১৯ অক্টোবর ২০১৭
সকাল ১১:১৮, বৃহস্পতিবার

জয়পুরহাটে পানি কমতে শুরু করেছে

জয়পুরহাটে পানি কমতে শুরু করেছে 

55

জয়পুরহাট, ২১ আগস্ট : পানি কমতে শুরু করায় জয়পুরহাট জেলায় সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। জেলার তুলসীগঙ্গা নদীর পানি ৬ সেন্টিমিটার ও ছোট যমুনার পানি ৪ সেন্টিমিটার কমেছে।

বন্যায় জয়পুরহাট-বগুড়া আঞ্চলিক মহাসড়কের পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কাছ থেকে বটতলী ব্রিজের নিকটবর্তী বানিয়াপাড়া এলাকা পর্যন্ত ডুবে যাওয়া সড়কের পানি নেমে গেছে। একইভাবে অন্যান্য উপজেলারও অধিকাংশ পাকা ও কাঁচা সড়ক এখন পানির ওপরে উঠে এসেছে। জাগতে শুরু করেছে নিমজ্জিত রোপা আমনসহ অন্যান্য ফসল।

তবে এখনো আক্কেলপুর উপজেলার জামালগঞ্জ-ক্ষেতলাল সড়কের প্রায় ৩০০ কিলোমিটার বন্যার পানিতে ডুবে রয়েছে। তুলসীগঙ্গা নদীর তীরবর্তী ক্ষেতলাল উপজেলার বিলের ঘাট ও এর আশপাশের নিম্নাঞ্চলসহ জয়পুরহাট সদরের ছোট যমুনা নদীর কুঠিরবাড়ি ব্রিজের দক্ষিণ পাশের খনজনপুর ও ভাতসা এলাকার পানি কিছুটা ধীরগতিতে নেমে যাচ্ছে।

জয়পুরহাট জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সহকারী বিভাগীয় প্রকৌশলী এ কে এম নজমুল হাসান জানান, বর্তমানে তুলসীগঙ্গার পানি বিপৎসীমার ১২ সেন্টিমিটার ও ছোট যমুনার পানি ৩৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ ডাকাত নিহত 

04

জয়পুরহাট, ৮ মে : জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি পৌর শহরের বালিঘাটা এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছে।

সোমবার ভোর রাতের দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড তাজা গুলি ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধর করা হয়েছে।

নিহত ডাকাতরা হলেন, পাঁচবিবি উপজেলার রাধাবাড়ি গ্রমের আব্দুস সাত্তারের ছেলে রফিক মিয়া (৩২) ও ক্ষেতলাল উপজেলার ঘুগইল গ্রামের মীর কাশেমের ছেলে মিলন হোসেন (৩৬)। তাদের নামে ডাকাতি, চুরিসহ কমপক্ষে ৪টি করে মামলা রয়েছে।

পাঁচবিবি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল ইসলাম জানান, সোমবার ভোর রাতে পাঁচবিবি পৌর শহরের বালিঘাটা এলাকায় একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে, এমন সংবাদে পুলিশ ওই স্থানে গেলে ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে এবং পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জয়পুরহাটে গুলিবিদ্ধ ডাকাত গ্রেপ্তার 

241

জয়পুরহাট, ১৪ নভেম্বর : গুলিবিদ্ধ অবস্থায় চার ডাকাতি মামলার আসামি ডাকাত রাশেদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। ডাকাত রাশেদ আক্কেরপুর উপজেলার আবাদপুর গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে। জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর-সান্তাহার সড়কের কাঁঠালবাড়ি ব্রিজ এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। গুলিবিদ্ধ ডাকাতকে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান, জয়পুরহাটের  সহকারী পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল।

রবিবার রাত ১টার দিকে আক্কেলপুর থানা পুলিশ প্রাইভেট সিএনজি চালিত আটো-রিকশা নিয়ে রাস্তায় নিয়মিত টহল দিতে যায়। ওই স্থানে ডাকাতরা পাবলিক গাড়ি মনে করে পুলিশের ওই সিএনজি আটক করে মারপিট শুরু করে। এসময় পুলিশ সরকারী সম্পদ ও জানমাল রক্ষার্থে ছয় রাউন্ড গুলি ছোড়ে।

পরে সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রাশেদ নামে ওই ডাকাতকে গ্রেপ্তার করতে পারলেও অন্য ডাকাতরা পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় দুই পুলিশ এসআই আনিস ও এএসআই ওবায়দুরকে আক্কেলপুর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জয়পুরহাটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নিহত 

31

জয়পুরহাট, ২৬ অক্টোবর : জয়পুরহাটের সদর উপজেলায় হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সাফিনুল ইসলাম ওরফে সাফিন (২৯) র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে।

র‌্যাবের দাবি, নিহত সাফিনের বিরুদ্ধে ছয়টি হত্যাসহ মোট ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে একটি হত্যা মামলায় তাকে ফাঁসির দণ্ড দেয়া হয়েছিল। এ মামলায় দীর্ঘদিন পলাতক ছিল সাফিন।

মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার দাদরা-জন্তি গ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত সাফিনুল ইসলাম ওরফে সাফিন জেলার জয়পুরহাট পৌর এলাকার দক্ষিণ দেওয়ান পাড়া মহল্লার নজরুল ইসলামের ছেলে।

র‌্যাব-৫ জয়পুরহাটের ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর হাসান আরাফাত জানান, শীর্ষ সন্ত্রাসী সাফিন তার সহযোগীদের নিয়ে উপজেলার দাদরা-জন্তি গ্রাম এলাকায় অবস্থান করছে গোপন সূত্রে এ খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল সেখানে যায়।

র‌্যাব সদস্যরা ওই গ্রামের মামুন পেট্রোল পাম্পের কাছে পৌঁছালে টের পেয়ে সন্ত্রাসী সাফিন ও তার সহযোগীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে সন্ত্রাসী সাফিন গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হলে তার অপর সহযোগীরা পালিয়ে যায়।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত সাফিনের বিরুদ্ধে ছয়টি হত্যাসহ মোট ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে একটি হত্যা মামলায় তাকে ফাঁসির দণ্ড দেয়া হয়েছিল বলে জানান অধিনায়ক মেজর হাসান আরাফাত।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জয়পুরহাটে পুলিশের সঙ্গে ডাকাতের গুলি বিনিময়, গ্রেফতার ১ 

173

জয়পুরহাট, ১৯ অক্টোবর : জয়পুরহাটের আক্কেলপুর-বগুড়া সড়কে পুলিশ ও ডাকাতদের মধ্যে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ভিকনি ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এসময় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একাধিক ডাকাতি ও হত্যা মামলার আসামি দিলবর (৪৬) ডাকাতকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গুলি বিনিময়ের ঘটনায় আহত দুই পুলিশ সদস্য ও ডাকাতকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

আক্কেলপুর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আক্কেলপুর-বগুড়া সড়কে পুলিশ সদস্যরা অটোরিকশা যোগে টহল দিচ্ছিলেন। গতরাত দেড়টার দিকে ভিকনি ব্রিজ এলাকায় একদল ডাকাত পুলিশের অটোরিকশার গতিরোধ করে হামলা চালায়। এসময় পুলিশ ডাকাতকে লক্ষ্য করে ৭ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। সেখান থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দিলবর ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়।

ডাকাতের হামলায় দুই কনস্টেবল ওবায়দুল ও বিধান আহত হন। আহত পুলিশ সদস্য ও গুলিবিদ্ধ ডাকাতকে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা 

966

জয়পুরহাট, ১৪ অক্টোবর : স্ত্রীর পরকীয়ার সন্দেহে স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্বের জের ধরে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে জয়পুরহাট সদর উপজেলার আমদই ইউনিয়নের হাটুভাঙ্গা গ্রামে বৃহষ্পতিবার দিনগত রাতে।

খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে পুলিশ দুইজনের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ সূত্র ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাটুভাঙ্গা গ্রামের আব্দুল হামিদ (৪০) দীর্ঘ ২৬/২৭ বছর আগে মোহাম্মাদাবাদ ইউনিয়নের করিমনগর গ্রামের ফজলুর রহমানের একমাত্র মেয়ে নাছিমা খাতুনকে (৩৫) বিয়ে করে ঘর সংসার করে আসছেন। তাদের সংসারে রয়েছে মেয়ে মিতু (২০) ও ছেলে রাকিব (১৪)। মেয়ে মিতুরও বিয়ে হয়েছে।

গত কয়েক বছর ধরে স্ত্রী নাছিমা খাতুনের বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগে নির্যাতন চালিয়ে আসছেন স্বামী আব্দুল হামিদ বলে অভিযোগ করেন নাছিমার বাবা ফজলুর রহমান। স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্বের আকার চরম হলে নাছিমা বাপের বাড়ি চলে যায়। বিষয়টি নিয়ে আমদই ইউনিয়ন পরিষদে গত রবিবার বৈঠক হয়।

উভয়ের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ মিমাংসা করে দেন বলে জানান, চেয়ারম্যান শাহানুর আলম সাবু। মিমাংসা করার পাঁচ দিনের মাথায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সহকারী পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল বলেন, প্রাথমিক তদন্তে স্ত্রীকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করার আলামত পাওয়া যায়। পরে স্বামী আব্দুল হামিদ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তদন্তশেষে আরো বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান তিনি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পুকুর থেকে এএসআইয়ের মরদেহ উদ্ধার 

police

জয়পুরহাট, ১৯ আগস্ট : জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহ আলমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে জয়পুরহাট পুলিশ লাইন্সের পুকুর থেকে আলমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, পুকুরে গোসল করতে নেমে শাহ আলমের মৃত্যু হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বিকাল থেকেই শাহ আলমকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে কল বাজলেও রিসিভ করছিলেন না। পরে রাতে পুলিশ লাইন্সের পুকুর পাড়ে তার লুঙ্গি, গামছা ও শার্ট পড়ে থাকতে দেখা যায়। রাত ১০টার দিকে তার মরদেহ পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

জয়পুরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরিদ হোসেন বলেন,  বৃহস্পতিবার বিকাল থেকেই  শাহ আলমকে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে রাতে পুলিশ লাইন্সের পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, পুকুরে গোসল করতে নেমে তার মৃত্যু হয়েছে।

কী কারণে মৃত্যু হয়েছে জানতে চাইলে ওসি বলেন, গোসল করতে নেমে শাহ আলম হয়তো স্ট্রোক করেছিলেন অথবা তার মৃগি রোগ থাকতে পারে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জয়পুরহাটে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ 

84

জয়পুরহাট, ১৮ আগস্ট : জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার রুকিন্দিপুর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পরিতোষ (৪২) ওরফে পরি নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ইয়াবা ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরিতোষ জেলা আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আক্কেলপুর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার রুকিন্দিপুর ঈদগাহ মাঠের কাছে মাদক কেনা-বেচা হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ওই স্থানে পুলিশ অভিযানে চালায়। এসময় মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

পরে সেখান থেকে ডান পায়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মাদক ব্যবসায়ী পরিতোষকে আটক করতে পারলেও অন্য সহযোগীরা পালিয়ে যান।

তার বিরুদ্ধে আক্কেলপুর থানায় ৬টি মাদক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মাইক্রোবাসের চালককে গলা কেটে হত্যা 

66

জয়পুরহাট, ১১ জুলাই : জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বারোকান্দি দুই সীমানা এলাকা থেকে রহিম বাদশা (৩২) নামে এক মাইক্রোবাসচালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি  দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার ডুগডুগি গ্রামের শাদা মণ্ডলের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার বারোকান্দি দুই সীমানা এলাকায় রবিবার রাত দেড়টার দিকে চালককে গলা কেটে হত্যার পর লাশ মাইক্রোবাসের ভেতর রেখে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। স্থানীয়রা সড়কের পাশে রাখা মাইক্রোবাসে গলাকাটা লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয়।

আজ সোমবার সকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে। পুলিশের ধারণা রবিবার রাতের কোনো এক সময় তাকে গলা কেটে হত্যার পর লাশসহ পাঁচবিবি এলাকায় মাইক্রোবাসটি  রেখে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পাঁচবিবি থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পাঁচবিবি থানার ওসি আশরাফুল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য তা জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ধারে পুলিশ তদন্ত করছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আহত ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু 

221

জয়পুরহাট, ১২ জুন :  জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাতসা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদ (৫৩) মারা গেছেন। ভোটের দিন দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে ও গুলি করে আহত করে।

আজ রবিবার ভোরে রাজধানীর ধানমণ্ডির পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ কে আজাদ মারা যান। পারিবারিক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত ৩১ মার্চ দ্বিতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে স্বতন্ত্রভাবে অংশগ্রহণ করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এ কে আজাদ।

গত ৪ জুন ভোট গ্রহণের দিন রাত ১০টার দিকে জয়পুরহাট সদর উপজেলার গোপালপুর ও কোচকুঁড়ি গ্রামের মাঝামাঝি এলাকায় এ কে আজাদকে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। এর পর আহত অবস্থায় তাকে গুলিও করা হয়। একই সঙ্গে নয়ন (৩৪) নামের এক পথচারীকেও গুলি করে দুর্বৃত্তরা।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় এ কে আজাদ ও নয়নকে উদ্ধার করে প্রথমে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটায় সেখান থেকে দুজনকেই বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। এর পর ৫ জুন ভোররাতে দুজনকেই রাজধানীর মহাখালীর মেট্রোপলিটন হাসপাতালে নেয়া হয়।

এরপর অবস্থার অবনতি হলে এ কে আজাদকে ধানমণ্ডির পপুলার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে পারিবারিক সূত্রে জানা যায়। আজ ভোরে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

৫ জুন জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ হোসেন জানান, ভাতসা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদ রাতে (৪ জুন) একই উপজেলার দুর্গাদহ বাজার থেকে মোটরসাইকেলে নিজ বাড়ি কোচকুঁড়ি গ্রামে ফিরছিলেন।

গোপালপুর বাজার পার হয়ে কোচকুঁড়ি গ্রামের কাছাকাছি পৌঁছামাত্র মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে এবং তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। চেয়ারম্যানের চিৎকারে নয়ন নামের এক পথচারী এগিয়ে গেলে উভয়কেই গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ ব্যাপারে কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ গুলিবিদ্ধ ২ 

544

জয়পুরহাট, ৫ জুন : জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাতসা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদকে (৫৩) কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। এর পর আহত অবস্থায় তাকে গুলিও করা হয়। একই সঙ্গে নয়ন (৩৪) নামের এক পথচারীকেও গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার রাত ১০টার দিকে জয়পুরহাট সদর উপজেলার গোপালপুর ও কোঁচকুঁড়ি গ্রামের মাঝামাঝি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গত ৩১ মার্চ দ্বিতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে স্বতন্ত্রভাবে অংশগ্রহণ করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এ কে আজাদ।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় এ কে আজাদ ও নয়নকে উদ্ধার করে প্রথমে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটায় সেখান থেকে দুজনকেই বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

পরে আজ রবিবার ভোররাতে দুজনকেই রাজধানীর মহাখালীর মেট্রোপলিটন হাসপাতালে নেয়া হয়।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ হোসেন জানান, ভাতসা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদ রাতে একই উপজেলার দুর্গাদহ বাজার থেকে মোটরসাইকেলে নিজ বাড়ি কোঁচকুঁড়ি গ্রামে ফিরছিলেন। গোপালপুর বাজার পার হয়ে কোঁচকুঁড়ি গ্রামের কাছাকাছি পৌঁছামাত্র মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে এবং তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

চেয়ারম্যানের চিৎকারে নয়ন নামের এক পথচারী এগিয়ে গেলে উভয়কেই গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ ব্যাপারে কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোল্লা নজরুল ইসলাম বলেন, “কী কারণে, কারা ইউপি চেয়ারম্যান এ কে আজাদের ওপর এ হামলা চালিয়েছে, তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অপরাধী যারাই হোক, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পুলিশ-বিজিবির মাদকবিরোধী অভিযান, গুলিতে নিহত ১ 

6666

জয়পুরহাট, ২ জুন : জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার রতনপুর শালুয়ার মাঠে পুলিশ-বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তরিকুল (৪০) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ সময় দুই বিজিবি সদস্য ও এক পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ২০৬ বোতল ফেনসিডিল ও সাতটি দেশীয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তরিকুল রতনপুর এলাকার চকশিমুলিয়া গ্রামের আয়েজ উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে পাঁচবিবি থানায় মাদক চোরাচালানীর ১১টি মামলা রয়েছে।

সহকারি পুলিশ সুপার (সার্কেল) অশোক কুমার পাল জানান, পাঁচবিবির রতনপুরের শালুয়ার মাঠ সীমান্ত এলাকা দিয়ে চোরাচালানীরা মাদক নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে এমন খবর পেয়ে পুলিশ ও র‌্যাব যৌথভাবে তাদের বাধা দেয়। এ সময় চোরাচালীনারা হাসুয়া, দা-বটি ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে বিজিবি-পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পুলিশ পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে মাদক ব্যবসায়ী তরিকুল গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

এ ঘটনায় পুলিশের কনস্টেবল অন্তিম এবং বিজিবি সদস্য সালাউদ্দিন ও সুফল মন্ডল আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ২০৬ বোতল ফেনসিডিল ও সাতটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে। আহত পুলিশ ও বিজিবি সদস্যদের পাঁচবিবি মহীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত তরিকুলের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী গুলিবদ্ধি 

01

জয়পুরহাট, ২১ জানুয়ারি : জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আয়নাল হোসেন (৩২) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবদ্ধি হয়েছে। তাকে জয়পুরহাট হাসপাতালে ভর্তির পর ভোর চারটায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এএসআই রতন ও কনষ্টেবল আলমাস নামের পাঁচবিবি থানার দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে। তারা পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপস্নেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিত্সা নিয়েছে।

পুলিশ জানায়, মাদক পাচারের গোপন খবর পেয়ে বুধবার রাত ২টার দিকে পাঁচবিবি উপজেলার ফিচকার ঘাট এলাকায় পুলিশ অভিযানে নামে। টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লড়্গ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পুলিশও তাদের লড়্গ্য করে পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এ সময় মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে গেলেও  ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ পাঁচবিবির মহাজন কলোনীর আবুল কাশেম এর মাদক ব্যবসায়ী ছেলে আয়নাল হোসেনকে পায়ের হাটুতে গুলিবদ্ধি অবস্থায় উদ্ধার করে। তার বিরম্নদ্ধে পাঁচবিবি থানায় মাদকের ৫টি মামলা ছাড়াও সে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার মাদকের একটি মামলায় চার বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুই কেজি গাঁজা ও একটি ভটভটি উদ্ধার করারও দাবি করেছে।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম জানান,আয়নাল এর বিরুদ্ধে পাঁচবিবি থানায় মাদকের ৫টি মামলা রয়েছে। সে সিরাজগঞ্জ জেলার একটি মাদক মামলায় চার বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী। মাদক পাচারের খবর পেয়ে তাদের ধরতে গেলে উপজেলার ফিচকার ঘাটে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লড়্গ্য করে গুলি ছোঁড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ এক রাউন্ড গুলি ছুঁড়লে আয়নাল গুলিবদ্ধি হয়। বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতালে তার চিকিত্সা চলছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জয়পুরহাটে ১৪৪ ধারা জারি 

5555

জয়পুরহাট, ২৬ ডিসেম্বর : জয়পুরহাটের কালাই পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির দলীয় মেয়র প্রার্থী ও বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীর একই স্থানে সভা ডাকাকে কেন্দ্র করে ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

শনিবার সকাল ৬টা থেকে কালাই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ১৪৪ ধারা শুরু হয়। এটা বলবৎ থাকবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

জানা গেছে, পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সাজ্জাদুর রহমান সোহেল তালুকদার শনিবার সকাল ১০টায় কালাই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পথসভার অনুমতি চেয়ে থানায় আবেদন করেন।

অন্যদিকে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী আনিছুর রহমান তালুকদার একই স্থানে একই সময়ে সভার অনুমতি চেয়ে আরেকটি আবেদন করেন। তাই আইন-শৃঙ্খলার পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কায় কালাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বাদল চন্দ্র হালদার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারির নির্দেশ দেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

    জয়পুরহাটে ভটভটি উল্টে নিহত ২ 

    full_619482641_1424330407

    জয়পুরহাট, ২০ নভেম্বর : জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলায় ভটভটি উল্টে ২ জন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে বড়তারা ইউনিয়নের কালাই উপজেলা সীমানার নিকটবর্তী ‘খড়িকাটা’ নামক স্থানে  এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন অছিম উদ্দিন (৫৬)  ও  তোফাজ্জল হোসেন(৬৭) নামে দুই ভটভটি যাত্রী। নিহত অছিম উদ্দিন একই উপজেলার আফলা পাড়া গ্রামের মৃত আছির উদ্দিনের ছেলে এবং তোফাজ্জল হোসেন মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে।

    আহদের মধ্যে হালিমা বেগম(১১),আমজাদ হোসেন(৫৩),তাসলিমা বেগম(৩৩),সিনথিয়া বেগম (৫),রেবা বেগম(৪৬),জাহিদুল ইসলাম(১৮),মনোয়ারা বেগম(৪২) ও তাজমহল(৭) নামে ৮জনকে কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানের পর এদের মধ্যে ২জনকে ছেড়ে দেয়া হয়। বাকি ৬জন বর্তমানে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।আহত সকলের বাড়ি কালাই উপজেলার উদয়পুর ইউনিয়নের আফলা গ্রামে।

    ক্ষেতলাল থানার ওসি মনিরুল ইসলাম  ও কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

    পুলিশ, নিহত ও আহতদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে,  রাত ৩টার দিকে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার সরাইল গ্রামে অনুষ্ঠিত ওরশ শরীফ থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে তাদের বহনকারি ভটভটিটি জেলার কালাই ও ক্ষেতলার উপজেলার সীমানার সংযোগস্থল (পাঠানপাড়ার  সন্নিকটে ) খড়িকাটা- নামক স্থানে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে উল্টে গেলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।এ সময় ওই ভটভটিটির প্রায় সব যাত্রী কমবেশি আহত হয়ন।

    এদের মধ্যে অছিম উদ্দিন ও তোফাজ্জল হোসেনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের প্রথমে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল ও পরে সেখান থেকে ঢাকায় স্থানান্তরের পথে পথিমধ্যে সিরাজগঞ্জ এলাকায় তাদের মৃত্যু হয়।

    Share This:

    এই পেইজের আরও খবর