঘটবে।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ও আধুনিক নৌ-বন্দর নির্মাণে হবে মজু চৌধুরীর হাটে। তবে কত টাকা ব্যয়ে, কী পরিমাণ জায়গায় এবং কবে নাগাদ নির্মাণ কাজ শুরু হবে তা নিশ্চিতভাবে এখনও বলা যাচ্ছে না।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল বলেন, মজু চৌধুরীর হাটে নৌ-বন্দর নির্মাণ দীর্ঘদিনের দাবি। ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনের মধ্যদিয়ে আমরা আশার আলো দেখছি। এখানে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ও আধুনিক নৌ-বন্দর নির্মাণের খবরে মানুষ খুশি।

জেলা বণিক সমিতির ক্রীড়া-সাংস্কৃতিক ও বিশেষ সম্পাদক সৈয়দ এহতেশাম হায়দার বাপ্পি বলেন, বণিক সমিতি দীর্ঘদিন ধরে নৌ-বন্দর নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছিল। এখন আমরা আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন বন্দর নির্মাণের বাস্তবায়ন চাই। ব্যবসায়ীদের দাবির মুখেই একসময় মজু চৌধুরীর হাটে ফেরিঘাট স্থাপন করা হয়।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিয়া গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, লক্ষ্মীপুরে নৌ-বন্দর নির্মিত হলে এ অ লের মানুষের জীবনমানের ব্যাপক পরিবর্তন এবং বিপুলসংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। দ্রুত এ বন্দর নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে জেলাবাসী দাবি জানাচ্ছে। ইতোমধ্যে তিনি এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এতে জেলার মানুষ আনন্দিত।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মোহাম্মদ নোমান বলেন, এ বিষয়ে নৌ-মন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সরকার আধুনিক নৌ-বন্দর নির্মাণ প্রকল্পের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রক্রিয়া শেষে শিগগিরই কাজটি শুরু করা হবে আশা করছি।

এ বিষয়ে নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান একটি গণমাধ্যমকে বলেছেন, মজু চৌধুরীর হাটে দেশের আধুনিক নৌ-বন্দর নির্মাণ হবে। ইতোমধ্যে সেখানে অবকাঠামো তৈরি, রাস্তা ও টার্মিনালকে সুন্দরভাবে নির্মাণের করার প্রক্রিয়া চলছে। প্রয়োজনীয় টাকা বরাদ্দ পেলে শিগগিরই কাজ শুরু করা হবে।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১৪ মার্চ লক্ষ্মীপুরে এসে মজু চৌধুরীর হাট নৌ-বন্দরসহ ১৭টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন। এ সময় তিনি আরও ১০টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুরে ছেলের পিটুনিতে বাবা নিহত 

nihoto3

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ৭ মে : লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানার দক্ষিন মান্দারী গ্রামে পারিবারিক জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ছেলের পিটুনিতে বাবা শামছুদ্দিন ড্রাইভার নিহত হয়েছেন। রোববার সকাল টার দিকে তিনি নিহত হন। দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে পুলিশ। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ছেলে বেল্লাল হোসেন ও তার ছেলে পিন্টু উরপে পিনা পলাতক রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা  জানান, শুক্রবার রাতে শামছুদ্দিন ও তার ছেলেদের সঙ্গে পারিবারিক জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বৈঠক চলছিল। এসময় শামছুদ্দিনের বড় ছেলে বেলাল ও বেলালের ছেলে পিনা উত্তেজিত হয়ে শামছুদ্দিনের চোখে আঘাতসহ বেদম মারধর করে। পরে তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার উদ্দেশ্যে শামছুদ্দিনের মেয়ে রওশনারা বেগমের লক্ষ্মীপুর পুলিশ লাইন্সের পাশের একটি বাড়ীতে নিয়ে আসা হয়। রোববার সকালে তিনি মারা যান। পরে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম আজিজুর রহমান মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ছেলের পিটুনিতে নিহত হওয়া বাবা শামছুদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। থানায় মামলার প্রস্তুতিসহ অভিযুক্ত বেলাল ও তার ছেলেকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

স্বৈরাচারী সরকারকে অপসারণ করা হবে : আবদুল মঈন খান 

0000

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ৬ মে : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, আওয়ামী লীগের জন্মতো ক্যান্টনমেন্টে হয়নি; আওয়ামী লীগ কেন গণতন্ত্র পরিবেশে জন্মগ্রহণ করে গণতন্ত্রকে হত্যা করে বাংলাদেশে একদলীয় বাকশাল শাসন কায়েম করেছে। দেশনেত্রী বেগম জিয়ার নির্দেশে আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে এ স্বৈরাচারী সরকারকে অপসারণ করে এদেশে একটি বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরায় প্রতিষ্ঠা করবো।

শনিবার (৬ মে) দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আয়োজিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ফ্রি এন্ড ফেয়ার নির্বাচন যদি না হয় তাহলে এ নির্বাচন অর্থহীন। শান্তিপুর্ণ সহ-অবস্থান সৃষ্টি না হলে বিএনপির কি ক্ষতি হবে, আওয়ামী লীগের কি ক্ষতি হবে তা জানি না, তবে বাংলাদেশের ক্ষতি হবে। আমরা যদি গণতন্ত্র চর্চায় একমত হই, গণতান্ত্রিক ধারায় বিশ্বাস স্থাপন করি তাহলে শুধু বিএনপির জন্য মঙ্গলজনক হবে না  আওয়ামী লীগের জন্যও মঙ্গলজনক হবে।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল খায়ের ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় বক্তব্য রাখেন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ শামছুল আলম, কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের সাবেক সাংসদ নাজিম উদ্দিন, লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি ও কমলনগর) আসনের সাবেক সাংসদ আশরাফ উদ্দিন নিজান, সাবেক মহিলা এমপি সাইমুন বেগম, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সম্পাদক ফেরদৌস আহমেদ খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি হারুনুর রশিদ ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারি বাবু।

লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন সাবুর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি নিজাম উদ্দিন ভূঁইয়া, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হারুনুর রশিদ বেপারী, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাছিবুর রহমান হাছিব, রায়পুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম হাওলাদার, পৌর বিএনপির সভাপতি এবিএম জিলানী, কমলনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি জামাল উদ্দিন তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা চৌধুরী, জেলা যুবদলের সভাপতি রেজাউল করিম লিটন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হারুনুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম মামুন ও লক্ষ্মীপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি আবদুল্লাহ আল মামুনসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতারা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রামগতিতে জব্দকৃত ১০ লাখ চিংড়ি পোনা ছিনতাই, আহত-৪ 

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ৩ মে : লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে কোস্টগার্ড ও মৎস্য কর্মকর্তা ওপর হামলা চালিয়ে জব্দকৃত প্রায় ১০ লাখ চিংড়ি পোনা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় আত্মরাক্ষার্থে কোস্টগার্ড ১৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে। ঘটনাস্থলে দুর্বৃত্তদের ছোড়া ইটের আঘাতে উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা, দুইজন কোস্টগার্ড সদস্য ও কোস্টগার্ডের ব্যবহৃত নৌকার মাঝি আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২ মে) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে রামগতি উপজেলা বিবিরহাট গাবতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা কামাল হোসেন, কোস্টগার্ড সদস্য মো.আহসান, আহসান ও নৌকার মাঝি নুর আলম। তাদেরকে  প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

রামগতি উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন বলেন, মেঘনা নদী থেকে ধরা ৭০ পাতিলে প্রায় ১০ লাখ চিংড়ি পোনা ট্রাক যোগে অন্যত্র নেয়া হচ্ছিল। এমন খবরে কোস্টগার্ড অভিযান চালিয়ে ট্রাকসহ চিংড়ি পোনা জব্দ করে। জব্দকৃত চিংড়ি পোনা নদীতে অবমুক্ত করার সময় দুবৃত্তরা ইট নিক্ষেপ করে ও লাঠিসোঠা নিয়ে হামলা চালিয়ে চিংড়ি পোনাগুলো ছিনিয়ে নেয়। এসময় ছোঁড়া ইটে দুই কোস্টগার্ড সদস্য ও নৌকার মাঝিসহ আমরা চারজন আহত হই। এসময় আত্মরক্ষায় কোস্টগার্ড গুলি চালায়।

রামগতি কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট কমান্ডার তসলিম উদ্দিন জানান, জব্দকৃত মাছ নদীতে অবমুক্ত করার সময় আমাদের ওপর হামালা চালানো হয়। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ১৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করা হয়।

বিশ্বস্ত একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, রামগতি মেঘনা নদী থেকে সরকার দলীয় একটি সিন্ডিকেট অবৈধভাবে চিংড়ি পোনা ধরে আসছে। ধরা চিংড়ি পোনাগুলো রাতের আধাঁরে খুলনা নেওয়ার পথে কোস্টগার্ড অভিযান চালিয়ে জব্দ করে। এসময় ওই সিন্ডিকেটের লোকজন কোস্টগার্ডে ওপর হামলা চালিয়ে চিংড়ি পোনা ছিনিয়ে নেয়।

প্রসঙ্গত, প্রতি বছর বৈশাখ-জৈষ্ঠ্য দুই মাস লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীর রামগতি ও কমলনগরে সরকার দলীয় লোকজনসহ একটি চক্র নেট জাল দিয়ে চিংড়ি পোন শিকার করে। এতে চিংড়ি পোনার সাথে বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা ধ্বংস হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুরে গণমাধ্যম দিবসে র‌্যালি ও আলোচনা সভা 

0000

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ৩ মে : ‘ক্রান্তিকালে সমালোচকের দৃষ্টি : শান্তিপূর্ণ, ন্যায়নিষ্ঠ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা’ এ স্লোগান নিয়ে লক্ষ্মীপুরে আন্তর্জাতিক মুক্ত গণমাধ্যম দিবস-২০১৭ পালিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে বুধবার (৩ মে) সকালে সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলের আয়োজনে ও ইয়ুথ জানালিস্ট ফোরামের সহযোগীতায় একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি সদর উপজেলার পরিষদ প্রাঙ্গন থেকে শুরু হয়ে শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। পরে রোজ গার্ডেন চাইনিজ রেস্টুরেন্ট হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রবীণ সাংবাদিক আবদুল মালেকের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা তথ্য কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা পরিবার পরিকল্পনা উপ-পরিচালক ও জেলা বিএমএ সভাপতি ডা. আশফাকুর রহমান মামুন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উল্যা, জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা পশ্চিম যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মাহাবুবুল হক মাহবুব, প্রবীণ সাংবাদিক গাজী গিয়াস উদ্দিন, লক্ষ্মীপুর ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল এ্যান্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান সবুজ। এসময় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বক্তারা তথ্য প্রযুক্তি আইনে ৫৭ ধারা প্রত্যাহার ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে অপরাধীদের বিরুদ্ধে লিখনির মাধ্যমে সমাজকে জাগ্রত করার আহবান জানান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

৪র্থ শ্রেণির ছাত্রকে পিটানোর অভিযোগ 

0000

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ২ মে : সরকার ছাত্র-ছাত্রীদের বেত দিয়ে পিটানো নিষেধ করার পরেও নতুন পদ্ধতিতে ছাত্রদের উপর হামলা করে যাচ্ছে শিক্ষকরা। লক্ষ্মীপুর পিটিআই সংলগ্ন পরীক্ষণ বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র মজুমদার অর্ঘ্য গোবিন্দ হিমেলকে (৯) পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন সহকারি শিক্ষক মো: সোলায়মান। এবিষয়ে ওই ছাত্রের বাবা সুশীল চন্দ্র মজুমদার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও পিটিআই সুপারিনটেনডেন্ট বরাবর লিখিত অভিযোগ করার ১৫ দিন পার হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

অভিযোগ ও অভিবাবক সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ এপ্রিল প্রতিদিনের ন্যায় বিদ্যালয়ে যায় ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র মজুমদার অর্ঘ্য গোবিন্দ হিমেল। বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় বিষয়ের সময় অর্ঘ্য পিছনের টেবিলে বসার কারণে পাঠদান বুঝতে ব্যর্থ হয়। এসময় শ্রেণিকক্ষে একটু অমনোযোগী হওয়ায় তাকে (অর্ঘ্য) বেদড়ক মারধর করেন শিক্ষক সোলায়মান। বিদ্যালয় ছুটির পরে বাসায় গিয়ে শুয়ে পড়লে দেখা যায় রাতে ১’শ ২ ডিগ্রি জ্বর আসে তার শরীরে। পরে শরীরেরর তাপমাত্র আরো বৃদ্ধি পাওয়া রাত ৩টার দিকে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিলে জ্বর ১’শ ৪ ডিগ্রি থাকায় ভর্তি করা হয় শিশু ছাত্র অর্ঘ্যকে। হাসপাতালে ৩ দিন চিকিৎসা শেষে তাকে বাসায় নিয়ে আসা হয়। কিন্তু বর্তমানে অর্ঘ্য পড়ায় অমনোযোগি হয়ে খুব আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তার অভিবাবক।

জানা যায়, সহকারি শিক্ষক মো: সোলায়মান লক্ষ্মীপুর টাউন প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ডেপুটেশন নিয়ে পিটিআই সংলগ্ন পরীক্ষণ বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। অথচ ডেপুটেশন নেওয়ার কোন প্রয়োজন ছিল না তার। বর্তমান বিদ্যালয়ের ছেড়ে সাবেক বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার জন্য যাতায়াত সহজ হতো ওই শিক্ষকের। কিন্তু ২০১৩ সালে পরীক্ষণ বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে বেড়ে যায় শিক্ষার্থীদের উপর তার অমানুষিক নির্যাতন। এর আগে একই শ্রেণির সিয়াম, ইমনসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ রয়েছে পাষন্ড শিক্ষক সোলায়মানের বিরুদ্ধে। এছাড়াও তিনি অত্র বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাসে নাম মাত্র গিয়ে পড়া দিয়ে মোবাইলে ব্যাস্ত থাকেন। পরে কিছু না বুঝলে বাসায় কোচিং করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। বর্তমানে তার নিজ বাসায় প্রায় ৩/৪ টি ব্যাচে কোচিং করিয়ে নগদ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

অর্ঘ্য’র বাবা সুশীল মজুমদার বলেন, আমার ছেলেকে সুন্দরভাবে লেখাপড়া করার জন্য বিদ্যালয়ে দিয়েছে। প্রায়ই শুনতাম শিক্ষক সোলায়মান বিভিন্ন শিক্ষার্থীদের মারধর করেন। সোমবার (১৭ এপ্রিল) আমার ছেলেকে যেভাবে মারধর করেছে একজন শিক্ষক হয়ে কিভাবে তিনি এ কাজ করতে পারলো। তাছাড়া তাকে মারধর করার ফলে আমার ছেলের গায়ে ১’শ ৪ ডিগ্রি জ্বর চলে আসে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

অভিযুক্ত সহকারি শিক্ষক মো: সোলায়মান নিজেই বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। আমি পিটিআই সুপারের কাছে লিখিত জবাব দিয়েছি। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বিষয়টি দেখবেন।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল আজিজ অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি পিটিআই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এখনো পর্যন্ত তদন্ত প্রতিবেদন না আসায় ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয় নাই।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগের ৪ নেতাকে বহিষ্কার 

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ১ মে : সংগঠনের শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে লক্ষ্মীপুরে ৪ ছাত্রলীগ নেতাকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হয়েছে।

সোমবার (০১ মে) দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল ও সাধারণ সম্পাদক রাকিব হোসেন লোটাস স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞাপ্তি থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন- লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের উপ দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক সেবাব নেওয়াজ, সহ সম্পাদক পলক আহম্মদ, সদস্য পিয়াস পাঠান ও পৌর ছাত্রলীগ সদস্য মিনহাজ আলম সজিব।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি উল্লেখ করা হয় রোববার (৩০ এপ্রিল) রাতে লক্ষ্মীপুর শহরের ছাত্রলীগ কর্মী সিপাত ও অন্তরের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করার অভিযোগে ছাত্রলীগের চার নেতাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হল।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর