২০ আগস্ট ২০১৭
সন্ধ্যা ৭:৩০, রবিবার

সিরাজগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ২

সিরাজগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ২ 

88822

সিরাজগঞ্জ, ২৭ জুন : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় সলপ ইউনিয়নের নলসন্ধ্যায় ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ শেষে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুরুতর আহত সামিউল ইসলাম লাল ও খায়রুল ইসলামের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোর রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সামিউল ইসলাম লাল (২৭) ও ঢাকার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে খায়রুল ইসলাম শীতল (৩০) মারা যায়।

নিহতেরা হলেন উপজেলার সলপ ইউনিয়নের নলসন্ধ্যার শহিদুল ইসলাম ঠান্ডুর ছেলে খায়রুল ইসলাম শীতল (৩০) ও একই গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে সামিউল ইসলাম লাল (২৭)।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেওয়ান কউশিক আহমেদ উভয়ের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। উল্লাপাড়া মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার পবিত্র কুমার জানান, দীর্ঘদিন যাবত তোফাজ্জল ও ময়নাল গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল।

গত ২৬ জুন সলপ ইউনিয়নের নলসন্ধ্যা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ শেষে ময়নুল গ্রুপের সদস্যরা তোফাজ্জল গ্রুপের লোকজনের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে উভয় গ্রুপের অন্তত ১৫ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এর মধ্যে সামিউল ইসলাম লাল ও খায়রুল ইসলাম শীতলকে প্রথমে উল্লাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

অবস্থার অবনতি হলে লাল ও শীতলকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। মঙ্গলবার ভোর রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যায়। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে বিএনপিকর্মী খুন 

355

সিরাজগঞ্জ, ১৬ জুন : নির্বাচনী বিরোধের জেরে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দেেএক বিএনপিকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দৃর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার রাতে কামারখন্দ-উল্লাপাড়া অঞ্চলিক সড়কের কর্ণসুতি ব্রিজ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম লাল চাঁন (৩৩)। সে উপজেলার কর্ণসুতি গ্রামের ঠান্ডু মন্ডলের ছেলে।

এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন-কর্ণসুতি গ্রামের নুর হোসেনের ছেলে আব্দুস সালাম ও বিষা মন্ডলের ছেলে শিহাব আলী মন্ডল।

এ বিষয়ে কামারখন্দ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম জানান, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে স্থানীয় কয়েকজন লোকের সাথে লাল চাঁনের বিরোধ চলে আসছিলো।

এই ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে তারা লাল চাঁনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাকে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। সেখানে নেয়ার পর রাত ১০টায় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এ ঘটনায় নিহতের পিতা ঠান্ডু মন্ডল বাদী হয়ে কামারখন্দ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান এসআই।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জামায়াত নেতাকে ছিনিয়ে নিলো একদল নারী 

7

সিরাজগঞ্জ, ২৭ এপ্রিল : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় নাশকতার মামলায় আটক জামায়াত নেতা আতাউরকে পুলিশের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গেছে স্থানীয় একদল নারী।

বুধবার বিকালে উপজেলার বাখুঁয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। জামায়াত নেতা উল্লাপাড়া উপজেলার রাখুয়া গ্রামের হাসান আলীর ছেলে।

উল্লাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেওয়ান কউশিক আহমেদ বলেন, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া ও নাশকতার অভিযোগে দায়ের করা প্রায় এক ডজন মামলার আসামি জামায়াত নেতা আতাউরকে গ্রেপ্তারে বিকেলে বাখুয়া গ্রামে অভিযান চালায় পুলিশ।

উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাওছার হোসেনের নেতৃত্বে আতাউরকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর বাড়ি থেকে রাস্তায় বের হলে ওই গ্রামের ৫০/৬০ জন নারী দ্রুত সংঘবদ্ধ হয়ে পুলিশের উপর হামলা চালায়। এ সময় জামায়াত নেতা আতাউর হাতকড়াসহ পালিয়ে যায়।

ওসি বলেন, পুলিশের পক্ষ থেকে বাখুয়া গ্রামবাসীকে বুধবার রাতের মধ্যে জামায়াত নেতা আতাউরকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে দুটি ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৩ 

37

সিরাজগঞ্জ, ২৬ এপ্রিল : বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কের সিরাজগঞ্জের নলকায় দুটি ট্রাকের সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আরো ২ জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ঘটনাস্থলে দুইজন ও হাসপাতালে ভর্তির করার পর আরো একজনের মৃত্যু হয়। নিহত ও আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। আহতদের সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসি আব্দুল কাদের জিলানী জানান, বুধবার সকালে ঢাকা থেকে একটি ট্রাক উত্তরাঞ্চলের দিকে যাচ্ছিলো। ট্রাকটি বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কের সলঙ্গার নলকায় পৌঁছলে চালক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেলে।

এসময় ট্রাকটি সামনে থাকা রড বোঝাই অপর আরেকটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে পেছনে ট্রাকের কেবিনে থাকা ২ যাত্রী ঘটনাস্থলেই মারা যান। আহত হন চালক-হেলপারসহ ৩ জন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে।

আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে অজ্ঞাতনামা আরো একজনের মৃত্যু হয়।

সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডিউটিরত কর্মকর্তা সবুজ রহমান অজ্ঞাতনামা আরো একজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

এক বছরেই বয়স ১৩ থেকে বেড়ে ১৮, অতঃপর বিয়ে! 

index

সিরাজগঞ্জ, ২১ এপ্রিল : এক বছর আগেও মেয়েটির বয়স ছিল ১৩ বছর। স্থানীয় এক স্কুলে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ত। গত বছর বিয়ের উদ্দেশ্যে ১৮ বছর বয়সী প্রেমিকের হাত ধরে বাড়ি ছেড়ে চলে যায়। ক্ষুব্ধ বাবা মেয়েকে ‘১৩ বছরের নাবালিকা’ উল্লেখ করে মামলা ঠুকে দেন মেয়ের প্রেমিক, বাবাসহ চারজনের বিরুদ্ধে। উচ্চ আদালতের নির্দেশে জামিন পেয়ে প্রেমিক মুক্ত হলে মেয়েটি নিজের বাড়ি ছেড়ে উঠে যায় প্রেমিকের বাড়িতে।

এরপর বাবা জোর করে মেয়েকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যান। নিশ্চিন্ত হতে বিয়েও দিয়ে দেন। তবে বিয়ের নিবন্ধনে মেয়ের বয়স এবার ১৮ বছর উল্লেখ করেছেন। মাত্র এক বছরের ব্যবধানে মেয়ের বয়স ১৩ থেকে বেড়ে ১৮ বছর হয়ে যাওয়ার ঘটনা চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে এলাকায়। এখন প্রেমিকের মা এ ঘটনায় উল্টো বিচার দাবি করে বসেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নে। অভিযোগ উঠেছে, বাল্যবিবাহের দায় থেকে বাঁচতে মেয়েটির বাবা মেয়ের বয়স বাড়িয়ে ১৮ বছর উল্লেখ করেছেন। আর এর জন্য জোগাড় করা হয়েছে বয়সের ভুয়া সনদপত্র।

এলাকাবাসী ও থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়েটির সঙ্গে একই গ্রামের ১৮ বছর বয়সী এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি তারা বিয়ে করার উদ্দেশ্যে বগুড়ার শেরপুরে চলে যায়।

এর দুদিন পর ১৬ ফেব্রুয়ারি মেয়ের বাবা কাজীপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। মামলায় প্রেমিক, তাঁর বাবাসহ চারজনকে আসামি করা হয়। মামলার এজাহারে মেয়ের বয়স ১৩ বছর এবং স্থানীয় স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী বলে উল্লেখ করা হয়।

পরবর্তী সময় গ্রামবাসীর সহায়তায় দুই পক্ষের অভিভাবকদের সমঝোতা হয়। ছেলে ও মেয়ে দুজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের বাড়িতে আসার জন্য বলা হয়। ১৭ ফেব্রুয়ারি বাড়িতে আসার সময় দুজনকে থানা-পুলিশ ধুনট এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে মেয়েটিকে তার বাবার হেফাজতে দেওয়া হয় এবং প্রেমিককে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

প্রায় এক বছর কারাগারে আটক থাকার পর এ বছর উচ্চ আদালতের আদেশে প্রেমিক জামিনে ছাড়া পান। খবর পেয়ে মেয়েটি নিজ বাড়ি ছেড়ে প্রেমিকের বাড়িতে এসে ওঠে। ক্ষুব্ধ বাবা এবার মেয়েকে জোর করে বাড়িতে নিয়ে যান।

মেয়ে যেন আবার এ কাণ্ড না ঘটাতে পারে সে কারণে চটজলদি মেয়ের বিয়ে ঠিক করে ফেলেন। গত ৩ মার্চ মেয়েকে পাশের গ্রামের এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে (নিবন্ধন নম্বর ২০/২০১৭, পাতা নম্বর ৭১) দেন। নিবন্ধনে মেয়ের বয়স ১৮ বছর উল্লেখ করা হয়েছে। আর তা নিয়েই ঘটেছে বিপত্তি।

এক বছরে কীভাবে একজনের বয়স পাঁচ বছর বেড়ে গেল, তা নিয়েই শুরু হয়েছে আলোচনা। অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের কাছ থেকে ভুয়া বয়সের জন্মসনদ সংগ্রহ করে বিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তবে মেয়ের বয়স ১৮ বছর ৬ মাস বলে দাবি করেছেন বাবা। মুঠোফোনে তিনি বলেন, ‘আমার মেয়ে প্রথমে গ্রামের স্কুলে পড়ে। পরে কারিগরি স্কুলে ভর্তি করা হলেও বেশি দিন পড়েনি। সে নাবালিকা নয়।

এর আগে মেয়েকে নাবালিকা উল্লেখ করে মামলা করেছিলেন কেন? জানতে চাইলে তিনি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। এরপর যোগাযোগ করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।

মেয়েটি যে স্কুলে পড়ত সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফরিদ উদ্দিন বলেন, মেয়েটি সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। তবে সে অনিয়মিতভাবে স্কুলে আসত।

বিয়ের কাজি বেলাল হোসেন বলেন, ‘বর-কনের বয়সের সনদ দেখেই বিয়ে নিবন্ধন করা হয়েছে। তাঁরা কীভাবে কোথা থেকে সনদ এনেছেন, এটি দেখার দায়িত্ব আমার না।’

বিয়েতে সাক্ষী কনের এক আত্মীয় জানান, চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বয়সের সনদপত্র আনা হয়েছে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমার কার্যালয় থেকে জন্মসনদ দেওয়া হয়েছে কি না, তা না দেখে বলা কঠিন। যদি তা দেওয়া হয়ে থাকে তবে তা আমার অজান্তে হয়েছে।’

এদিকে প্রেমিকের মা ছেলের বিরুদ্ধে মামলা ও এক বছর জেল খাটার ঘটনায় মেয়ের পরিবারের বিচার চেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘ওই মেয়ে নাবালিকা বলে আমার ছেলেকে জেল খাটতে হয়েছে। সেই নাবালিকা মেয়েকে কীভাবে বিয়ে দেওয়া হলো। তাহলে আমার ছেলেকে অন্যায়ভাবে কেন শাস্তি দেওয়া হলো। কে দেবে আমার এই বিচার?’

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বিএনপি নেতা টুকু কারাগারে, কাল সিরাজগঞ্জে হরতাল 

সিরাজগঞ্জ, ১০ এপ্রিল : নাশকতার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু তিনটি মামলায় আইনজীবীর মাধ্যমে সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

জামিনের শুনানি শেষে বিচারক জাফরোল হাসান জামিন নামঞ্জুর করে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে আগামীকাল মঙ্গলবার সিরাজগঞ্জে ভোর ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত হরতাল ডেকেছে জেলা বিএনপি।

জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক রাশেদুল হাসান রঞ্জন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে ইকবাল হাসান মাহমুদকে কারাগারের পাঠানোর আদেশ দিলে তাৎক্ষণিক দলীয় নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। এ সময় আদালত চত্বরে শত শত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুর রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর আইনজীবী ইন্দ্রজিত সাহা, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি রুহুল আমিন বাবু, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোকাদ্দেছ আলী শুনানিতে অংশ নেন।

মামলার নথি ও আইনজীবীদের সূত্রে জানা যায়, ছাত্রদল নেতা শহীদ নাজির উদ্দিন জেহাদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ২০১০ সালের ১১ অক্টোবর  সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদের মুলিবাড়িতে ছাত্র গণজমায়াতের আয়োজন করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসন ও তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া। সমাবেশ চলাকালে দ্রুতগতির একটি ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে বিএনপির ছয় কর্মী মারা যান।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ জনতা ট্রেনে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হোসেন, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি গোলাম হায়দার, সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক কে.এম সাইফুল ইসলাম, তৎকালীন র‌্যাব-১২ এর ডিএডি আবু বকর সিদ্দীক, বঙ্গবন্ধু পশ্চিম থানার এসআই আছলাম আলী, দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর জিআরপি থানার এএসআই গোলাম তৌহিদ, সিরাজগঞ্জ বাজার জিআরপি থানার এএসআই কাজী মো. সাইদুর রহমান বাদী হয়ে মোট সাতটি মামলা দায়ের করেন।

এসব মামলায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুসহ কয়েক হাজার নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়। ইতিমধ্যে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে বাসচাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত 

সিরাজগঞ্জ, ১০ এপ্রিল : সিরাজগঞ্জে বাসচাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী দুই ভাইসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সিরাজগঞ্জ-কড্ডা আঞ্চলিক সড়কের বনবাড়িয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কামারখন্দ উপজেলার চৌবাড়ী পশ্চিমপাড়া গ্রামের হবি হাজির দুই ছেলে আব্দুস সোবাহান (৩৫) ও বেলাল হোসেন (৩২) এবং একই গ্রামের মাহাম প্রামনিকের ছেলে আল-আমিন (৩০)।

আহতরা হলেন- হবি হাজি ও তার অপর ছেলে হেলাল উদ্দিন। তাদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সদর থানার ওসি হেলাল উদ্দিন জানান, জেলার কামারখন্দ উপজেলার বলরামপুর থেকে একটি সিএনজি অটোরিকশা পাঁচ যাত্রী নিয়ে সিরাজগঞ্জে যাচ্ছিল। পথে সদর উপজেলার কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নের বনবাড়ীয়া এলাকায় পৌঁছলে সিরাজগঞ্জ থেকে এনায়েতপুর গামী আমীন পরিবহনের একটি বাস অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে আল-আমিন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হন চারজন। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে আব্দুস সোবাহান ও বেলাল হোসেন মারা যান।

দুর্ঘটনার পর ঘাতক বাসটি পালিয়ে যায় বলেও জানান ওসি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ওবায়দুল কাদেরের হেলিকপ্টারের জরুরি অবতরণ 

7744

সিরাজগঞ্জ, ৬ মার্চ : আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল জলিলের স্মরণ সভায় যোগ দিতে নওগাঁ যাওয়ার পথে ঝড়ের কবলে পড়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে বহনকারী একটি হেলিকপ্টার।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় পৌঁছার পর হঠাৎ ঝড় শুরু হয়। এ সময় দেশীগ্রাম ইউনিয়নের খিরসিন আদিবাসী পল্লী এলাকায় হেলিকপ্টারটি জরুরি অবতরণ করে।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিলের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় যোগ দিতে একটি হেলিকপ্টারে করে নওগাঁ যাচ্ছিলেন ওবায়দুল কাদের। তার সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

এ সময় জাহাঙ্গীর কবির নানক স্থানীয় নেতাকর্মীদের জানান, মেঘ, ঘন কুয়াশা ও আবহাওয়া খারাপ থাকায় দিক নির্ণয় করতে না পারায় পাইলট হেলিকপ্টারটি তাড়াশের দেশীগ্রামে জরুরি অহতরণ করতে বাধ্য হয়। ৪০ মিনিট পর আবহাওয়া ঠিক হলে হেলিকপ্টারটি নওগাঁও উদ্দেশে রওনা হয়।

খবর শুনে মুহূর্তের মধ্যে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন তাড়াশ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আব্দুল হক, দেশীগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুসসহ শত শত নেতাকর্মী।

সংক্ষিপ্ত সময়ে ওবায়দুল কাদের দলের খোঁজ খবর নেন এবং নেতার্মীদের দলকে সুসংগঠিত করার দিক-নির্দেশনা দেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সাংবাদিক শিমুল হত্যা: ভিডিও দেখে আটক আরও এক 

38798

সিরাজগঞ্জ, ৪ মার্চ : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুর বাড়িতে হামলার সময় গুলিতে সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যার ঘটনায় আরও একজনকে আটক করেছে পুলিশ। ওই ঘটনার ভিডিওচিত্র দেখে তুফান নামে ৩২ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয় বলে জানিয়েছে বাহিনীটি।

শুক্রবার গভীর রাতে শাহজাদপুর পৌর এলাকার দরগাহপাড়া এলাকা থেকে তুফানকে আটক করা হয়। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দা।

শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ও শিমুল হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম শনিবার সকালে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, তুফানের নাম মামলার এজাহাওে ছিল না। তবে ভিডিও ফুটেজ দেখে তাকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে এই হত্যা মামলায় মোট ১৩ জনকে আটক করা হলো।

গত ২ ফেব্রুয়ারি ছাত্রলীগের একাংশের সঙ্গে পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুর সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সেদিন প্রতিপক্ষের লোকজন মেয়রের বাড়িতে আক্রমণ করে। এ সময় মেয়রের বাড়ি থেকে গুলি হয় আর এতে আহত হন দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি শিমুল। এর পরদিন ঢাকায় আনার পথে শিমুলের মৃত্যু হয়। পরে ওই সংঘর্ষেও ঘটনায় প্রকাশিত এক ভিডিওতে মেয়র মিরুকে শটগান হাতে দেখা যায়।

শিমুল হত্যার ঘটনায় ৩ ফেব্রুয়ারি রাতে নিহতের স্ত্রী নুরুন নাহার বেগম মেয়র মিরু ও তাঁর ভাইসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ ও ২৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা করেন। আর পুলিশ মিরুর বাড়ি থেকে ৪৩টি গুলি ও ছয়টি গুলির খোসা উদ্ধার করে পুলিশ, জব্দ করা হয় মেয়রের লাইসেন্স করা শটগান।

৪ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুরে সাংবাদিক শিমুলের জানাজায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শাহজাদপুর সার্কেল) আবুল হাসনাত এই হত্যার জন্য মেয়র মিরুকে দায়ী করেন। তিনি বলেন, ‘ঘটনার সময় আমি সেখানে উপস্থিত ছিলাম। মেয়রকে বারবার বারণ করার পরও তিনি গুলি ছোড়েন। একাধিক গুলি করেন মেয়র। অন্য কোনো পক্ষ গুলি করেনি।’

পুলিশের এই অভিযানের আগেই আত্মগোপনে চলে যান মেয়র মিরু। তবে ৫ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর শ্যামলী এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। এরই মধ্যে সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলায় মিরুকে দুই দফায় রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। প্রথম দফায় ১৩ ফেব্রুয়ারি পাঁচ দিনের এবং পরের দফায় ২৮ ফেব্রুয়ারি মেয়র মিরু ও তার ভাই মিন্টুকে দুই দিনের জন্য রিমান্ডে পায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে ট্রাকচাপায় নিহত ২ 

সিরাজগঞ্জ, ৩ মার্চ : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলায় ট্রাকচাপায় ভ্যান চালকসহ দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

উপজেলার শ্রীকোলা মোড়ে বগুড়া-নগরবাড়ী মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৪ 

সিরাজগঞ্জ, ১৮ ফেব্রুয়ারি : সিরাজগঞ্জে বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন। আজ শনিবার বিকেল পৌনে চারটায় বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহা সংযোগসড়কে কামারখন্দ উপজেলার কোনাবাড়ী নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা বলেন, ঢাকা থেকে পাবনাগামী নাইটস্টার পরিবহন এবং উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকাগামী একটি মালবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়।

নিহত দুজন বাস ও ও ট্রাকের চালক। অন্যদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি। আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। এ ঘটনায় সড়কে এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ গিয়ে দুর্ঘটনাকবলিত যানবাহন সরিয়ে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণের ট্রেন চলাচল বন্ধ 

সিরাজগঞ্জ, ৭ জানুয়ারি : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া রেলস্টেশনে মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হওয়ায় উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার রেলযোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। শুক্রবার দিবাগত রাত সোয়া ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আজ শনিবার সকাল ৯টার দিকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

উল্লাপাড়া রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার মো. সামসুল আলমের ভাষ্য, ভারত থেকে আসা পাথরবোঝাই মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিনের পয়েন্ট সেটিংয়ে (এক লাইন থেকে অন্য লাইনে যাওয়ার সংযোগস্থল) ভুল হওয়ায় ছয়টি চাকা লাইনচ্যুত হয়। এতে ১ ও ২ নম্বর লাইনটি বন্ধ হয়ে গেছে।

ঢাকার সঙ্গে উত্তরাঞ্চলের ১৬ জেলা এবং খুলনা, যশোর, কুষ্টিয়া ও চুয়াডাঙ্গার সব ধরনের ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। পদ্মা, রংপুর, একতা, নীলসাগরসহ ছয়টি আন্তনগর ট্রেন বিভিন্ন জায়গায় আটকা পড়েছে। যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়েছেন।

সামসুল আলম আরো জানান, ঈশ্বরদী থেকে উদ্ধারকারী ট্রেন সকাল সোয়া ৮টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে ট্রাক খাদে পড়ে নিহত ২ 

সিরাজগঞ্জ, ২৯ ডিসেম্বর : সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে আলু বোঝাই ট্রাক খাদে পড়ে দুই ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। এতে আরও এক ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। আজ সন্ধ্যার আগে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক হতাহতদের নাম জানা যায়নি।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক জামিল হোসেন জানান, উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকাগামী আলু বোঝাই  ট্রাকটি কড্ডার মোড় এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে খাদে পড়ে যায়।

এসময় ট্রাকের উপরে থাকা তিন ব্যবসায়ী আলুর বস্তার নিচে পড়ে গুরুতর আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত একজনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লোভের ফাঁদে পড়ে থানা হেফাজতে কলেজছাত্রী 

সিরাজগঞ্জ, ৯ ডিসেম্বর : সিরাজগঞ্জে লোভের ফাঁদে পড়ে মনিকা এক্কা (১৭) নামে এক কলেজছাত্রীর ঠাঁই হয়েছে থানা হেফাজতে। বৃহস্পতিবার রাতে তাড়াশ উপজেলা সদরের বারোয়ারী বটতলা এলাকায় লোভের ফাঁদে পড়ে প্রতারণা করার সময় কলেজ ছাত্রীকে আটকে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয়রা।

আটক মনিকা এক্কা উপজেলার তালম ইউনিয়নের গুল্টা গ্রামের সরেস এক্কার মেয়ে ও গুল্টা শহীদ এম. মনসুর আলী ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

তাড়াশ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মনজুর রহমান জানান, একটি প্রতারক চক্র কলেজ ছাত্রী মনিকাকে ফোন দিয়ে ত্রিশ লক্ষ টাকা লটারিতে পেয়েছে বলে লোভ দেখায়। আর টাকা পেতে হলে তাকে ত্রিশ হাজার টাকা বিকাশ করতে বলা হয়।

লোভে পড়ে কলেজ ছাত্রী মনিকা বটতলা এলাকায় গিয়ে সাধনা ডিপার্টমেন্টাল স্টোর থেকে ০১৭০৮-৮৮৩৮৭১ নম্বরে বিকাশের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা পাঠিয়ে দেয়। কিন্তু টাকা পাঠানোর পর থেকে নম্বরটি বন্ধ পাওয়ায় মেয়েটি বিপদে পড়ে যায়। এ অবস্থায় মেয়েটি দোকান মালিককে টাকা না  দিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে তাকে আটকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

তিনি আরো জানান, প্রতারক চক্রটির নম্বর ট্যাক করে লোকেশন শনাক্ত করা হয়েছে। তাদেরকে আটকের চেষ্টা চলছে। অন্যদিকে, মেয়েটির পরিবার বিষয়টি সমঝোতার চেষ্টা করছে।

সমঝোতা না হলে মামলা হবে বলে তিনি জানান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সিরাজগঞ্জে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১ 

58

সিরাজগঞ্জ, ১ ডিসেম্বর : সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুলাল হোসেন (৪২) নামে একজন নিহত হয়েছেন।

র‌্যাবের দাবি, নিহত দুলাল ডাকাত দলের সদস্য।

বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কামারখন্দ উপজেলার ঝাঐল ফুটওভার ব্রিজের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

র‌্যাব-১২-এর সিরাজগঞ্জ ক্যাম্প কমান্ডার হাসিবুল আলম জানান, দুলাল হোসেন বেলকুচি উপজেলার সমেশপুর গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি শুটারগান, সাতটি গুলি ও একটি রামদা উদ্ধারেরও দাবি করেছে র‌্যাব।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর