২২ জুলাই ২০১৭
দুপুর ২:৫৫, শনিবার

শ্রীপুরে ৫০ কেজি গাঁজাসহ আটক ১

শ্রীপুরে ৫০ কেজি গাঁজাসহ আটক ১ 

5

গাজীপুর, ২১ জুলাই : গাজীপুরের শ্রীপুরে আবু (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে ৫০ কেজি গাঁজাসহ আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার মাওনা চকপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক আবু ওই এলাকার মৃত আহাত মিয়ার ছেলে।

শ্রীপুর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক মো. লুৎফর রহমান জানান, শুক্রবার ভোরে মাওনা চকপাড়া এলাকায় আবুর বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় তার বাড়ি থেকে ৫০ কেজি গাঁজাসহ তাকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানায় একটি মাদক মামলা করা হয়েছে। পরে আটক আবুকে গাজীপুর আদালতে পাঠানো হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ঘুষের টাকাসহ নৌপরিবহনের প্রধান প্রকৌশলী গ্রেপ্তার 

04

ঢাকা, ১৮ জুলাই : নৌপরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী একেএম ফখরুল ইসলামকে ঘুষ গ্রহণকালে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে দুদকের একটি টিম ৫ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণকালে হাতেনাতে ফখরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে।

মঙ্গলবার দুদকের উপরিচালক ও টিম সদস্য ইব্রাহিম হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য জানান, ফখরুল ইসলাম একজন ঠিকাদারের কাছ থেকে ঘুষ নেবেন এ বিষয়টি দুদক আগে থেকেই জানতো। সে অনুযায়ী দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে একটি দল আগে থেকে ফাঁদ পেতে ছিল। বেলা দুইটার দিকে ওই ঠিকাদারের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা নিচ্ছিলেন ফখরুল ইসলাম। এ সময় ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বর্তমানে প্রধান প্রকৌশলী একেএম ফখরুল ইসলামকে মতিঝিল থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বেনাপোলে যাত্রীর জুতায় ৫টি স্বর্ণের বার, আটক ১ 

7356

যশোর, ১৭ জুলাই : যশোরের বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারকালে এক পাসপোর্ট যাত্রীর জুতার ভেতর থেকে ১ কেজি ২৫০ গ্রাম ওজনের ৫টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার সকালে বেনাপোল চেকপোস্ট এলাকা থেকে ওই স্বর্ণের বারগুলো উদ্ধার করেছে বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ।

আটক পাসপোর্ট যাত্রী সেলিম হাওলাদার (৪৫) মুন্সিগঞ্জ জেলার বলাই টঙ্গিবাড়ি এলাকার শামসুল হক হাওলাদারের ছেলে।

বেনাপোল বন্দরের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ও শুল্ক গোয়েন্দা আব্দুল মুতালিব জানান, তারা গোপন সূত্রে জানতে পারেন, একজন পাসপোর্ট যাত্রী স্বর্ণের বার নিয়ে ভারতে যাচ্ছেন।

এই তথ্যের ভিত্তিতে বন্দর চেকপোস্টে তল্লাশি চালিয়ে পাসপোর্ট যাত্রী সেলিম হাওলাদারের জুতার ভেতর থেকে ৫টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন এক কেজি ২৫০ গ্রাম।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নারায়ণগঞ্জে ১ লাখ ৬৭ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২ 

55

নারায়ণগঞ্জ, ১৬ জুলাই : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক মার্কেটের সামনে থেকে একটি ট্রাক থেকে ১ লাখ ৬৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ মো. নুরুল ইসলাম ও মো. আলম নামে দুই মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রবিবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ল ১৫-২২১৩) থেকে ১ লাখ ৬৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ তাদের আটক করা হয়।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চালানটি আটক করা হয়েছে। আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বেনাপোলে স্বর্ণসহ নারী গ্রেফতার 

244

বেনাপোল, ১৫ জুলাই : শুল্ক গোয়েন্দা আজ শনিবার সকালে বেনাপোলে আবারো বিশেষভাবে লুকায়িত ২ কেজি ৭৫ গ্রাম স্বর্ণের বারসহ একজন নারীকে আটক করেছে।

যাত্রীর নাম বেগম রোকসানা। বয়স ৩০ বছর। স্বর্ণের বারগুলো যাত্রী স্কচটেপ দিয়ে শরীরে লুকিয়ে রেখেছিল।

শুল্ক গোয়েন্দা জানায়, সকাল ৯টায় বেনাপোল চেকপোস্ট পার হয়ে ভারতে প্রবেশের পথে এই যাত্রীকে শনাক্ত করা হয়। পরে নারী কর্মকর্তা দ্বারা ওই নারীর শরীর তল্লাশি করে এই স্বর্ণ উদ্ধার করেন। এর মূল্য প্রায় ১.৩৫ কোটি টাকা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

তারেকের শাশুড়ির দুর্নীতির মামলা বাতিল 

82

ঢাকা, ১৩ জুলাই : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের শাশুড়ি সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে সম্পদের হিসাব-সংক্রান্ত দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের মামলা বাতিল করেছেন আপিল বিভাগ।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

একই সঙ্গে সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুকে সম্পদের হিসাব চেয়ে নতুন করে নোটিশ দিতে দুদককে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি সম্পদের হিসাব-সংক্রান্ত দুদকের মামলা ও সম্পদের হিসাব চেয়ে পাঠানো নোটিশ বাতিল চেয়ে সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর আবেদন খারিজ করে দেন হাইকোর্ট।

পরে হাইকোর্টের এই খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে একই বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি লিভ টু আপিল করেন ইকবাল মান্দ বানু। সেই লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে আদালত আজ ওই আদেশ দেন।

জানা গেছে, ২০০৭ সালের ২৯ মে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সম্পদ বিবরণী দাখিলের আদেশ জারি করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে তারেক রহমানের দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে চার কোটি ২৩ লাখ ৮,৫৬১ দশমিক ৩৭ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনসহ সর্বমোট চার কোটি ৮১ লাখ ৫৩,৫৬১ দশমিক ৩৭ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়।

পরবর্তী সময়ে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর কাফরুল থানায় তারেক রহমান, স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান ও শাশুড়ি ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক।

সূত্র আরো জানায়, ওই চার কোটি ৮১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৬১ দশমিক ৩৭ টাকার জ্ঞাত আয়ের উৎসবহির্ভূত সম্পদের মধ্যে জোবাইদা রহমানের নামে ৩৫ লাখ টাকার এফডিআর পাওয়া যায়।

তারেক রহমানের দাবি অনুসারে, ওই এফডিআরের অর্থ তার শাশুড়ি ইকবাল মান্দ বানু মেয়ে জোবাইদা রহমানকে দান করেছেন।

দুদকের তদন্তে ওই দাবির সত্যতা পাওয়া যায়নি। বরং জোবাইদা রহমান ও ইকবাল মান্দ বানুর মাধ্যমে তারেক রহমানের অবৈধ আয়কে বৈধ করার অপচেষ্টায় সহায়তা করেছে মর্মে প্রমাণিত হয়।

পরবর্তী সময়ে ২০০৮ সালের ৩১ মার্চ আদালতে মামলাটির চার্জশিট দাখিল করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

শাহজালালে ল্যাপটপ ভেঙে ৯টি স্বর্ণের বার উদ্ধার 

52222

ঢাকা, ১৩ জুলাই : সিঙ্গাপুর থেকে আসা হুমায়ুন কবির নামে এক যাত্রীর ল্যাপটপ ভেঙে ৯টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা।

বুধবার রাতে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে এসব স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। এরপর হুমায়ুন কবিরকে আটক করা হয়। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা থানার ভবের বাজারের হাতিনাকান্দায়।

শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচালক ড. মইনুল খান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দা দল বিমানের ফ্লাইট বিজি-০৮৫ অবতরণের পূর্বে সতর্ক অবস্থান গ্রহণ করে।

রাত সাড়ে ৯টায় সিঙ্গাপুর থেকে ফ্লাইটটি অবতরণের পর ওই যাত্রীকে নজরদারিতে রাখা হয়। গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার পর তাকে চ্যালেঞ্জ করে সব ব্যাগেজ পরীক্ষা করা হয়। একপর্যায়ে তার কাছে রক্ষিত ল্যাপটপের স্ক্যানিং ইমেজে সন্দেহজনক কিছু দেখা যায়।

এরপর ল্যাপটপ ভেঙে ৯টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। এছাড়া ওই যাত্রীর কাছ থেকে আরও ৯৪ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কারও উদ্ধার করা হয়েছে।

স্বর্ণের বারগুলো ল্যাপটপের মাদারবোর্ডের ভেতরে স্কচটেপ দিয়ে আটকানো ছিল। এ বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি অভিযুক্ত ওই যাত্রীকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হচ্ছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বেনাপোলে যাত্রীর জুতার ভেতরে ৭টি স্বর্ণের বার 

74

বেনাপোল, ১২ জুলাই : ভারতে পাচারের সময় যশোরের বেনাপোল চেকপোস্ট থেকে ৭টি স্বর্ণের বারসহ পারভেজ (২৮) নামে এক পাসপোর্ট যাত্রীকে আটক করেছে কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দারা।

বুধবার সকাল ১০টায় চেকপোস্ট পার হওয়ার সময় তাকে আটক করা হয় বলে জানান বেনাপোল কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দা অফিসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা চান মাহামুদ খান।

আটক পারভেজ নারাণগঞ্জের বন্দর থানার দক্ষিণ লক্ষণখোলা গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে।

মাহামুদ খান বলেন, চেকপোস্ট পার হয়ে ভারতে যাওয়ার আগ মুহূর্তে তার চলাচল দেখে সন্দেহ হলে তাকে তল্লাশি করা হয়। এসময় তার জুতার ভেতর থেকে সাতশ’ ২৫ গ্রাম ওজনের সাতটি স্বর্ণের বার পাওয়া যায়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

টেকনাফে ৮০ লাখ টাকার ইয়াবা উদ্ধার 

61

কক্সবাজার, ১১ জুলাই : কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্তে ৮০ লাখ টাকা মূল্যমানের ১৬ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার বিকালে এসব ইয়াবাগুলো উদ্ধার করে কোস্টগার্ড।

কোস্টগার্ড টেকনাফ ষ্টেশন কমান্ডার লে. জাফর ইমাম সজীব জানান, টেকনাফ শাহপরীরদ্বীপের কন্টিজেন্ট কমান্ডার এম সোহরাব হোসেনের নেতৃত্বে একটি টহলদল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শাহপরীরদ্বীপ ডেইল পাড়া এলাকায় একজন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে ধরার চেষ্টা করে। এসময় ঐ সন্দেহভাজন ব্যক্তির পিছু নিলেও তাকে ধরতে পারেনি।

তার ফেলে যাওয়া একটি ব্যাগ তল্লাশি করে ১৬ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। উদ্ধার ইয়াবার আনমানিক মূল্য ৮০ লাখ টাকা বলে জানা যায়। তিনি আরো জানান, উদ্ধারকৃত ইয়াবাগুলো থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রংপুরে চোলাই মদসহ গ্রেফতার ১ 

568

রংপুর, ১০ জুলাই : রংপুরের বদরগঞ্জে ৫০ লিটার চোলাই মদসহ মোস্তফা (৪৬) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার গভীর রাতে উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের চানকুঠি এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার মোস্তফা চানকুঠি এলাকার হেফাজ উদ্দিনের ছেলে।

মোস্তফার বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে বলে জানান বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতারুজ্জামান প্রধান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ঠাকুরগাঁওয়ে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক 

885

নীলফামারী, ৯ জুলাই : চার’শ পিস ইয়াবাসহ শাহজাহান আলী(২৪) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১৩ নীলফামারী ক্যাম্পের অভিযানিক দল। ঠাকুরগাঁও জেলা সদরের ভাওলার হাট বাজার এলাকা থেকে শনিবার সন্ধ্যার দিকে তাকে আটক করা হয়।

শাহজাহান একই জেলার কাঁচনা গ্রামের মহসিন আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১৩’র ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-২(সিপিসি-২) সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইয়াবাসহ তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছে থাকা একটি মোবাইল ফোনও জব্দ করে অভিযানিক দল।

এ ব্যাপারে ক্যাম্পের উপ-সহকারী পরিচালক(ডিএডি) ইয়ার আলী বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি মামলা করেছেন। রাতেই তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ক্যাম্প কমান্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কাশেম জানান, সেখানে দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্র ইয়াবা ব্যবসা করে আসছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে শাহজাহানকে আটক করা হয়। চক্রের সবাইকে ধরতে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান আবুল কাশেম।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নাটোরে মাদকসহ আটক ২ 

55

নাটোর, ৮ জুলাই : নাটোরের নলডাঙ্গায় ইয়াবা ট্যাবলেট ও হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। আজ শনিবার ভোরে উপজেলার মাধনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন-উপজেলার পশ্চিম মাধনগর গ্রামের দুলাল মণ্ডলের ছেলে জেন্টু মণ্ডল (৩৮) ও মৃত মাছিম বেগের ছেলে মজনু বেগ (৪৫)।

নলডাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটকদের দেহ তল্লাশি করলে জেন্টুর কাছে হেরোইন ও মজনুর কাছে ২৭ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়। এ ঘটনায় থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

কোচিং বাণিজ্যের বিরুদ্ধে দুদকের অভিযান শুরু 

778

ঢাকা, ৬ জুলাই : এবার কোচিং বাণিজ্যের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। কোচিং বাণিজ্যে জড়িত রাজধানীর নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। অসৎ শিক্ষকদের চিহ্নিত করতে এরই মধ্যে পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের নাম সংগ্রহ করা হবে।

সূত্র জানায়, রাজধানীর অলিগলি, পাড়া-মহল্লায় কোচিং বাণিজ্যে জড়িত অসৎ শিক্ষকদের কোচিং আস্তানা খুঁজছেন দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের ছয় সদস্যের বিশেষ অনুসন্ধান টিমের সদস্যরা। তারা বিভিন্ন এলাকায় সরেজমিন ও নানা সোর্সের মাধ্যমে ওই সব শিক্ষকের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করছেন। পরে স্কুল-কলেজ থেকে পাওয়া তালিকার সঙ্গে তাদের নাম মিলিয়ে দেখা হচ্ছে।

দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ এ প্রতিবেদককে বলেন, যারা সরকারি শিক্ষক এবং যারা এমপিওভুক্ত, তারা ক্লাসে শিক্ষাদান করবেন_ এটাই নিয়ম। সরকারি অনুমোদন ছাড়া এর বাইরে যদি তারা কিছু (কোচিং) করেন, সেটা আমরা দুর্নীতির মধ্যেই ফেলব। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, কোচিং বাণিজ্য নিয়ে জনসাধারণের মধ্যে এক ধরনের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা রয়েছে। এই কোচিং বাণিজ্যের কারণেই অনেক অভিভাবক শিক্ষার্থীদের স্কুলে পড়াতে আগ্রহী হন না। শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটা সমতা আনতেই কোচিং বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত শিক্ষকদের চিহ্নিত করার কাজ শুরু করা হয়েছে।

গত ২৭ মার্চ রাজধানীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ‘সততা সংঘে’র এক অনুষ্ঠানে কোচিং বাণিজ্য নিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেছিলেন, সেদিন খুব কাছে, যেদিন শিক্ষা বাণিজ্যিকীকরণের অবৈধ কোচিং সেন্টার বন্ধ হবে। একই সঙ্গে গাইড বইও থাকবে না। শিক্ষকরাই হবেন শিক্ষার্থীদের গাইড। শিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেছিলেন, আমাদের সন্তানদের আপনাদের কাছে আমানত রেখেছি। আমানতের খেয়ানত করবেন না। তাদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলুন।

রাজধানীর ১৫টি নামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি বাণিজ্যের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরুর চার মাস পর কোচিং বাণিজ্যের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করল দুদক। গত জানুয়ারির প্রথম দিকে শুরু হয় ভর্তি বাণিজ্যবিরোধী অনুসন্ধান। মে মাসে শুরু হয় কোচিং বাণিজ্যবিরোধী অভিযান।

জানা গেছে, দুদক টিমের সদস্যরা এরই মধ্যে গোপনে অনুসন্ধান চালিয়ে কিছু সংখ্যক কোচিং সেন্টারের নাম, সেখানকার শিক্ষক, শিক্ষকদের স্কুল বা

কলেজ, আয়-ব্যয়, নামে-বেনামে সম্পদ, সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের নাম ও তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম সংগ্রহ করেছেন। ওই সব তথ্য যাচাই করা হচ্ছে।

দুদক সচিব আবু মো. মোস্তফা কামাল এ প্রতিবেদককে বলেন, যে কোনো খাতের দুর্নীতি বন্ধে দুদক বদ্ধপরিকর। এর মধ্যে শিক্ষা খাতে দুর্নীতি বন্ধে বিশেষ গুরুত্বসহকারে কাজ করা হচ্ছে। কারণ, এখান থেকেই ভবিষ্যৎ নাগরিকদের চরিত্র গঠন শুরু হয়।

ঢাকা মহানগরের উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর কিছু সংখ্যক শিক্ষক যথাযথভাবে পাঠদান না করে শিক্ষার্থীদের তাদের কোচিং সেন্টারে যেতে প্রভাবিত করছেন বলে আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। ওই সব তথ্য অনুসন্ধান করা হচ্ছে। অনিয়ম-দুর্নীতির প্রমাণ সাপেক্ষে অবৈধ কোচিংয়ের সঙ্গে জড়িত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কোচিং বাণিজ্যের অন্তর্বর্তীকালীন অনুসন্ধান প্রতিবেদন এরই মধ্যে কমিশনে পেশ করা হয়েছে। কমিশন প্রতিবেদনটি খতিয়ে দেখে এ বিষয়ে ব্যাপকভিত্তিক অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছে। ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়-১-এর উপপরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহিমের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের টিম পুরোদমে অনুসন্ধান শুরু করেছে।

দুদক সূত্রে জানা যায়, এরই মধ্যে খ্যাতনামা পাঁচ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সব পর্যায়ের শিক্ষকের নাম সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো_ ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ ও উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

এ ছাড়া মতিঝিল সরকারি বালক ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, উদয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল, অগ্রণী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ধানমণ্ডি গভর্নমেন্ট বয়েজ স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি উচ্চ বিদ্যালয়, সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, হলি ক্রস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাজউক উত্তরা মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজসহ উল্লেখযোগ্য আরও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের নামের তালিকা সংগ্রহ করা হবে।

দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ার এ প্রতিবেদককে বলেন, এ অনুসন্ধানকালে কোনো শিক্ষকের বিরুদ্ধে কর্তব্য পালনে অবহেলা ও কোচিং নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতিমালা লঙ্ঘনের প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করে কমিশনে প্রতিবেদন পেশ করা হবে। ছয় সদস্যের টিম কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করছে।

টিমের অন্য সদস্যরা হলেন_ দুদকের সহকারী পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, আবদুল ওয়াদুদ, মনিরুল ইসলাম, ফজলুল বারী ও উপসহকারী পরিচালক আতাউর রহমান।

দুদক সূত্র জানায়, নানাভাবে তথ্য সংগ্রহ করে কোচিং বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত শিক্ষকদের সুনির্দিষ্টভাবে চিহ্নিত করা হবে। তারা শিক্ষার্থীদের পাঠদানে অবহেলা করছেন কি-না, প্রতিদিন স্কুল বা কলেজে হাজির হন কি-না_ দালিলিক প্রমাণসহ এসব তথ্য সংগ্রহ করা হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কোচিং-সংক্রান্ত নীতিমালা লঙ্ঘন করা হচ্ছে কি-না, সেটিও গুরুত্বসহকারে দেখা হবে। কোচিং ব্যবসার মাধ্যমে অর্জিত তাদের সম্পদও খুঁজে বের করা হবে। তার দখলে থাকা সম্পদ বৈধ আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ কি-না, তা খতিয়ে দেখা হবে। এর পর নামে-বেনামে স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের হিসাব চেয়ে তাদের কাছে নোটিশ পাঠানো হবে। আইন অনুযায়ী নোটিশ পাঠনোর সাত কার্যদিবসের মধ্যে ঢাকাস্থ দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সচিব বরাবর সম্পদের হিসাব পেশ করতে হবে। পরে ওই হিসাব যাচাই করে যাদের নামে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ পাওয়া যাবে, তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। যারা যথাসময়ে সম্পদ বিবরণী পেশ করবেন না, তাদের বিরুদ্ধে দুদকের কাজে অসহযোগিতার অভিযোগে ‘নন-সাবমিশন’ মামলা করা হবে।

জানা গেছে, কোচিং বাণিজ্যের বিষয়টি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নজরে এলে কোচিং নিয়ন্ত্রণে নীতিমালা তৈরি করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয় ২০১২ সালের মাঝামাঝিতে। মন্ত্রণালয়ের এই নীতিমালা উপেক্ষা করে একশ্রেণির অতিলোভী শিক্ষক অবাধে কোচিং বাণিজ্য চালাচ্ছেন।

নীতিমালায় নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কোচিং অথবা প্রাইভেট পড়াতে নিষেধ করা হয়েছে। তবে কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ ১০ জন ছাত্রছাত্রীকে নিজ বাসায় পড়ানোর সুযোগ দেওয়া হয়েছে। কোচিং সেন্টারের নামে বাসা ভাড়া নেওয়ার ক্ষেত্রে বিধিনিষেধের কথা বলা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে দুদকের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, সংশ্লিষ্ট শিক্ষকরা ওই ১০ শিক্ষার্থীর মধ্যে নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একজনকে পড়ালেও তাকে অভিযুক্ত হিসেবে চিহ্নিত করা হবে। -সমকাল

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৯ কেজি সোনা উদ্ধার 

1441

ঢাকা, ৬ জুলাই : রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক যাত্রীর শরীরে লুকানো নয় কেজির বেশি সোনা উদ্ধার করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

বুধবার দিবাগত রাতে এই সোনাগুলো উদ্ধার করা হয়। শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো খুদেবার্তায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

খুদেবার্তায় বলা হয়, বুধবার মধ্যরাতে শাহজালালে ব্যাংকক থেকে আগত এক যাত্রীর শরীরে লুকায়িত ৯.২৭৮ কেজি স্বর্ণ আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। যাত্রীর নাম সিরাজুল ইসলাম (৪১)। যাত্রী পিজি ফ্লাইটে মালয়েশিয়া থেকে ব্যাংকক হয়ে বুধবার রাতে শাহজালালে অবতরণ করেন।

বার্তায় বলা হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার সময় যাত্রীকে চ্যালেঞ্জ করে শুল্ক গোয়েন্দা।  শুল্ক গোয়েন্দারা কাস্টমস হলে নিয়ে তাঁর শরীর তল্লাশি করে এক কেজি ওজনের নয়টি বারে নয় কেজি ও ২৭৮ গ্রামের খণ্ডিত টুকরা স্বর্ণ পান। নয়টি অক্ষত এবং বাকি একটি বার টুকরা অবস্থায় পাওয়া যায়। আটক স্বর্ণের মূল্য প্রায় ৪.৬০ কোটি টাকা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মাগুরায় ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১০ 

588

মাগুরা, ৫ জুলাই : মাগুরায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত মোট ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে। এর মধ্যে শালিখা থানায় ১৮ পিস ইয়াবাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী রয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা সকলেই বিভিন্ন মামলার আসামী।

পুলিশ জানায়,  সদর থানায় ৬, মহম্মদপুর থানায় ২ ও শালিখা থানায় ২ জন গ্রেফতার হয়েছে। এর মধ্যে শালিখা থানায় মঙ্গলবার রাতে ১৮ পিস ইয়াবাসহ ২ জন গ্রেফতার হয়েছে।

বুধবার সকালে তাদেরকে মাগুরা জজ আদালতে হাজির করা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর