২৩ মে ২০১৭
রাত ১:৩১, মঙ্গলবার

মুশফিকের বাবার বিরুদ্ধে স্কুলছাত্র হত্যা মামলা

মুশফিকের বাবার বিরুদ্ধে স্কুলছাত্র হত্যা মামলা 

1951444

বগুড়া, ১৭ মে : বগুড়ায় স্কুলছাত্র মাশুক ফেরদৌস হত্যার ঘটনায় ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমের বাবা মাহাবুব হামিদ তারা, চাচা পৌর কাউন্সিলর মেজবাহুল হামিদসহ ১৬ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের তিন দিন পর গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিহত মাশুকের বাবা অ্যাডভোকেট মো. ইমদাদুল হক বাদী হয়ে সদর থানায় এই মামলা করেন।

মাশুক ফেরদৌস (১৫) বগুড়া এসওএস হারম্যান মেইনার স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র। তাঁর বাবা ইমদাদুল জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) একাংশের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য।

গত ১৩ মে শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ক্রিকেট ব্যাট ও হকিস্টিক দিয়ে পিটিয়ে স্কুলছাত্র মাশুককে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পর সন্দেহভাজন হিসেবে মাশুকের বন্ধু সোহান, মামলার আসামি নাঈমের বাবা বেলাল হোসেন ও মমতাজ বেগমকে আটক করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমদাদ হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত ১৬ আসামির কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে তাঁদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

‘একটি ক্রিকেট টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে এবং স্থানীয় মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে এ হত্যা মামলার আসামিদের সঙ্গে বাদী ইমদাদুল হকের দ্বন্দ্বের বিষয়টি সামনে রেখে তদন্ত চলছে’, যোগ করেন ওসি।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন, মাটিডালি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মাহাবুব হামিদ তারা (৫৫), তাঁর ছোট ভাই পৌরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেজবাহুল হামিদের (৪৫) সঙ্গে মনোমালিন্য ও পারিবারিক শত্রুতা চলে আসছিল। এ কারণে এই দুজন তাঁর পরিবারের ক্ষতি করার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী, আসামিরা গত ১১ মে রাত ১০টায় স্থানীয় ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কার্যালয়ে বৈঠক করে। বৈঠকে আরো ১৪ আসামি উপস্থিত ছিল।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, বৈঠকে মাশুক ফেরদৌসকে (১৫) হত্যার ছক করা হয়। গত শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে আসামি নাঈম মাশুককে বাসা থেকে তার মা ফিরোজা বেগমের সামনে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর নাঈমের বাড়িতে মাশুককে প্রায় দুই ঘণ্টা আটকে রাখা হয়। এ সময় তার সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়া হয়। পরে অবশ্য পুলিশ নাঈমের বাসা থেকে মাশুকের মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে।

বন্দি অবস্থায় থাকার একপর্যায়ে রাত ৮টার দিকে মাশুক আসামিদের কবল থেকে ছুটে বের হওয়া মাত্র তাঁরা লাঠি, হকিস্টিক, ক্রিকেট ব্যাট ও ছোরাসহ বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে মাশুকের পিছু ধাওয়া করেন। একপর্যায়ে মাটিডালি হাজিপাড়ায় বিটুলের বাড়ির সামনে মাশুককে ঘিরে ফেলে। এরপর আসামিরা ক্রিকেট ব্যাট ও হকিস্টিক দিয়ে মাশুকের মাথায় আঘাত করেন এবং এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকেন। মাশুক রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়লে আসামিরা উল্লাস করতে করতে চলে যান বলেও মামলায় উল্লেখ করা হয়।

মাশুককে উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। তার আগে মাইক্রোবাসের মধ্যে গুরুতর আহত মাশুক আসামিদের নাম এবং কে কীভাবে মেরেছে, তা বলে গেছে বলে মামলায় উল্লেখ করেন বাদী।

পুলিশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি, লাশের ময়নাতদন্ত, দাফন-কাফন করাসহ পরিবার মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ায় এবং আসামিরা ভয়ভীতি প্রদর্শন করায় মামলা দায়েরে বিলম্ব হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন স্কুলছাত্র মাশুকের বাবা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আরো ১০ মেডিকেলে কর্মবিরতি শুরু 

258

বগুড়া, ৫ মার্চ : বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের চার শিক্ষানবিশ চিকিৎসকের শাস্তির প্রতিক্রিয়ায় এই মেডিকেলের পর আরো ১০টি হাসপাতালে কর্মবিরতিতে গেছেন তাদের সহকর্মীরা।

এতে চিকিৎসক ‘সংকটে’ পড়েছেন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা মানুষ।

কর্মবিরতিতে যাওয়া মেডিকেলগুলো হল- বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সিরাজগঞ্জ নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজ, নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

এর আগে, চিকিৎসা নিতে আসা রোগীর স্বজনের সঙ্গে অপ্রীতিকর ঘটনার জেরে গত বৃহস্পতিবার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চার ইন্টার্ন চিকিৎসকের ইন্টার্নশিপ ছয় মাস স্থগিত এবং অন্যত্র বদলির নির্দেশ জারি করে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের এই সিদ্ধান্তের পর থেকেই ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা কাজে বিরত রয়েছেন।

তাদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে দেশের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকেরাও কর্মবিরতি শুরু করেছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বগুড়ার জিয়া মেডিকেলে চার ইন্টার্ন চিকিৎসকের শাস্তি, প্রতিবাদে ধর্মঘট 

বগুড়া, ৩ মার্চ : রোগীর স্বজনদের পেটানোর ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চার শিক্ষার্থীর ইন্টার্নশিপ ছয় মাস স্থগিত করার প্রতিবাদে ধর্মঘট পালন করছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

শুক্রবার সকাল থেকে তারা কর্মবিরতি পালন করায় হাসপাতালে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন চিকিৎসা নিতে আসা রোগী এবং তাদের স্বজনরা।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ছয় মাসের ওই স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষে চার শিক্ষানবিশ চিকিৎসককে চারটি ভিন্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাদের ইন্টার্নশিপ শেষ করতে হবে।

এর মধ‌্যে ডা. নূরজাহান বিনতে ইসলাম নাজকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে, ডা. মো. আশিকুজ্জামান আসিফকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে, ডা. মো. কুতুবউদ্দিনকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং ডা. এমএ আল মামুনকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্নশিপ শেষ করতে হবে।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারধরের শিকার হন সিরাজগঞ্জ সদর থেকে চিকিৎসা নিতে আসা আলাউদ্দিন সরকার নামে এক রোগীর ছেলে রউফ সরকার।

তিনি ফ্যান বন্ধ করার জন‌্য সুইচ খুঁজে না পেয়ে দায়িত্বরত ইন্টার্ন চিকিৎসক নাজকে জিজ্ঞেস করলে তিনি রেগে যান। এরপর আরেকজন শিক্ষানবিশ চিকিৎসক এসে তাকে মারধর করেন। পরে তাকে অন‌্য একটি কক্ষে নিয়ে কান ধরে উঠবস করানো হয়।

মারধর ও কান ধরিয়ে উঠবস করানোর ওই দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে চিকিৎসকদের নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। ওই ঘটনার পর শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা নিজেদের নিরাপত্তার দাবিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতির ঘোষণা দেন। ২৭ ঘণ্টা পর তারা কর্মবিরতি তুলে নিলেও রোগী ও স্বজনদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে একটি তদন্ত কমিটি করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বগুড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জেএমবির উত্তাঞ্চলের সামরিক প্রধান নিহত 

37

বগুড়া, ২ মার্চ : বগুড়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জেএমবির উত্তরাঞ্চলের সামরিক প্রধান নিহত হয়েছে। নিহতের নাম আমিজুল ইসলাম ওরফে আল-আমিন ওরফে রনি।

বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে জেলার শেরপুরের ভবানিপুর জামনগর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধ হয়। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত রনি জেএমবির উত্তরাঞ্চলের সামরিক প্রধান বলে জানিয়েছেন বগুড়ার পুলিশ সুপার। তিনি গোদাগাড়ি উপজেলার বুজরুগ রাধারামপুর গ্রামের নুরুল হুদার ছেলে।

বগুড়ার পুলিশ সুপার, শেরপুরের ভবানিপুর জামনগর এলাকায় একটি বাড়িতে বেশ কয়েকজন জেএমবির সদস্যের গোপন বৈঠকের খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় জেএমবির সদস্যরা। পুলিশের পাল্টা গুলিতে রনি গুলিবিদ্ধ হন। উদ্ধার করে বগুড়া শহিদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বগুড়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ 

বগুড়া, ৮ ফেব্রুয়ারি : বগুড়ার কাহালু উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্দেহভাজন দুই ডাকাত নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের পাঁচপীর বাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, দুলাল (৪৫) ও ইব্রাহিম (৪৬)। তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

কাহালু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর-এ-আলম বলেন, একদল লোক ডাকাতির উদ্দেশ্যে জড়ো হয়েছে বলে খবর পায় পুলিশ। পরে ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে ডাকাতরা। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এতে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোরে দুজনেরই মৃত্যু হয়।

ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বগুড়ায় বিএনপির সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা 

7qqkj8ho-copy

বগুড়া, ১০ জানুয়ারি : আগামী ১৯ জানুয়ারী বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে  সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বগুড়া জেলা বিএনপি। আগামী ১৩ জানুয়ারী থেকে ১৯ জানুয়ারী পর্যন্ত এসব কর্মসূচি পালিত হবে।

মঙ্গলবার দলীয় কার্যালয়ে জেলা বিএনপির জরুরী সভায় এসব কর্মসূচি সফল করার জন্য বিএনপির সর্বস্তরের নেতাকর্মী, সমর্থক ও বগুড়াবাসীর প্রতি আহবান জানান দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম। কর্মসূচিতে রয়েছে, দোয়া মাহফিল, আলোচনা সভা, জিয়াবাড়ীতে শীতবস্ত্র বিতরণ ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প।

সভায় বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির  সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, কেন্দ্রীয় নেতা  মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শোকরানা, বিএনপি নেতা ফজলুল বারী বেলাল, অ্যাডভোকেট নাজমুল হুদা পপন, সুজা উদ্দৌলা সন্জু, শ্রমিকদলের সভাপতি  আব্দুল ওয়াদুদ, মহিলা দলের নিলুফা কুদ্দুস, শ্রমিক নেতা  লিটন শেখ বাঘা ও মোশারফ হোসেন স্বপন, যুবদলের মাসুদ রানা, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাইমুম ইসলাম,  ছাত্রদলের শফিকুল ইসলাম শফিক প্রমুখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বিশ্বসেরা শিক্ষক পুরস্কারে মনোনীত বগুড়ার শাহনাজ 

byqzgu8w-copy

বগুড়া, ২৪ ডিসেম্বর : নিজের পেশায় অনবদ্য ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সমাজের সুবিধা বঞ্চিত পথশিশু ও প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষা অর্জনে অবদান রাখায় বিশ্বসেরা শিক্ষক-২০১৭ (গ্লোবাল টিচার প্রাইজ) পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন বগুড়ার শেরপুর উপজেলার শাহনাজ পারভিন। তিনি উপজেলা সদর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মরত এবং পৌরশহরের শান্তিনগরস্থ শেরপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা।

লন্ডনভিত্তিক ভারকি ফাউন্ডেশন বিশ্বের ১৭৯টি দেশ থেকে বিশ হাজার আবেদনকারীর মধ্যে থেকে  ৫০ জনের তালিকা করেন। এই তালিকায় রয়েছে শাহনাজ পারভিনের নাম। প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে গ্লোবাল টিচার পুরস্কারের জন্য শিক্ষক শাহনাজ পারভীনকে মনোনীত করা হয়। তার সঙ্গে ৩৭টি দেশের একজন করে শিক্ষক-শিক্ষিকা রয়েছেন।

সমাজে শিক্ষকের ভূমিকার ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি দিতেই সংস্থাটির পক্ষ থেকে তৃতীয়বারের মত এই পুরস্কার দেয়া হচ্ছে। আগামি বছরের ১৯ মার্চ দুবাইয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে। একইসঙ্গে বিজয়ীদের দেয়া হবে অর্থ পুরস্কার ১০ লাখ মার্কিন ডলার।

শাহনাজ পারভীন ২০১৩ সালে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক শিক্ষক হিসেবে পুরস্কার পান। উপজেলা সদর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতার পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগে সমাজের সুবিধা বঞ্চিত ও প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় গড়ে তুলেছেন। পারিবারিক ও আর্থিক সমস্যার কারণে অনেক শিশু প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ঝড়ে পড়ে। সে সব শিশুদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। স্কুলের পর আরো একটি স্কুল চালিয়ে সমাজের পিছিয়ে পড়া শিশুদের বিনা বেতনে শিক্ষা প্রদান করেন শাহনাজ পারভীন।

২০১৩ সালে তিনি স্বল্প পরিসরে এই কাজটি শুরু করেন। স্বামীর সাহায্য নিয়ে ২০১৫ সালে বাড়ির পাশে অন্য একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে গড়ে তুলেন কর্মজীবী শিশুদের জন্য ‘শেরপুর শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়’। প্রতিদিন বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত চলে এই স্কুলের পাঠ দান কার্যক্রম। বর্তমানে এই স্কুলের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৫০ জনে দাঁড়িয়েছে।

শিক্ষার্থীরা সবাই কর্মজীবী। কেউ বাসার কাজের মেয়ে, কেউ দোকানের কর্মচারি। এসব শিক্ষার্থীর পোশাক, বই, খাতা-কলম সব কিছুই কিনে দেন তিনি। শুধু তাই নয়, শিক্ষার্থী বেশী হওয়ায় নিজ খরচে দুইজন শিক্ষকও নিয়োগ দিয়ে নিয়মিত বেতনভাতাও দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

গ্লোবাল টিচার পুরস্কারের জন্য মনোনিত হওয়ায় আনন্দ প্রকাশ করে শাহনাজ পারভিন প্রতিবেদককে বলেন, ‘চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে দেশ ও জাতির মুখ উজ্বল করতে সবার দোয়া চাই। এই ৫০ জনের তালিকা থেকে বাছাই শেষে টপ টেন এবং চুড়ান্ত বিজয়ী নির্বাচন করা হবে। ‘

শাহনাজ পারভীন ১৯৭৬ সালে বগুড়া জেলার শাহজাহানপুর উপজেলার দাঁড়িগাছা গ্রামে এক শিক্ষক পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। পিতা মরহুম মানিক উল্লাহ ও মাতা মিসেস নুরজাহান বেগম পেশায় শিক্ষক। মায়ের কর্মস্থল শেরপুর পৌরশহরের উলিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৫ সালে পঞ্চম শ্রেণিতে বৃত্তি লাভ করেন।

১৯৯২ সালে শেরপুর শহীদিয়া আলীয়া মাদ্রাসা থেকে কৃতিত্বের সাথে আলিম পাশ করেন। এরপর বগুড়া সরকারী আযিযুল হক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন।

শিক্ষকতা পেশায় যোগদানের পর তিনি বিভিন্ন পত্রিকায় নিয়মিত গল্প, কবিতা, প্রবন্ধ-নিবন্ধ লিখছেন। শাহনাজ পারভীনের সংসার জীবনে দুই মেয়ে রয়েছে। বড় মেয়ে মাসুমা মরিয়ম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে প্রথম বর্ষে অধ্যয়নরত। ছোট মেয়ে আমেনা মুমতারিন শ্রেয়া বগুড়া ক্যান্টঃপাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ে। স্বামী মোহাম্মাদ আলী শেরপুর শহিদীয়া আলিয়া মাদ্রাসায় আরবী প্রভাষক হিসেবে কর্মরত।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বাস কেড়ে নিল ৩ নৃত্যশিল্পীর প্রাণ 

357

বগুড়া, ২১ ডিসেম্বর : বগুড়া শহরতলীর বাঘোপাড়া এলাকায় উত্তরবঙ্গ মহাসড়কে বিআরটিসির বাসের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী তিন নৃত্যশিল্পীসহ ৪ জন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে আহত একজনকে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, বগুড়া শহরের ফুলবাড়ি দক্ষিণপাড়ার আবদুল আলিমের ছেলে আশিক (২০), সদরের বড় ধাওয়াকোলা গ্রামের পরিমলের ছেলে তপু (২২), মহাস্থানের ঝিনুকের ছেলে আবদুর রহিম (১৭) ও সিএনজি চালক আবদুল গফুর (৩০)।

হতাহতরা অটোরিকশায় শেরপুরের একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন।

সদর থানার এসআই শাহজাহান আলী জানান, মহাস্থান ছেড়ে আসা বগুড়া শহরগামী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরতলীর বাঘোপাড়া এলাকায় চলাচল পাম্পের সামনে পৌঁছলে রংপুরগামী বিআরটিসির একটি বাস সেটিকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়।

এতে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলেই নৃত্যশিল্পী আশিক, আবদুর রহিম ও তপু মারা যান।

চালক আবদুল গফুরসহ দু’জন আহত হন। তাদের মধ্যে চালক পরে মারা যান।

নিহত তপুর পরিবারের সদস্যরা জানান, হতাহতদের ৫ জন নাচ-গান করতেন। বগুড়ার মহাস্থান থেকে অটোরিকশা রিজার্ভ করে শেরপুরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যাচ্ছিল তারা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

উত্তরাঞ্চলে ট্রাক ধর্মঘট দ্বিতীয় দিনে 

37

বগুড়া, ২ ডিসেম্বর : পুলিশের চাঁদাবাজি ও হয়রানির প্রতিবাদে উত্তরাঞ্চলের ট্রাক পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন চলছে।

আজ শুক্রবার দ্বিতীয় দিনেও বগুড়া চারমাথা ট্রাক টার্মিনালের সামনে শ্রমিকরা ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে পিকেটিং করছেন।

ধর্মঘটকে কেন্দ্র করে উত্তরাঞ্চলের ব্যবসায়ীরা পড়েছেন বিপাকে। স্থবির হয়ে পড়েছে পণ্য পরিবহন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

উত্তরাঞ্চলে ধর্মঘটে অচল পণ্য পরিবহন 

3456

বগুড়া, ১ ডিসেম্বর : উত্তরাঞ্চলের  অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে ১৬ জেলায় পণ্য পরিবহন অচল হয়ে পড়েছে।

‘উত্তরবঙ্গ ট্রাক, ট্যাংক লরি, কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের’ সাত দফা দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে উত্তরাঞ্চলে অনির্দিষ্টকালের জন্য পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে বন্ধ রয়েছে ১৬ জেলায় পণ্য পরিবহন।

তবে বাস, প্রাইভেটকারসহ অন্যান্য সব যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

বুধবার দুপুরে বগুড়া জেলা ট্রাক মালিক সমিতির কার্যালয়ে ‘উত্তরবঙ্গ ট্রাক, ট্যাংক লরি, কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের’ আন্দোলন বাস্তবায়ন কমিটির সভায় এ ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কমিটির আহ্বায়ক আবদুল মান্নান আকন্দের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে রাজশাহীর সাদরুল ইসলাম ও মাইনুল হক মানা, বগুড়ার খোরশেদ আলম, সিরাজগঞ্জের রেজুয়ান খান ও আকমল হোসেন, গাইবান্ধার মোক্তাদুর রহমান মিঠু ও রোস্তম আলী, দিনাজপুরের সাদাকাতুল বারী, নাটোরের মোস্তারুল ইসলাম আলম প্রমুখ নেতা উপস্থিত ছিলেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বগুড়ায় বিএনপির ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও ওষুধ বিতরণ 

pdn6dy0e

বগুড়া, ২৬ নভেম্বর : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বগুড়ায় ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও ওষুধ বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার শহীদ জিয়াউর রহমানের জন্মস্থান বগুড়ার গাবতলী উপজেলার বাগবাড়ী শহীদ জিয়া ডিগ্রি কলেজে এ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান।

বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, ড্যাব নেতা অধ্যাপক ডাক্তার মওদুদ হোসেন আলমগীর পাভেল, ডাক্তার মামুনুর রশিদ মিঠু, ডাক্তার আজফারুল হাবিব রোজ প্রমুখ।

তারেক রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বগুড়া জেলা বিএনপি ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচির শেষ দিনের এ কর্মসূচিতে সহযোগিতা করে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) বগুড়া জেলা শাখা ও শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ শাখা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

দেশি-বিদেশি মুসল্লিদের সমাগমে বগুড়ায় বিশ্ব ইজতেমা শুরু 

????????????????????????????????????

বগুড়া, ২৪ নভেম্বর : বৃহস্পতিবার বাদ ফজর থেকে বগুড়া শহরতলির ঝোপগাড়ি এলাকায় প্রথমবারের মতো তিনদিনব্যাপী তাবলীগ জামায়াতের বিশ্ব ইজতেমা শুরু হয়েছে। ৪৫ বিঘা জমিতে বিশাল প্যান্ডেলে এরইমধ্যে অনেক দেশি-বিদেশি মুসুল্লি পৌছেঁছেন।

তাবলীগের নীতি নির্ধারণী সুরা সদস্যদের অন্যতম মারকাজ মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা মশিউর রহমান জানান, বগুড়ায় প্রথমবারের মতো এত বড় আয়োজন। এখানে মুসুল্লিদের সুবিধার্থে ২৬ ভাগে ভাগ করা হয়েছে। তিনি জানান, শুধু দেশের বিভিন্ন জেলার নয়; কানাডা, আমেরিকা, সোমালিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, মরক্কো, অস্ট্রেলিয়াসহ অনেক দেশ থেকেও ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা আসছেন।

মেহমানদের চিকিৎসা সেবায় দুটি চিকিৎসা ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। আইন-শৃংখলা রক্ষায় প্রশাসন কাজ করছে।

মুফতি মাওলানা মশিউর রহমান বলেন, ইজতেমায় ইসলামের সুমহান বাণী, তাওহীদ তথা একত্ববাদের দাওয়াত পৌঁছে দেওয়া ও দ্বীন সম্পর্কে সবাইকে জানানোই হচ্ছে তাবলীগের প্রধান কাজ। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই এই আয়োজন।

তিনি আশা করছেন, ১০ লক্ষাধিক মুসল্লি এতে অংশ নেবেন। ২৬ নভেম্বর শনিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে এই ইজতেমা শেষ হবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ধুনটে ধরা পড়েছে ৬০ কেজির বাঘাইড় 

5744

বগুড়া, ২৩ নভেম্বর : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় যমুনা নদীর কুতুবপুর ঘাট এলাকায় জেলেদের জালে ধরা পড়েছে ৬০ কেজি ওজনের বাঘাইড় মাছ। বুধবার সকাল ৮টার দিকে ধুনট পৌর বাজারের আড়াতে এই মাছটি এক হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে ৬০ হাজার টাকায়। মালোপাড়া গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী সুশীল কুমার হাওয়ালদার পাইকারী দরে বাঘাইড় মাছটি কিনেছেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে যমুনা নদীতে নৌকায় চড়ে জাল নিয়ে মাছ শিকারে নামেন চন্দনবাইশা গ্রামের মধু হাওয়ালদার ও তার ৬ সহযোগী। রাতভর নানা প্রজাতির মাছ ধরা পড়ে তাদের জালে। বুধবার ভোরের দিকে হঠাৎ তাদের জালে ধরা পড়ে বড় আকারের একটি বাঘাইড় মাছ। অনেক চেষ্টার পর কৌশলে বাঘাইড় মাছটি নৌকায় তোলেন জেলেরা। বড় আকারের মাছ দেখে মধু জেলের মুখে মধুর হাসি ফুটে ওঠে। পরে বুধবার সকালের দিকে যমুনা নদীর ঘাট থেকে এই মাছটি ভ্যানযোগে ধুনট পৌর বাজারে বিক্রির জন্য আনেন মধু জেলে ও তার সহযোগীরা।

জেলে মধু হাওয়ালদার বলেন, ‘প্রায় ৫০ বছর ধরে যমুনা মাছ ধরে পরিবার পরিজন নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছি। প্রথম বারের মতো এতো বড় বাঘাইড় মাছ জালে ধরা পড়েছে।’

ধুনট পৌরসভার বাজার পরিদর্শক জহুরুল ইসলাম বলেন, ‘বাজারে এর আগে কোনো দিন এতো বড় মাছ উঠেনি। তাই খবর পেয়ে বাঘাইড় মাছটি দেখার জন্য অনেকেই ভিড় করেন।’

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বগুড়ায় দুই ট্রাকের সংঘর্ষে পাঁচ পুলিশসহ নিহত ৭ 

21

বগুড়া, ১৩ নভেম্বর : বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে পুলিশের পাঁচ সদস্যসহ ৭ জন নিহত ও অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার দিনগত রাত ১টা ১০ মিনিটের দিকে উপজেলার ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের মহিপুর বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে ছয়জনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন, শাজাহান ফকির (৩৫), প্রণব রায় (৩২), আলমগীর হোসেন (৩৩), সোহেল (৩২), পুলিশের পরিচ্ছন্নকর্মী শ্যামল দত্ত (৪২), শামুসল হক (৩০) ও অজ্ঞাত (৩৭) এক ব্যক্তি।

আহতদের মধ্যে চারজনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন, পুলিশ সদস্য মনোয়ার (৩০), মশিউর (৩৫), ফজলুল হক (৪৫) ও মিজান (২৫)।

বগুড়া-শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার সোহেল রানা বলেন, কুড়িগ্রাম থেকে ঢাকাগামী পুলিশের একটি ট্রাকের সঙ্গে বগুড়াগামী সাবোঝাই আরেকটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত ও ৯ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়। বাকিরা ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সোহেল রানা আরও জানান, ভাড়া করা ট্রাকে মালামাল নিয়ে পুলিশ সদস্যরা ঢাকা যাচ্ছিলেন। দুর্ঘটনায় তাদের ট্রাকের চালক ও তার সহকারীও (হেলপার) নিহত হয়েছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

হেরোইনসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক 

241

বগুড়া, ৮ নভেম্বর : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় হেরোইনসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। আজ সকাল ১১টায় ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাদের বগুড়া কারাগারে পাঠানো হয়। আটকৃতরা হলো, উপজেলার মবুয়াখালী গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে আলমগীর হোসেন (২৮), বড়বিলা গ্রামের বাজিতুল্লাহ প্রামাণিকের ছেলে মাসুদ রানা (৩৮) ও ধুনট সদরপাড়ার মহির উদ্দিনের ছেলে ফারুক হোসেন (৩০)।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তারা দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক বিক্রি করে আসছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। এসময় ৩০ পুরিয়া হেরোইনসহ ওই তিনজনকে আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সকালে ধুনট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর