২০ আগস্ট ২০১৭
সন্ধ্যা ৭:৩২, রবিবার

মুজিবনগরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

মুজিবনগরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১ 

558

মেহেরপুর, ১২ জুন : মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত হয়েছে। পুলিশের ভাষ্য অনুযায়ী ‘সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে’ তিনি নিহত হয়েছে। তিনি নিজেও সন্ত্রাসী হতে পারেন বলে বলে পুলিশের ধারণা।

রবিবার রাতে উপজেলায় মোনাখালী গ্রামে এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ঘটে।

পুলিশের ভাষ্য, রবিবার রাত ২টার দিকে মোনাখালী গ্রামের কোমরগর্ত মাঠের একটি বটগাছের কাছে গোলাগুলির শব্দ পাওয়া যায়। ওসি মনিরুল ইসলামসহ পুলিশের তিনটি দল ঘটনাস্থলের কাছাকাছি গেলে টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে একজনের গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।

মেহেরপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আহসান হাবীব বলেন, “নিহত ব্যক্তি সন্ত্রাসী হতে পারেন। তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা চলছে।”

পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি শাটারগান, কার্তুজের দুটি খোসা, চারটি তাজা কার্তুজ, তিনটি বোমা ও কিছু দেশীয় অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গাংনীতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১ 

54

মেহেরপুর, ১৮ মে : মেহেরপুরের গাংনীতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে ‘এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তির নাম লালন (৩০)। তার বাবার নাম জহিরুল ইসলাম। বাড়ি গাংনী উপজেলার জোড়াঘাট গ্রামে।

আজ বৃহস্পতিবার ভোররাতে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের চোখতোলার মাঠে বন্দুকযুদ্ধ হয়।

পুলিশের দাবি নিহত ব্যক্তি ডাকাত দলের সদস্য। এসময় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বোমা, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে বলেও দাবি করেছে।

গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের গাংনী উপজেলাধীন চোখতালা মাঠে একদল ডাকাত সড়কের ওপর গাছ ফেলে ডাকাতির প্রস্ততি নিচ্ছে এমন খবর পান তারা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। পুলিশও পাল্টা গুলি করে।

এক সময় ডাকাতরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থলে অজ্ঞাত এক ডাকাতকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। আহত অবস্থায় তাকে গাংনী হাসপাতালে নেওয়া হলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বন্দুকযুদ্ধে গাংনী থানা পুলিশের এসআই বকতিয়ার হোসেন ও কনস্টেবল আব্দুল হক আহত হন। আহতরা গাংনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুটি বোমা, একটি এলজি শার্টারগান, এক রাউন্ড বন্দুকের গুলি, দুটি দেশীয় অস্ত্র ও ২১ হাত দড়ি উদ্ধার করার কথা জানিয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরের গাংনীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অজ্ঞাত দুজন নিহত 

ঢাকা, ১৪ এপ্রিল : মেহেরপুরের গাংনীতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অজ্ঞাত দুজন নিহত হয়েছে। তবে পুলিশ বলছে তারা ডাকাত দলের সদস্য। আজ শুক্রবার মধ্যরাতের কোনো এক সময়ে গাংনী-বারাদী সড়কের হাড়িয়াদহ মাঠের মধ্যে কথিত এই বন্দুকযুদ্ধ হয়।

পুলিশের ভাষ্য, বন্দক যুদ্ধের স্থান থেকে হাতবোমা, বন্দুক, গুলি ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে।
গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, রাতে গাংনী উপজেলার রাইপুর ইউনিয়নের হাড়িয়াদহ গ্রামের মাঠের মধ্যে থানা-পুলিশের একটি দল টহল দিচ্ছিল।

এ সময় হাড়িয়াদহ সড়কের পাশে অবস্থিত এসএবি ইটভাটার কাছে সন্দেহভাজন কয়েকজন উপস্থিতির খবর পায়। পুলিশের দলটি সেখানে পৌঁছালে ওত পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি বর্ষণ শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলির জবাব দেয়। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলে সেখান থেকে দুজনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

তবে পুলিশ তাদের পরিচয় নিশ্চিত হতে পারেনি। তাদের বয়স ২৪ ও ২৫ বছর হবে।
পুলিশের ভাষ্য, ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি শাটারগান, দুটি কার্তুজ, ২টি বোমা ও ২টি রামদা উদ্ধার হয়েছে । বন্দুকযুদ্ধে পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন তাদের গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে জামায়াতের ২৪ নেতাকর্মী আটক 

মেহেরপুর, ৫ এপ্রিল : মেহেরপুর সদর উপজেলার টেংরামারী গ্রাম থেকে জামায়াত ইসলামীর ২৪ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে ঐ গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। গোপন বৈঠককালে তাদের আটক করা হয়েছে বলে দাবি পুলিশের।

মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, সদর উপজেলার টেংরামারি গ্রামে জামায়াতের গোপন বৈঠক চলছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানা পুলিশের একটি দল ঐ গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে জামায়াতের ২৪ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়।

পরে সেখান থেকে বেশ কিছু ইসলামী বই উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি। আটককৃতদের নামে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আজ বুধবার তাদের আদালতে হাজির করা হবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

এবার মেহেরপুরে চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যান বরখাস্ত 

39825

মেহেরপুর, ৪ এপ্রিল : মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম ও ভাইস চেয়ারম্যান জার্জিস হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

হরতাল-অবরোধে পুলিশের ওপর হামলা, জনদুর্ভোগ সৃষ্টি ও রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিনষ্টের মামলায় আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) গৃহিত হওয়ায় তাদের বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার হেমায়েত উদ্দীন।

আমিরুল ইসলাম মুজিবনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি। আর জার্জিস হোসেন উপজেলা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারি।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-সচিব জুলিয়া মঈন স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়, মামলার অভিযোগপত্র আদালতে গৃহিত হওয়ার পর জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাদের ক্ষমতা প্রয়োগ জনস্বার্থের পরিপন্থী।

২০১৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর সরকারবিরোধী হরতাল-অবরোধ চলাকালে মুজিবনগর উপজেলার গৌরিনগর এলাকায় পুলিশের ওপর হামলার হামলার ঘটনা ঘটে।

এতে মুজিবনগর থানার তৎকালীন ওসি রবিউল হোসেনসহ ৫ পুলিশ সদস্য আহত হন। আর পুলিশের গুলিতে দুই শিবিরকর্মী নিহত হয়।

পরে ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে আমিরুল ইসলাম ও জার্জিস হোসেনসহ দুই শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

এরপর বাগোয়ান ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফিতাজ মল্লিক এই দুই জনপ্রতিনিধিকে বহিষ্কারের জন্য জেলা প্রশাসকের দফতরে আবেদন করেন।

গত ৩০ ডিসেম্বর ১৬১ জনকে আসামি করে পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৪ 

77

মেহেরপুর, ১৪ মার্চ : মেহেরপুরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ৪ জন নিহত হয়েছে। সোমবার রাত আড়াইটার দিকে সদর উপজেলার নুরপুর মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হল একই উপজেলার সোনাপুর গ্রামের সাদ্দাম হোসেন (২৫), রমেশ (২৪), সোহাগ (২৭) ও কানন (২৫)। এ ঘটনায় আহত হয়েছে সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবীবসহ ৬ পুলিশ সদস্য। নিহতরা সোনপুর গ্রামে জোড়া খুন হত্যা মামলার আসামি বলে ধারনা করছে পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, সোমবার রাত আড়াইটার দিকে কিছু সন্ত্রাসীকে ধাওয়া করে পুলিশের একটি দল। নুরপুর মোড়ে পৌঁছালে পুলিশকে লক্ষ করে গুলি ছোড়ে সন্ত্রাসীরা। এ সময় উভয়ের মধ্যে গুলি বিনিময় হয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় ৪ সন্ত্রাসী।

এ ঘটনায় সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবীব সহ ৬ পুলিশ সদস্য আহত হয়। আহতদের মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। নিহতরা সোনাপুর গ্রামের মজিদ ও আসাদুল হত্যার সঙ্গে জড়িত বলে ধারনা করছে পুলিশ। লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আবু এহসান রাজু জানান, রাত পৌনে ৪ টার দিকে গুলিবিদ্ধ ৪ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে পুলিশ। হাসপাতালে আসার আগেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। লাশের ময়না তদন্ত শেষে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পিএসসি পাশ করেছেন ৬৪ বছরের বাছিরণ 

মেহেরপুর, ২৯ ডিসেম্বর : মেহেরপুরের বাসিরণ নেছা (৬৪) কৃতিত্বের সাথে পিএসসি পাস করেছেন। তিনি ৩.০০ পয়েন্ট নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বাসিরনের স্কুল ও  বাড়িতে গিয়ে মিষ্টি খাইয়েছেন মহিলা এমপি। এসময় এমপি বাছিরণের প্রাথমিক বিদ্যালয়টি পাকাকরণে এবং তার লেখাপড়ার ভারও নিয়েছেন।

মেহেরপুর জেলা শহর থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দুরে গাংনী উপজেলার হোগলবাড়িয়া গ্রামের মাঠপাড়ায় বাছিরণের বাড়ি। তিনি গ্রামের রহিল উদ্দিনের (মৃত) স্ত্রী। ৩৫ বছর আগে স্বামী মারা যায়। বাসিরণের রয়েছে এক ছেলে ও দুই মেয়ে। ছেলে মহির উদ্দিনের সাথে থাকেন তিনি। বাসিরনের নাতি-নাতনিরা কলেজে ও বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করে। লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ থেকে বাসিরণ ২০১১ সালে বাড়ি থেকে এক কিলোমিটার দূরে হোগলবাড়িয়া পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি হয় প্রথম শ্রেণিতে। ২০১৬ প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন।

বাসিরণ জানায়, অর্থসংকটের কারণে শৈশবে তার পড়াশোনা হয়নি। চেষ্টা করেছিলেন ছেলে-মেয়েকে উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত করতে। এর মধ্যেই মারা যায় তার স্বামী। ফলে সন্তানদের লেখাপড়া করাতে পারেননি। পরে যখন নাতি নাতনিরা লেখাপড়া শুরু  করলো তখন তিনি সিদ্ধান্ত নেন নিজে লেখাপড়া করার।

আজ বৃহস্পতিবার বাসিরণ তার বয়োবৃদ্ধ ভাই আকবর আলী ও ছেলে মহিরুদ্দিনকে সাথে করে বিদ্যালয়ে এসেছিলেন পরীক্ষার ফলাফল জানতে। সেখানে বাসিরণ জানায়, খুব ভয়ে ছিলাম ফলাফল কী জানি কী হয় বলে। বাছিরণ জানায়, এবার তিনি গ্রামের এমএইচএ মহাম্মদপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে ভর্তি হবেন।

দুপুর দুইটার দিকে মেহেরপুরের সংরক্ষিত আসনের মহিলা এমপি সেলিনা আখতার বানু ফলাফল ঘোষণার সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ে। এসময় তিনি বাছিরণের কারণে বিদ্যালয়টি পাকা করণের ঘোষণা দেন এবং বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে কথা বলেছেন বলেও জানান। তিনি আশা করছেন আগামী ছয়মাসের মধ্যে বিদ্যালয় পাকাকরণের কাজ শুরু হবে বলে। পরে তিনি বাছিরণের বাড়িতেও যান।

প্রধান শিক্ষক হেলাল উদ্দিন বলেন, বাসিরন নেছা ২০১০ সালে স্কুলে ভর্তি হওয়ার জন্য কয়েকবার এসেছিলেন। বয়স্ক মানুষ ভেবে সে বছর তাকে ভর্তি করানো হয়নি। পরবর্তীতে যখন সে আবার আসে ২০১১ সালে তাকে ভর্তি করি। ভর্তি করার পর থেকে তার আগ্রহ দেখে অবাক হয়েছি। প্রতিদিন সে ক্লাস করেছে। ক্লাসের সহপাঠীদের সাথে তার শিশুদের মতোই আচরণ শিক্ষকদের মুগ্ধ করতো।

দাদীর বয়সী বাসিরণের নিয়মিত স্কুলে আসা দেখে তার সহপাঠীরাও অনুপ্রাণিত হয়। সহপাঠী মৌ জানায়, বাসিরণ তার দাদীর বয়সী হলেও তাকে বান্ধবীর মত করে দেখতে হয়। লেখাপড়া নিয়ে কোনো সমস্যা মনে হলে একে অপরকে সহযোগীতা করেন। সে আরও বলে, বাসিরণকে স্যাররা পড়া ধরতে দেরি করলে মন খারাপ করে স্যারদের বলতেন আমার পড়া ধরেন।

ছেলের বউ জাহানারা বেগম বলেন, আমার আর দুটি সন্তানের সাথে শাশুড়িও লেখাপড়া করে। লেখাপড়ার সাথে সাংসারিক কাজেও সহযোগিতা করনি। বৌমাকে নিয়েও খুশি বাসিরণ। ছেলে বউকে দেখিয়ে তিনি বলেন, আমার মেয়ে দুটি পরের বাড়িতে গেছে। পরের মেয়ে আমার বাড়িতে এসেছে। তাকে দেখে রাখার দায়িত্ব আমারই।

বাসিরনের মেয়ের ছেলে জসিম উদ্দিন বলেন, নানীর লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ আমাদের অনুপ্রাণিত করে লেখাপড়ায়।

মটমুড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সোহেল আহমেদ বলেন, আমার ইউনিয়ন এলাকায় এ ধরনের বয়সের কেউ লেখাপড়া করতে চাইলে তাকে পরিষদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে। বাসিরণ দেশের শিক্ষাক্ষেত্রে মডেল।

গাংনী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আকবর আলী জানান, শিক্ষার কোনো বয়স নাই। এ বয়সের একজন পিএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে। যা নিরক্ষরমুক্ত দেশ গড়তে সবাইকে অনুপ্রাণিত করবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গাংনীতে যুবকের মরদেহ উদ্ধার 

মেহেরপুর, ১৫ ডিসেম্বর : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধর্মচাকী গ্রাম থেকে হাবিবুর রহমান (৩২) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

মৃত হাবিবুর রহমান গাংনী থানাপাড়া এলাকার শাহার আলী ছেলে।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, উপজেলার ধর্মচাকী গ্রামের ভজাপাড়া এলাকায় রাস্তার উপর হাবিবুরের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে দুর্নীতি প্রতিরোধে মানববন্ধন 

ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর : ‘আসুন দুর্নীতির বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ হয় হই’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মেহেরপুরে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা করেছে মেহেরপুর জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি।

আজ শুক্রবার সকালে মেহেরপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে দুর্নীতি প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে এ কর্মসূচি পালন করে তারা।

এর আগে মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রশিদুল মান্নাফ কবীর। এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মেহেরপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় অ্যান্ড বিএম কলেজের অধ্যক্ষ আক্তারুজ্জামান, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোসাররফ হোসেন, সদস্য নুরুল আহামেদ, রেহেনা ইয়াসমিন প্রমুখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহতদের পরিচয় মিলেছে 

356444

মেহেরপুর, ৬ ডিসেম্বর : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার পুরাতন মটমুরা গ্রামের সতীর ইটভাটার পাশে পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজনের পরিচয় মিলেছে।

নিহতরা হলেন- গাংনী উপজেলার মানিকদিয়া গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে তাজমুল হোসেন (২৫), চাঁদ আলীর ছেলে মহিবুল ইসলাম (২২) ও ভোলাডাঙ্গা গ্রামের ফকির মোহাম্মদের ছেলে তুহিন হোসেন (২৮)।

গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ দাবি করেছে নিহতরা সন্ত্রাসী দল জনযুদ্ধের সদস্য ছিল। নিহতদের পকেটে একটি জনযুদ্ধের চিরকুট পাওয়া গেছে।

ওসি জানান, এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে, পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে পৃথক তিনটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩ 

02

মেহেরপুর, ৬ ডিসেম্বর : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন ডাকাত নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবি,এ ঘটনায় তাদের ৬ সদস্য আহত হয়েছেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি এলজি শাটারগান, দুই রাউন্ড  গুলি, দুইটি রামদা ও দুইটি হাতবোমা উদ্ধার  করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার পুরাতন মটমুড়া গ্রামে খবির উদ্দিনের ইটভাটার পাশে এ ঘটনা ঘটে।

গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, ১০/১২ জনের একটি ডাকাতদল মটমুড়া গ্রামে খবির উদ্দিনের ইটভাটার কাছে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।

এসময় ডাকাতদল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে শুরু হয় উভয় পক্ষের বন্দুকযুদ্ধ।

বন্দুকযুদ্ধে ঘটনাস্থলেই তিন ডাকাত নিহত হয়। এসময় অন্যান্য ডাকাতরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ছয় পুলিশ সদস্য।

পরে পুলিশ  ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি এলজি শাটার গান, দুই রাউন্ড গুলি, দুইটি রামদা ও দুইটি হাতবোমা উদ্ধার করে।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মেহেরপুর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। আহত পুলিশ সদস্যরা গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন বলে জানান ওসি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গাংনীতে বিএনপি নেতার ভাইকে কুপিয়ে ও রগ কেটে হত্যা 

78

মেহেরপুর, ৩ অক্টোবর : পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আবুল খায়ের (৩৫) নামের এক বিএনপি নেতার ছোট ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পায়ের রগ কেটে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা।

আজ সোমবার ভোর ৪ টার দিকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আবুল খায়েরের মৃত্যু হয়।

আবুল খায়ের থানাপাড়া এলাকার করিম মালিথার ছেলে ও গাংনী পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র ইনসারুল হক ইনসুর ছোট ভাই।

জানা যায়, রবিবার রাত ৯টার দিকে বাড়ির পাশে গাছ ফেলে চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে আবুল খায়েরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে কোপানো হয়। এ সময় তার দুই পায়ের রগ কেটে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় প্রতিপক্ষের লোকজন।

পরে পরিবারের লোকজন মুমূর্ষু অবস্থায় আবুল খায়েরকে উদ্ধার করে প্রথমে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসক।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক সেলিম উদ্দীন জানান, আহত আবুল খায়েরের দুই পায়ের রগ কাটা ও আঘাতে মাথার মাঝখানে গুরুতর জখম হয়। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল।

আবুল খয়েরের বড় ভাই বিএনপি নেতা ইনসারুল হক বলেন, ‘পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গাংনী পৌরসভার ওলিপাড়া এলাকার বাবু ওরফে কানা বাবু, আকছার হোসেন ও তার ছেলে রিপন হোসেন, আব্দুস সোবহানসহ তার ক্যাডার বাহিনীর লোকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আমার ভাইকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘এর আগে হামলাকারীরা তার ইট ভাটায় চাঁদা দাবি করে আসছিল। না দিতে চওয়ায় প্রতিনিয়ত হুমকি দিতো।’

গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গাংনীতে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবক নিহত 

0031

ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ওলিনগরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় সুরোজ আলী (২৬) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তার ভাতিজি (ভাইয়ের মেয়ে)।

শনিবার দিবাগত রাতে মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন।

জানা গেছে, দুর্ঘটনার পর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা সুরোজকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার সময় রাত ৯টা ৩৮ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। আহত স্থানীয় চাঁদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী আয়েশা খাতুন (১৪) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ যুবলীগ কর্মী নিহত 

সড়ক দুর্ঘটনা

মেহেরপুর, ১৭ মার্চ : মেহেরপুরে পিকনিকের বাস ও নসিমন সংঘর্ষে ৪ যুবলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে মেহেরপুর-মুজিবনগর সড়কে শ্যামপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মুজিবনগর উপজেলার বাগোয়ান গ্রামের হাবিল খার ছেলে আনিসুর রহমান (৪০), নিলু খার ছেলে তুফান (৩৫), পটা শেখের ছেলে টুকু (৩২) ও ইউনুস খার ছেলে নজরুল (৩৫)। তারা স্থানীয় যুবলীগের কর্মী।

এ ঘটনায় আরো ১৫ জন আহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেহেরপুরের সার্কেল এসএসপি শেখ মুস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সন্ধ্যায় মেহেরপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠান শেষে নসিমন করে মুজিবনগরে ফিরছিলেন যুবলীগের কয়েকজন কর্মী। পথে পাবনা থেকে আসা একটি স্কুলের পিকনিকের বাসের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই ২ জনের মৃত্যু হয়। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে আরো দু’জনের মৃত্যু হয়। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে মেহেরপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এঘটনার পরপরই বিক্ষুব্ধ জনতা বাস থেকে শিক্ষার্থীদের নামিয়ে বাসটি পুড়িয়ে দিয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মেহেরপুরে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা 

129030_1

মেহেরপুর, ২৭ ফেব্রুয়ারি : মেহেরপুরের গাংনিতে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ পুকুরে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। নিহত যুবলীগ নেতার নাম শুকুর আলী। তিনি গাংনি উপজেলার নিশিপুর ওয়ার্ড যুবলীগের প্রচার সম্পাদক বলে জানা গেছে।

আজ শনিবার সকাল ৭টায় পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। তার মাথায় ও ঘাড়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন গাংনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকরাম হোসেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর