২৩ মে ২০১৭
রাত ১:২৯, মঙ্গলবার

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে মাদক প্রতিরোধ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে মাদক প্রতিরোধ সমাবেশ অনুষ্ঠিত 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ১৫ মে : জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলাকে মাদকমুক্ত ঘোষণা করার প্রত্যয়ে কমিউনিটি পুলিশিং’র উদ্যোগে আজ সোমবার বিকালে স্টেডিয়াম মাঠে এক বিশাল মাদক প্রতিরোধ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রায় দশ সহস্রাধিক মানুষের কন্ঠে একই সাথে উচ্চরিত হয়, মাদককে না বলি-মাদকমুক্ত কিশোরগঞ্জ গড়ি।

জেলা পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খাঁনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বিরোধী দলীয় হুইপ আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী, নীলফামারী-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা, রংপুর রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, অতিরিক্তি ডিআইজি মঞ্জুরুল কবির, জেলা প্রশাসক খালিদ রহিম, নীলফামারী পৌরসভার মেয়র ও কমিউনিটি পুলিশিং’র জেলা আহবায়ক দেওয়ান কামাল, কিশোরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও কমিউনিটি পুলিশিং’র সভাপতি রশিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম মেহেদী হাসান, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এছরারুল হক, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম ও আ’লীগ সেক্রেটারী জাকির হোসেন বাবুল প্রমূখ।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মাদকমুক্ত কিশোরগঞ্জ ঘোষণা করার উদ্যোগক্তা থানা অফিসার ইনচার্জ বজলুর রশীদ। এদিকে গত ৫মার্চ প্রস্তুতি সভার মাধ্যমে উপজেলার বিভিন্ন দৃশ্যমান স্থানে সাটানো হয় মাদক বিরোধী বিলবোর্ড। উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ৮১টি ওয়ার্ডের মাদক প্রতিরোধ কমিটির মাধ্যমে বিতরণ করা হয় পোষ্টার, লিফলেট ও ষ্টিকার।

উল্লেখ্য যে, গত দুই মাসে থানা পুলিশ ১৫০জন মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীকে জেল হাজতে, ৪০জনকে মাদক নিরাময় কেন্দে প্রেরণ ও ৪৫ জনকে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের মাধ্যমে পুনর্বাসন করেছে। পরিশেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ও চায়নিজ সার্কাস প্রদর্শিত হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ২জন নিহত 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ১৫ মে : নীলফামারীতে সোমবার বিকালে নীলফামারী-সৈয়দপুর প্রধান সড়কের শেখ জামে মসজিদের কাছে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে দুই মোটর সাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, জেলার ডিমলা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের চিকিৎসক আনোয়ারুল ইসলাম ও অফিস সহকারী আইনুল হক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেল ৪টার দিকে সৈয়দপুরগামী দ্রুতগতির ট্রাকটির সাথে নীলফামারীগামী মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটর সাইকেলটি দুমড়ে মুছরে যায় এবং দুই আরোহীর মাথা থেতলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। জানা গেছে, দিনাজপুরে কর্মশালা শেষে ডিমলায় ফিরছিলেন আনোয়ারুল ইসলাম ও আইনুল হক। নীলফামারীর ট্রাফিক সার্জেন্ট জ্যোতির্ময় জানান, ঘাতক ট্রাকটিকে আটকের চেষ্টা চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মঙ্গলবার সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদের উপ নির্বাচন 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ১৫ মে : আগামী মঙ্গলবার (১৬ মে) নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। গতকাল রবিবার (১৪ মে) রাত ১২টার পর হতে নির্বাচনী প্রচারণা শেষ হয়েছে। এখন চলছে ভোটারদের মাঝে কোন প্রার্থীর গলায় বিজয়ের মালা পড়াবে তার চুলচেরা বিশ্লেষন। এদিকে ৭১টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৫৯টিকে ঝুকিপূর্ণ চিহ্নিত করায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচন ঘিরে আজ সোমবার সকাল হতে নির্বাচনী এলাকায় তিন প্লাটুন করে বিজিবি ও র‌্যাবের টিম টহল দেয়া শুরু করেছে। তারা ভোটের দিন ও ভোটের পরের দিন পর্যন্ত টহলের দায়িত্ব পালন করবে। নির্বাচন অফিস সুত্র মতে, উপ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। তারা হলেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মোখছেদুল মোমিন (নৌকা), বিএনপির শওকত হায়াত শাহ (ধানেরশীষ),জাতীয় পার্টিও ইলিয়াছ চৌধুরী (লাঙল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নূরুল হুদা (হাতপাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জামায়াতের আবদুল মুনতাকিম (আনারস)। তবে ভোটারদের তথ্যমতে নির্বাচনে আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও জাপা প্রার্থীর মধ্যে ত্রিমুখী লড়াই হবে।

সৈয়দপুর উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ ও ১টি পৌরসভা নিয়ে এখানে ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৮১ হাজার ৫০৭ জন। এরমধ্যে পুরুষ রয়েছেন ৯১ হাজার ৭২ জন এবং নারী ভোটার রয়েছেন ৯০ হাজার ৪৩৫ জন। ভোটাররা ৭১টি ভোট কেন্দ্রের ৪৪০টি ভোট কে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এদিকে জেলা পুলিশের ডিআইও ওয়ান আব্দুল মোমিন জানান, ৭১টি ভোটকেন্দ্রগুলোর মধ্যে ৫৯টিকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ জন্য সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ ভোট প্রদানে ভোটার ও সাধারন জনগনের নিরাপত্তায় চার স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এজন্য রয়েছে অস্ত্রধারী ৭১ জন পুলিশ অফিসার, ২৮৪ জন পুলিশ সদস্য এবং ৮৫২ জন আনসার ও ভিডিপি বাহিনী। প্রতি ভোট কেন্দ্রে একজন অফিসারের নেতৃত্বে ৪ জন কনস্টেবল ও ১২ জন আনসার সদস্যসহ মোট ১৭ জন নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে। এ ছাড়া একজন পুলিশ অফিসারের নেতৃত্বে ৬ সদস্য করে ১৪টি মোবাইল টীম মাঠে থাকবে। এর মধ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে ১০টি ও পৌর এলাকায় ৪টি মোবাইল টীম সার্বনিক দায়িত্ব পালন করবে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের একাধিক টিম থাকবে নির্বাচনী মাঠে। এছাড়া ২০ জন করে ৪টি স্ট্রাইকিং ফোর্স কাজ করবে। সার্বনিক প্রস্তুত থাকবে রিজার্ভ ফোর্সের কয়েকটি গ্রুপ। অপরদিকে পুলিশের পাশাপাশি তিন প্লাটুন করে র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা টহলে থাকবে।

উক্ত নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জিলহাজ উদ্দিন জানান, নির্বাচনে ৭১জন করে প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং এবং ৩৬৯ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবে। এ জন্য আজ সোমবার বিকালের মধ্যে তারা স্ব-স্ব ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহনের ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার সহ আনুসাঙ্গিক সরঞ্জামাদি সহ অবস্থান নিবে। পাশাপাশি আগামীকাল সকাল আটটা হতে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহন শুরু হবে। এরপর ভোট গগনার পর বেসরকারীভাবে ফলাফল ঘোষনা করা হবে। চলতি বছরের ১ মার্চ সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সৈয়দপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাওয়াদুল হক মারা যাওয়ায় পদটি শুন্য ঘোষনা করেছিল নির্বাচন কমিশন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

র‌্যাবের অভিযানে ১১লাখ ৬হাজার টাকার জাল নোটসহ আটক ১ 

56

নীলফামারী, ১২ মে : ১১লাখ ৬হাজার টাকার জাল নোটসহ আশরাফুল ইসলাম(৩০) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে র‌্যাব-১৩ নীলফামারী সিপিসি-২’র আভিযানিক দল।

বৃহস্পতিবার দুপুরে(১১মে) পঞ্চগড় জেলা সদরের হাফিজাবাদ ইউনিয়নের পুকুরীরডাঙ্গা বাজারের আদর্শ স্টুডিওতে অভিযান চালিয়ে জাল টাকা ও তৈরিকারককে আটক করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সিপিসি-২’র স্কোয়াড কমান্ডার ও সহকারী পুলিশ সুপার শাহিনুর কবির।

আটক আশরাফুল হাফিজাবাদ ইউনিয়নের আমবাড়ি গ্রামের মৃত. রমজান আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১৩ নীলফামারী সিপিসি-২(ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানী) অধিনায়ক ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কাশেম জানান, ওই স্টুডিওতে ব্যবসার আড়ালে জাল নোট তৈরী করা হচ্ছিল।

গোপন সংবাদ পেয়ে বৃহস্পতিবার অভিযান চালিয়ে ১০০০টাকার ১০৬টি জাল নোটসহ আশরাফুলকে আটক করা হয়। এছাড়া তৈরীর কাজে ব্যবহৃত উপকরণ কম্পিউটার সামগ্রী এবং ৫টি মুঠোফোন উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় র‌্যাব ক্যাম্পের উপ-সহকারী পরিচালক(ডিএডি) ইয়ার আলী বাদী হয়ে পঞ্চগড় থানায় মামলা করে সংশ্লিষ্ঠ থানায় আশরাফুলকে হস্তান্তর করা হয় বলে জানিয়েছে সিপিসি-২’র স্কোয়াড কমান্ডার শাহিনুর কবির।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সাংবাদিকদের নামে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ৮ মে : নীলফামারীর ডোমারে রিপোর্টার্স ইউনিটির আয়োজনে মানববন্ধন ও কলম বিরতি অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডোমার বাজার রেলঘুন্ডি মোড়ে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও কলম বিরতি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন নীলফামারী জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সকল সদস্য। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, একুশে টিভির জেলা প্রতিনিধি আব্দুর রশিদ শাহ, চ্যানেল আই এর জেলা প্রতিনিধি আনোয়ারুল আলম প্রধান, মাই টিভির জেলা প্রতিনিধি আজিজুল বুলু ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে কলম ও ক্যামেরা বিরতি পালন করা হয়। ডোমার রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি জুলফিকার আলী ভূট্টোর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন, সহ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রঞ্জু, সদস্য আবু হাসান, একরামুল হক লাবু, আব্দুল্লাহ আল মামুন সোহাগ, সাইফুল ইসলাম মানিক প্রমূখ।

উল্লেখ্য যে, জেলার ডিমলায় অভিনব কায়দায় জনৈক পাথর জাহিদ ছিনতাইয়ের ঘটনা সাজিয়ে নিজের ছিনতাইয়ের মামলার দায় থেকে রক্ষা পেতে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। আর এ ঘটনায় গোটা জেলাজুড়ে সাংবাদিকদের মধ্যে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ডিমলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে এ হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে পাথর বালু উত্তোলনের নিয়ন্ত্রক জাহেদুল ইসলাম জাহিদ ওরফে পাথর জাহিদ। মামলাটি ডিমলা থানা পুলিশ শনিবার (৬ মে) নথিভুক্ত করেছে এবং ওই মিথ্যা মামলার বাদি প্রভাবিত করে আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে পূর্ণরায় সাজানো একটি মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। এ ঘটনায় এলাকায় হাস্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টিও হয়েছে।

মামলার বিবরনে জানা যায়, দৈনিক মাতৃজগত ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল গ্রামবাংলা নিউজ’র ডিমলা প্রতিনিধি জাহেদুল ইসলাম গত ৩ মে নিজে বাদী হয়ে পাথর জাহিদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা নং-৪ তারিখ-০৩/০৫/১৭। উপজেলার গয়াবাড়ী ইউনিয়নের গয়াবাড়ী গ্রামের আনোয়ার হোসেন ও সামসুদ্দিন দীর্ঘদিন থেকে কুমলাই নদীতে অবৈধভাবে পাথর ও বালু উত্তোলন করছিলো। বালু উত্তোলনের এ ঘটনার সংবাদ সংগ্রহের জন্য মামলার বাদী তার সহকর্মী আব্দুল কুদ্দুসকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনের দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি করে। ওই সময় অবৈধ পাথর ব্যবসায়ীরা তাদের নিয়ন্ত্রক হিসেবে এলাকায় পরিচিত পাথর জাহিদকে বিষয়টি মোবাইল ফোনে জানায়। এরপরই অবৈধ পাথর ব্যবসায়ীরা সাংবাদিকদের লাঞ্চিত করে ক্যামেরা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। উপস্থিত লোকজনের সহায়তায় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়ে সাংবাদিক জাহেদুল ইসলাম ডিমলা থানায় পাথর বালুর নিয়ন্ত্রক জাহেদুল ইসলাম জাহিদ, আনোয়ার ও সামসুদ্দিনকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অপরদিকে বাদীকে মিথ্যা ছিনতাইয়ের মামলায় জড়িয়ে জাহেদুল ইসলাম ওরফে পাথর জাহিদ ঘটনার তিন দিন পর ৬ মে থানায় সাংবাদিক জাহিদসহ আরো ৮জন সাংবাদিককে আসামী করে মিথ্যা ও সাজানো মামলা দায়ের করেছে। এ প্রসঙ্গে কথা হয় জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নুর আলম সিদ্দিকী দুলালের সাথে। তিনি জানান, জাহেদুল ইসলাম ওরফে পাথর জাহিদ শাক দিয়ে মাছ ঢাকার জন্য এ মিথ্যা বানোয়াট সাজানো ও ভিক্তিহিন মামলা করেছে। আমরা এর তব্রী নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি। সেই সাথে রিপোর্টার্স ইউনিটির সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানাচ্ছি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

তরুনীকে উত্যক্ত করার দায়ে স্কুল ছাত্রের দণ্ড 

1485374376_87

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ৫ মে : নীলফামারীর সৈয়দপুরে সুমী আক্তার (ছদ্মনাম) নামে এক তরুনীকে উত্যক্ত করার দায়ে রাসেল (১৭) নামের এক স্কুল ছাত্রকে অর্থ দণ্ডে দণ্ডিত করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত রাসেল জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার কানুজ পাড়া গ্রামের মুকুল হোসেনের পুত্র। সে স্থানীয় একটি মাধ্যমিক স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম জানান, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সৈয়দপুর শহরের কয়ানিজ পাড়ার সুমী আক্তারকে উত্যক্ত করতো রাসেল। বৃহস্পতিবার রাতে রাসেলকে কৌশলে সৈয়দপুর শহরে ডেকে নেয় সুমী। পরে পুলিশ রাত ১টার দিকে শহরের উপজেলা পশুপালন অফিসের সামনে থেকে উত্যক্তকারী রাসেলকে আটক করে। শুক্রবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে উত্যক্তকারীকে হাজির করা হলে আদালতের বিচারক সৈয়দপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) আহমেদ মাহবুব-উল ইসলাম তাকে দুইশত টাকা জরিমানার রায় প্রদান করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বীরঙ্গনা মায়েরা এখনো পূর্ণাঙ্গ সম্মান পান না : ব্যারিষ্টার তুরিন আফরোজ 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ২৯ এপ্রিল : আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিষ্টার তুরিন আফরোজ বলেছেন, স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরেও ৭১’র বীরঙ্গনা মায়েরা এখনো পূর্ণাঙ্গ সম্মান পান না। আমাদের সামাজে তারা অবহেলিত। বীরঙ্গনা শব্দটি লজ্জার ও গালিগালাজ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তিনি আজ শনিবার দুপুরে নীলফামারীর ডোমার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের আয়োজনে বীরঙ্গনাদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মিলন শেখ ভিক্ষা করে। অনেক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রিক্সা চালায়। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতাকারীরা আজকে কালো গ্লাসের গাড়িতে করে চলাচল করে। বিলাসবহুল বাড়িতে থাকে।

ব্যারিষ্টার তুরিন বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা সার্টিফিকেটের আশায় যুদ্ধ করেনি। মুক্তিযুদ্ধের সময় তারা বাঁচবেন না মৃত্যুবরণ করবেন সেই চিন্তাও করেনি। কিন্তু এখন কিছু মানুষ যুদ্ধ না করেও সার্টিফিকেটের জন্য দৌড়ঝাপ করছে। তিনি বলেন, আমাদের ট্রাইবুনাল পাঠ্য বইয়ে বিরঙ্গনাদের কথা অন্তর্ভূক্ত করতে বলেছে। কিন্তু তাই দুই বছর পার হলেও এখন পর্যন্ত তা কার্যকর হয় নি। তুরিন আফরোজ বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাধীনতা বিরোধী কোন কর্মকাণ্ড মেনে নেবে না এবং স্বাধীনতার পক্ষে সকল কর্মকাণ্ড তিনি বাস্তবায়ন করবেন।

ডোমার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরননবীর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সহকারী কমান্ডার সহিদার রহমান মানিক, ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকছেদ আলী, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গাফ্ফার, প্যানেল মেয়র এনায়েত হোনের নয়ন, ডোমার প্রেস ক্লাব সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান চয়ন, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক আল-আমিন রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা করিমুল হক প্রমূখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ২৭ এপ্রিল : নীলফামারী সদরে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ মিলেছে। নিহত গৃহবধু মহচেনা বেগম (২৫) সদর উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের উত্তর চকদুবলিয়া গ্রামের ডাঙ্গাপাড়ার সাইফুল ইসলামের স্ত্রী। গতকাল বুধবার ওই ঘটনা ঘটে। নিহত মহচেনা বেগমের বাবা আব্দুল মজিদ জানান, আমার মেয়েকে কয়েকদিন ধরে নানা অজুহাতে সাইফুল বেপরোয়া ভাবে মারধর করে। তার শরীরে গরম হাতা দিয়ে নির্যাতন চালায়। বুধবার মহচেনাকে পরিকল্পিতভাবে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলে। পরে লাশ ফেলে রেখে ঘাতক সাইফুল পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে নিহত মহচেনার বাবা আবুল মজিদ নিজে বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্ত শেষে বাদীর কাছে হস্তান্তর করেছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে এক সাথে ৫টি কুয়ার সন্ধান 

0

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ২৬ এপ্রিল : নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে একসাথে পঞ্চম কুয়ার সন্ধান মিলেছে। কুয়া ৫টি দেখতে শত শত মানুষের ঢল নেমেছে ওই এলাকায়। ঘটনাটি জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার ২নং পুটিমারী ইউনিয়নের উত্তর ভেড়ভেড়ী চাঁদখোসাল মসজিদের কাছে। অনেক মানুষ এই কুয়ার পানি নিয়ামতের পানি মনে করে পান করছেন। আবার হিন্দু সপ্রদায়ের মানুষেরা সেই পানি নিয়ে পূজা অর্চনা করছে। কেউ কেউ বোতলে ভরে বাসায় নিয়ে রাখছে। আবার কিছু সনাতন ধর্র্মাবলম্বীরা পূজা ও মান্নত করছে। এই কুয়ার বাস্তব ভিত্তি কোথায় কেউ বলতে পারে না।

তবে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, শ্যালো মেশিন দিয়ে গভীর পাইপের মাধ্যমে বালু উত্তোলনের জন্য দিঘি খনন করতে গিয়ে এই কুয়াগুলোর সন্ধান মিলছে। এর কারণ কি এবং পূর্বে কারও বসতবাড়ী কিংবা কোন ধর্মীয় মসজিদ, মন্দির ছিল কিনা তা এলাকাবাসী বলতে পারছে না।

এ ব্যাপারে পুটিমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সায়েম লিটন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কুয়া গুলোর সন্ধানে বয়স্ক লোকদের কাছ থেকে জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পাখি রক্ষায় সৈয়দপুরে বাইসাইকেল শোভাযাত্রা 

11

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ২১ এপ্রিল : ‘পাখি আমাদের প্রকৃতির অংশ, এদের রক্ষায় এগিয়ে আসুন’ এই শ্লোগান নিয়ে পাখি রক্ষায় গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাইসাইকেল শোভাযাত্রা ও প্রচারপত্র বিতরণ করেছে সেতুবন্ধন নামের এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

শুক্রবার সকালের দিকে সৈয়দপুর পৌরসভার পৃষ্ঠপোষকতায় ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সেতুবন্ধনের উদ্যোগে সৈয়দপুর রেলওয়ে মাঠে বাইসাইকেল শোভাযাত্রাটির উদ্বোধন করেন পৌরসভা মেয়র অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকার ভজে। শোভাযাত্রা থেকে পাখি রক্ষা, পাখির পরিবেশ সৃষ্টি, পাখি শিকার বন্ধসহ নানা শ্লোগান সম্বলিত লিফলেট বিতরণ করা হয়। শোভাযাত্রায় সংগঠনটির দুই শতাধিক সদস্য তাদের বাইসাইকেল নিয়ে অংশ গ্রহণ করেন।

এসময় শহরের রাস্তার দ’ধারে দাঁড়িয়ে থাকা শত শত লোকজন ওই শোভাযাত্রাকে স্বাগত জানান। শোভাযাতাটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় রেলওয়ে মাঠে গিয়ে শেষ হয়। এসময় সেখানে সেতুবন্ধন সংগঠনের সভাপতি আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সদস্য খুরশিদ জাহান কাঁকন প্রমুখ।

উল্লেখ্য যে, পাখি রক্ষায় সৈয়দপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘সেতুবন্ধন’ দীর্ঘদিন ধরে নীলফামারীসহ আশেপাশের এলাকায় পাখির অভয়াশ্রম তৈরী করতে পাড়ামহল্লা গাছে গাছে হাড়ি-কলস দিয়ে বাড়ি তৈরী, পাখি শিকার বন্ধে পাড়া-মহল্লায়, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের সাথে সভা সমাবেশসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে আসছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সাদা ভুট্টা খাবারের উপযোগী বিষয়ক মাঠ দিবস 

0

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ১৩ এপ্রিল : নীলফামারীর ডোমারে বাংলাদেশের মানুষের খাবারের উপযোগী সাদা ভুট্টা সংগ্রহ, মুল্যায়ন ও প্রবর্তন বিষয়ে এক কৃষক প্রশিক্ষন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডোমার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জাফর ইকবালের সভাপতিত্বে গম গবেষনা কেন্দ্র নশিপুরের আয়োজনে ডোমার উপজেলা কৃষি প্রশিক্ষন কেন্দ্রে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, গম গবেষনা কেন্দ্র নশিপুরের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কৃষিবিদ জাহিদুল ইসলাম সরকার।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, নীলফামারী কৃষি সম্প্রাসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ জিএম ইদ্রিস, গম গবেষনা কেন্দ্র নশিপুরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কৃষিবিদ আবু হাসান সরকার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ভুট্টা চাষী ও কৃষক উপস্থিত ছিলেন।

প্রশিক্ষন অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগীতা করেন ডোমার উপজেলা কৃষি অফিস।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সাবেক এমপি আহসান আহমেদের স্মরণ সভা 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ১০ এপ্রিল : নীলফামারী জেলার প্রবীন রাজনীতিবিদ নীলফামারী পৌর সভা ও নীলফামারী সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং নীলফামারী-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত আহসান আহমেদ এর স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সন্ধায় নীলফামারী শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন, নীলফামারী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন।

সভায় আহসান আহমেদকে নিয়ে স্মৃতি চারন করেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাবেক এমপি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এনকে আলম চৌধুরী, সাবেক উপ-সচিব একেএম আমিনুল হক, ডিমলা উপজেলা চেয়ারম্যান তবিবুল ইসলাম, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান, সাবেক ছাত্র নেতা শাহ আব্দুল হান্নান, মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, অবসর প্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ রেজাউল করিম রেজা, নীলফামারী পৌর বিএনপি সভাপতি জহুরুল আলম, জেলা যুবলীগ সাধারন সম্পাদক শাহিদ মাহমুদ, শ্রমিক নেতা গোলাম রহমান ডালু, ক্যাব সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান দুলাল, জেলা পরিষদ সদস্য জুলফিকার আলী জুয়েল প্রমুখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

দুর্লভ বৌদ্ধ মুর্তি উদ্ধার, সংরক্ষণ করা হবে জাদুঘরে 

2

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ৮ এপ্রিল : দুর্লভ বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ত্রি-শরণ মুর্তি পাওয়া গেছে নীলফামারীতে। সদর উপজেলার লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া (দেওনাই নদীর পাশ) থেকে দেশের দ্বিতীয় মুর্তিটি উদ্ধার করে সদর থানা পুলিশ। শনিবার সকালে পুলিশ জানায়, শুক্রবার বিকেলে সেখানকার অরবিন্দু রায় শ্যালো মেশিন দিয়ে পানি তোলার সময় ভেতর থেকে সেটি বেরিয়ে আসলে স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে সেখান থেকে দুর্লভ মুর্তিটি থানায় নিয়ে আসেন পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারিছুর রহমান।

পুলিশ এবং প্রত, ৮ এপ্রিল : পত্নতত্ব বিভাগ কর্মকর্তারা জানান, একই রকমের আরেকটি মুর্তি মুন্সিগঞ্জে পাওয়া গিয়েছিলো। নীলফামারীরটি নিয়ে দেশে দ্বিতীয় মুর্তি সংরক্ষিত হলো। রংপুর জাদুঘরের কাস্টোডিয়ান তানভিরুল আলম জানান, এই অঞ্চলে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের বসবাস ছিলো এবং পাল বংশ ছিলো সেটি সুস্পষ্ট। আমাদের যে ইতিহাস সমৃদ্ধ, সেটির প্রমাণ বেরিয়ে আসছে ধীরে ধীরে। উদ্ধার হওয়া মুর্তিটি কালো পাথরের মন্তব্য করে তানভিরুল আলম বলেন, এটির (মুর্তির) সাংস্কৃতিক ও প্রত্নতাত্বিক মুল্য অসিম। এর ফলে নীলফামারীর ইতিহাসে নতুন মাত্রা যোগ হলো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ বাবুল আকতার জানান, উদ্ধার হওয়া মুর্তিটি আমরা আদালতে উপস্থাপন করবো। আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মূতিটি লম্বায় ৭ ইঞ্চি ও প্রস্থে সাড়ে ৩ ইঞ্চি। তবে প্রত্নতত্ব কর্মকর্তা বলছেন, রংপুর জাদুঘরে আপাতত সংরক্ষণ করা হলেও আমরা সেটি নীলফামারীতে প্রস্তাবিত নীলসাগর জাদুঘরে নিয়ে আসবো।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বাস্তবে না থাকলেও ‘মঙ্গা’ আছে অভিধানে-সংস্কৃতিমন্ত্রী 

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ৭ এপ্রিল : বাস্তবে ‘মঙ্গা’ না থাকলেও অবিধানে ‘মঙ্গা’ আছে বলে মন্তব্য করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর। জননেত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণতা, দুরদর্শিতা আর পরিকল্পনার কারণে মঙ্গা হারিয়ে গেছে ইতিহাস থেকে বলে তিনি দাবী করেন। মন্ত্রী আরো বলেন, আমরা এক সময় বলতাম, ‘হাত্তিক (হাতি) ঠেলা যায়, কিন্তু কার্তিক ঠেলা যায় না’। সেটা এখন আর নেই। আমরা বলিও না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই শব্দ ইতিহাস থেকে মুছে দিয়েছেন। কৃষি ও কৃষকের পরিবর্তনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোথায় কতটা ভুর্তুকি দেয়া হচ্ছে সেটা সকলেই জানেন। কত দাম দিয়ে সার কিনে কত দামে বিক্রি করা হচ্ছে। তিনি শুক্রবার দুপুরে নীলফামারী শিল্পকলা অডিটোরিয়ামে জেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।

জেলা কৃষকলীগের সভাপতি অক্ষ্ময় কুমার রায়ের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা। সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শামসুল হক রেজা। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা, সংসদ সদস্য উম্মে কুলসুম স্মৃতি, জেলা আ’লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াহিয়া আবিদ প্রমূখ। তিনি কৃষকলীগের সকল নেতা কর্মীকে সরকারের উন্নয়নের সফলতাগুলো মানুষের কাছে সঠিক ভাবে পৌঁছে দেয়ার আহবান জানান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সংবাদদাতা মোশাররফ হোসেন আর নেই 

00

আব্দুর রাজ্জাক, নীলফামারী, ৩১ মার্চ : দৈনিক ইনকিলাবের নীলফামারী জেলা সংবাদদাতা ও নীলফামারী প্রেসক্লাবের সাবেক সেক্রেটারী প্রবীণ সাংবাদিক মোশাররফ হোসেন (৫৬) আর নেই। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে বুকে ব্যথা অনুভব করায় তাকে নীলফামারী সদর হাসপাতালে নেয়ার পথেই তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নানিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। তিনি কয়েকদিন থেকে শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ১ পুত্র ও ২ কন্যাসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখেগেছেন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। তার শহরের শাহীপাড়াস্থ বাড়িতে গোটা জেলার সাংবাদিকসহ শোকাহত মানুষের ঢল নামে। শুক্রবার বাদজুম্মা নীলফামারী কেন্দ্রীয় ঈদগাহে প্রথম এবং বাদ আছর কেন্দ্রীয় কবরস্থানে ২য় দফা জানাজার নামাজ শেষে মরহুমের দাফন সম্পন্ন করা হয়। তার জানাযায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেয় ।

৭০’র দশকে মোশাররফ হোসেন সাংবাদিকতা পেশায় যুক্ত হন। এরপর তিনি বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও আঞ্চলিক পত্রিকায় সাংবাদিকতা করেন। দৈনিক ইনকিলাবের জন্মলগ্ন থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি ইনকিলাবেই কর্মরত ছিলেন। তার মৃত্যুতে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, নীলফামারী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাড. মমতাজুল হক, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুজার রহমানসহ অনেকেই গভীর শোক প্রকাশ করে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর