২৮ মার্চ ২০১৭
রাত ১২:১৭, মঙ্গলবার

জাপানে বরফ ধসে বহু প্রাণহানির আশঙ্কা

জাপানে বরফ ধসে বহু প্রাণহানির আশঙ্কা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৭ মার্চ : জাপানের উত্তরাঞ্চলের একটি স্কি রিসোর্টে বরফ ধসে বহু প্রাণহানির আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেখানে বেশ কিছু স্কুলের শিক্ষার্থী এবং শিক্ষক রয়েছে বলে জানা গেছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ মোট ৭০ জন সেই সময়ে টোকিও-র উত্তরাঞ্চলের ওই স্কি রিসোর্টে ছিল। এরা সবাই পর্বত আরোহণের প্রশিক্ষণ নিতে গিয়েছিল।

জরুরি উদ্ধারকারী দলের কর্মকর্তারা জানান, বেশিরভাগ মানুষই এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

জাপানের স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, টোকিও-র নাসু ওনসেন ফ্যামিলি স্কি রিসোর্টে বরফ ধসের সময়ে কমপক্ষে ৬৬ জন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী ছিলেন।

ছয়জন আহত শিক্ষার্থী চিকিৎসায় কোনো সাড়া দিচ্ছে না। এছাড়া কমপক্ষে দুইজন শিক্ষার্থী ও একজন শিক্ষক আহত হয়েছেন।

বরফের নিচে কেউ চাপা পড়ে রয়েছেন কিনা উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ ও উদ্ধারকারী দল ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

রাশিয়ার দুর্নীতিবিরোধী বিক্ষোভ, বিরোধীদলীয় নেতাসহ কয়েকশ’ গ্রেফতার 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৭ মার্চ : রাশিয়ার মস্কোতে বিরোধীদল প্রগ্রেস পার্টি’র দুর্নীতিবিরোধী এক বিক্ষোভ থেকে নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনিসহ আরো কয়েকশ’ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রবিবার রুশ প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ’র বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগ দাবি করেন হাজারো বিক্ষোভকারী।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা- বিবিসি তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এ ঘটনায় সারাদেশ থেকে অন্তত ৫শ’ জনকে আটক করা হয়েছে। দেশটির পুলিশের দাবি, সরকারী অনুমতি ছাড়া এই ধরণের বিক্ষোভ রাশিয়াতে অবৈধ।

রবিবারের বিক্ষোভে অংশ নেওয়া বিক্ষোভকারীরা রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনেরও পতন কামনা করেন। বিক্ষোভকালে মস্কোর রাজপথে ‘পুতিনের পতন হোক’, ‘পুতিনমুক্ত রাশিয়া চাই’ প্রভৃতি স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা।

গ্রেফতারের পর টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে আন্দোলন অব্যাহত রাখতে বিক্ষোভকারীদের প্রতি আহ্বান জানান অ্যালেক্সেই নাভালনি। এতে তিনি বলেন, ‘ভাইয়েরা, আমি ভালো আছি। আমাকে মুক্ত করতে আন্দোলনের প্রয়োজন নেই। আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়া। মস্কোর রাজপথে অবস্থান করে আপনারা এই আন্দোলন চালিয়ে যান।’

রাশিয়ায় দুর্নীতিবিরোধী প্রচারণার জন্য বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি সুপরিচিত। ইতোপূর্বে এক মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার যোগ্যতা হারান। ফলে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিতব্য রাশিয়ার আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সুযোগ হারিয়েছেন তিনি। -বিবিসি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্রে ৪০ পুলিশ কর্মকর্তার শিরশ্ছেদ 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৬ মার্চ : গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র বা ডিআর কঙ্গোতে বেসামরিক বাহিনীর যোদ্ধারা পুলিশের একটি বহরে হামলা চালিয়ে অন্তত ৪০ পুলিশ অফিসারকে শিরশ্ছেদ করে হত্যা করেছে। কঙ্গোর মধ্যাঞ্চলীয় কাসাই প্রদেশে এ ঘটনা ঘটেছে। খবরটি জানিয়েছে স্থানীয় কর্মকর্তারা।

বিবিসির প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে কামউইনা সাপু নামের যোদ্ধারা পুলিশ বহরটির ওপর হামলা চালায়। সাপু গোষ্ঠীর ভাষায় কথা বলতে পারা ছয় পুলিশ কর্মকর্তাকে না মেরে ছেড়ে দেয়। কিন্তু বাকি সবাইকে শিরশ্ছেদ করে হত্যা করা হয়। এমনটাই জানিয়েছে কাসাই সভাপতি ফ্রাসোয়া কালাম্বা।

গত অগাস্টে নিরাপত্তা বাহিনী কামউইনা সাপু গোষ্ঠীর নেতাকে হত্যা করার পর থেকে কাসাইয়ের পরিস্থিতি অশান্ত হয়ে ওঠে। শুক্রবার শিকাপা ও কানানাগা এলাকার মধ্যবর্তী স্থানে টহল দেওয়ার সময় পুলিশ বহরটির ওপর হামলা চালানো হয়।

প্রাদেশিক গভর্নর অ্যালেক্সি এনকান্দে মাইওপোম্পা জানিয়েছেন, হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে একটি তদন্ত শুরু করা হয়েছে। জাতিসংঘ বলেছে, কামউইনা সাপু গোষ্ঠীর নেতা জ্যা পিয়েরে পান্ডিকে হত্যা করার পর সৃষ্ট অস্থিরতায় কাসাই অঞ্চলে এ পর্যন্ত ৪০০ জন নিহত ও দুই লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

২০১৬ সালের জুনে কামউইনা সাপু গোষ্ঠী তাদের নেতাকে স্থানীয় প্রধান হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি করে ওই অঞ্চল থেকে রাষ্ট্রীয় সব প্রতিষ্ঠানকে সরিয়ে নেওয়ার দাবি তোলে। এর দুই মাস পর তাদের নেতা পান্ডিকে হত্যা করে নিরাপত্তা বাহিনী।

উল্লেখ্য, ডিআর কঙ্গো বা গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র আফ্রিকা মহাদেশের একটি রাষ্ট্র। পূর্বে এটি জায়ার নামে পরিচিত ছিল।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

চীনে খনি দুর্ঘটনায় ১০ জনের মৃত্যু 

8

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৫ মার্চ : চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হেনান প্রদেশের দুটি সোনার খনিতে শুক্রবার পৃথক দুর্ঘটনায় ১০ জন মারা গেছে। শনিবার ভোরে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ একথা জানায়।

দেশটির কমিউনিস্ট পার্টি নাগরিক কমিটির প্রেস অফিসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল ১০ টা ৩৬ মিনিটে লিংবাও নগরীতে চায়না ন্যাশনাল গোল্ড গ্রুপের কিনলিং সোনার খনিটি ধোঁয়ায় ঢেকে গেছে। সেখানে ১২ শ্রমিক ও মাকিলপক্ষের ছয় কর্মী আটকা পড়েছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, শুক্রবার রাতে উদ্ধারকর্মীরা খনি থেকে সাতটি লাশ উদ্ধার করে। আহত অবস্থায় ১০ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে একজন হাসপাতালে মারা যায়। তবে অপর নয় জন আশঙ্কামুক্ত রয়েছে।

নগরীর জরুরি কর্মকর্তারা শনিবার সকালে জানান , আটকে পড়া শ্রমিকদের মধ্যে এখন পর্যন্ত একজন নিখোঁজ রয়েছে। কিন্তু খনির ভেতর বিষাক্ত কার্বন মনোক্সাইড গ্যাসের মাত্রা অনেক বেশি থাকায় ও এক মিটারের কম দূরের জিনিষও দেখতে না পাওয়ায় তল্লাশী এবং উদ্ধার অভিযান বন্ধ রাখা হয়েছে। সিনহুয়া।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ইসলামভীতি দূর করতে কানাডার পদক্ষেপ 

38

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৫ মার্চ : ইসলাম ধর্মকে ব্যবহার করে বিশ্বজুড়ে যে সন্ত্রাসবাদ প্রভাব বিস্তার করছে তা ফল ভোগ করতে হচ্ছে নিরীহ মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের। তারাই বেশি হামলার শিকার হচ্ছেন।

ইউরোপ ও আমেরিকা মহাদেশেও মুসলিমদের প্রতি অবিশ্বাস, ভয় ও ঘৃণার তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতি দূর করতে নতুন পদক্ষেপ নিয়েছেন কানাডার জাস্টিন ট্রুডো নেতৃত্বাধীন সরকার।

গত বৃহস্পতিবার কানাডার ‘হাউস অফ কমন্স’এ ইসলামভীতি দমন করতে একটি প্রস্তাব আনে ট্রুডো সরকার। এটি সর্বসম্মতিক্রমে তা পাশ হয়েছে।

ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, মুসলিমদের প্রতি দেশে ক্রমবর্ধমান ঘৃণা ও ভয়ের পরিবেশকে দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। এছাড়াও ধর্মের ভিত্তিতে ভেদাভেদ থামাতে হবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ফ্রান্সে বন্দুকধারীর হামলায় আহত ৩ 

395

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৫ মার্চ : ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় শহর লিলের একটি মেট্রো স্টেশনের বাইরে বন্দুকধারীর এলোপাতাড়ি গুলিতে অন্তত তিনজন আহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার রাতে ওই গুলিবর্ষণের পর অজ্ঞাত ওই বন্দুকধারী পালিয়ে যায়।

স্থানীয় দৈনিক লা ফিগারো এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গাড়িতে থাকা বন্দুকধারীর মাথায় হুড়ি ছিল। প্রাথমিকভাবে ঘটনাটিকে ‘ব্যক্তিগত উত্তেজনাজনিত’ গুলিবর্ষণ বলেই মনে করছে পুলিশ। বন্দুকধারীকে খোঁজা হচ্ছে।

নেটওয়ার্ক নাইনের বরাত দিয়ে হাফিংটন পোস্ট অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, এলোপাতাড়ি গুলিতে তিনজন আহত হলেও প্রত্যক্ষদর্শীরা অন্তত ৫টি গুলির শব্দ শুনেছেন।

আহতদের সবাই শঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছে দ্য সান। এদের মধ্যে ১৪ বছর বয়সী এক স্কুল শিক্ষার্থীও আছে, তার পায়ে গুলি লেগেছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

৭ দিনে বিমান হামলায় ২০০ ইরাকি নিহত 

58

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৫ মার্চ : ইরাকের মসুলে মার্কিন নেত্বতাধীন জোটের বিমান হামলায় গত এক সপ্তাহে অন্তত দুইশ বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন অনেকে। এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

এ হামলায় প্রাণহানির ঘটনাকে ‘জীবনের ভয়ানক ক্ষতি’ হিসেবে অভিহিত করেছেন জাতিসংঘের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তবে হামলার সঠিক সময় জানা যায়নি। খবর বিবিসির।

জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) নিয়ন্ত্রিত মসুল পুনরুদ্ধারে ইরাকি সেনাবাহিনীকে সহায়তার লক্ষ্যে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি তরে মার্কিন বাহিনী। তবে এ হামলার বিষয়ে তদন্ত চলার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম।

গত প্রায় এক মাস ধরে মসুল পুনরুদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইরাকি বাহিনী। ২০১৪ সালে মসুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় আইএস।

পশ্চিম মসুলের জাদিদ পাড়ায় হামলার পর অন্তত ৫০ জনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেছেন বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিকরা।

এদিকে, মার্কিন সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, গত ১৭ থেকে ২৩ মার্চের মধ্যে বেসামরিক নাগরিক হত্যার বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

বাগদাদে মার্কিন কমান্ডোর মুখপাত্র কর্নেল জোসেফ ক্রোক্কা বলেন, মসুলে বেসামরিক লোক নিহতের বিশ্বাসযোগ্যতা তারা মূল্যায়ন করে দেখছেন।

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী বর্তমানে অন্তত চার লাখ মানুষ মসুলে আটকা পড়ে আছেন। ইরাকি সরকারি বাহিনী চেষ্টা করছে শহরটি পুনরুদ্ধার করার।

অপরদিকে, গত মাসে মসুলের এক লাখ ৮০হাজারের বেশি বেসামরিক নাগরিক শহর ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে চলতি সপ্তাহে আরও তিন লাখ ২০ হাজার নাগরিক শহর ছেড়ে পালিয়ে যেতে পারেন।

অন্যদিকে, জঙ্গিরা মসুলের বেসামরিক নাগরিকদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার এবং তাদের বাড়িতে আত্মগোপন করে থাকছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি. তারা স্থানীয় যুবকদের যুদ্ধে অংশ নিতে জবরদস্তি করছেন বলেও জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

স্বাস্থ্যসেবা বিল প্রত্যাহার: ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য বড় ধাক্কা 

55555

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৫ মার্চ : শেষমুহুর্তে এসে ভোটাভুটি বাদ দিয়ে প্রত্যাহার করে নিতে হয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বাস্থ্যসেবা বিল।

এই বিল নিয়ে মার্কিন কংগ্রেসে রিপাবলিকানরাই বিভক্ত হয়ে পড়েছিল।

ক্ষমতায় আসার পর প্রথম আইন প্রণয়ন করতে গিয়ে ট্রাম্প ব্যর্থ হলেন।

এটি তাঁর জন্য বড় ধাক্কা বলে বিশ্লেষকরা বলছেন। কারণ ওবামার সময়ের স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কিত বিল, যা ওবামাকেয়ার নামে পরিচিত, সেটি বাতিল করার বিষয়টি ছিল ট্রাম্পের অন্যতম প্রধান নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি।

নিজের দলেই সমর্থন না পেয়ে ট্রাম্প তাঁর প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ হলেন। ওবামার প্রণীত স্বাস্থ্যসেবা বিল বাতিল বাতিল করা সম্ভব হল না।

হাউজ স্পিকার পল রায়ান বলেছেন, ট্রাম্পের স্বাস্থ্যসেবা বিলের সমর্থনে ২১৫টি রিপাবলিকান ভোট পাওয়া যাবে না।এমন অনিশ্চয়তার মুখে তিনি এবং ট্রাম্প কংগ্রেসে ভোট না করতে সম্মত হন।এটাকে হতাশাজনক বলে বর্ণনা করেছেন স্পিকার পল রায়ান।

অন্যদিকে ডেমোক্র্যাটরা এটাকে আমেরিকার জনগণের বিজয় বলে বর্ণনা করেছেন।তারা বলেছেন, ওবামার স্বাস্থ্যসেবা আইন বাতিল করে ট্রাম্পের বিল প্রণয়ন করা হলে যুক্তরাষ্ট্রের নিম্ন আয়ের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হতেন।

গত বৃহস্পতিবারেই কংগ্রেসে ভোটাভুটি হওয়ার কথা ছিল।কিন্তু নিজ দলেই বিরোধিতার কারণে সেদিন ভোট করা যায়নি।ট্রাম্প শুক্রবারে ভোট করার ব্যাপারে নিজ দলের সদস্যদের প্রতিই আল্টিমেটাম দিয়েছিলেন।তাতে লাভ হয়নি। হোঁচট খেলেন ট্রাম্প। -বিবিসি

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ট্রাম্প পরিবারের নিরাপত্তায় বাড়তি খরচ ৬ কোটি ডলার 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৪ মার্চ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিবারের ভ্রমণ ও নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত ৬ কোটি ডলার (৪৮০ কোটি টাকা) চেয়েছে সিক্রেট সার্ভিস। ওয়াশিংটন পোস্ট এ খবর জানিয়েছে।

এ অতিরিক্ত অর্থের ২ কোটি ৬৮ লাখ ডলার ব্যয় করা হবে ট্রাম্পের পরিবার ও নিউইয়র্কে অবস্থিত ট্রাম্প টাওয়ারে ট্রাম্পের ব্যক্তিগত বাড়ির নিরাপত্তায়।

অবশিষ্ট ৩ কোটি ৩০ লাখ ডলার মার্কিন প্রেসিডেন্ট, ভাইস প্রেসিডেন্ট ও সরকারের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সফরের খরচ বাবদ ব্যয় করা হবে।

২০১৮ সালের আর্থিক বাজেটের জন্য প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তায় নিযুক্ত সিক্রেট সার্ভিসের পক্ষ থেকে এ অতিরিক্ত অর্থ চাওয়া হয়েছে। সিক্রেট সার্ভিসের এ অতিরিক্ত অর্থের আবেদন এটাই প্রমাণ করছে যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিস্তৃত পরিবারের নিরাপত্তা, তাদের উচ্চাভিলাষী সফরসূচির ব্যবস্থা ও ট্রাম্পের নিজের বাসস্থানকে নিরাপদ দুর্গে পরিণত করার জন্য কী পরিমাণ অর্থ ঢালতে হচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিষেকের পর ট্রাম্প তার সাপ্তাহিক ছুটির বেশির ভাগই ফ্লোরিডার পামবিচে নিজের মার-এলাগো রিসোর্টে কাটাচ্ছেন।

অন্যদিকে ট্রাম্পের ছেলেরা বাবার ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতির জন্য রাষ্ট্রীয় খরচে সিক্রেট সার্ভিসের গোয়েন্দা সহযোগিতায় বিশ্বভ্রমণ করেছেন।

তবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার পরিবারের নিরাপত্তা ও ভ্রমণের জন্য ঠিক কী পরিমাণ অর্থ ব্যয় হচ্ছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

সিক্রেট সার্ভিস ও ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটি (ডিএইচএস) নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে প্রকৃত অর্থের অংক উল্লেখ করতে অস্বীকার করেছে।

সিক্রেট সার্ভিসের বাজেট আলোচনার সঙ্গে জড়িত একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, গত শুক্রবার প্রস্তুত করা সিক্রেট সার্ভিসের অতিরিক্ত অর্থ চেয়ে আবেদন হোয়াইট হাউসের অফিস অব ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড বাজেট প্রত্যাখ্যান করেছে। ওয়াশিংটন পোস্টের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে সিক্রেট সার্ভিস এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকার করে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি, ২ শতাধিক শরণার্থীর মৃত্যুর শংকা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৪ মার্চ : লিবীয় উপকূলে নৌকা ডুবে দুই শতাধিক শরণার্থীর মৃত্যুর আশংকা করছে স্পেনের একটি ত্রাণসংস্থা। খবর বিবিসির।

প্রএকটিভা ওপেন আর্মস নামের সংস্থাটি জানিয়েছে, শতাধিক শরণার্থীবাহী দুটি নৌকা যেখানে ডুবেছে, তারা সেখান থেকে ভাসমান অবস্থায় পাঁচটি মরদেহ উদ্ধার করেছে।

লরা ল্যানুজা নামে এক উদ্ধারকর্মী জানান, উদ্ধার লাশগুলোর বয়স খুবই কম। তার আশংকা, যেভাবে গাদাগাদি করে মানব পাচারকারীরা শরণার্থীদের নৌকায় তোলেন, তাতে নিহতের সংখ্যা ২৪০ জন হতে পারে।

উদ্ধার কাজে সহায়তাকারী ইতালীয় কোস্টগার্ডের এক মুখপাত্র পাঁচটি লাশ উদ্ধারের কথা জানিয়েছেন। ডুবে যাওয়া নৌকাটির আর কোনো যাত্রীর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই বলেও জানান তিনি।

আন্তর্জাতিক শরণার্থী সংস্থা ( আইওএম) জানায়, চলতি বছর এ পর্যন্ত ২০ হাজার শরণার্থী ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি পৌঁছেছে। এ সময় ডুবে মারা গেছে সাড়ে পাঁচ শতাধিক শরণার্থী।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লন্ডনে হামলাকারী খালিদ মাসুদ আসলে কে? 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৪ মার্চ : ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সামনে হামলার ঘটনায় নিহত এক আততায়ীর পরিচয় প্রকাশ করেছে লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশ। পুলিশ বলছে, হামলাকারীর নাম খালিদ মাসুদ। ৫২ বছর বয়সী খালিদ মাসুদের জন্ম কেন্টে। কিন্তু তিনি বসবাস করতেন ওয়েস্ট মিডল্যান্ডসে।

বুধবার পার্লামেন্ট ভবনে ওই ঘটনার সময় এক পর্যায়ে হামলাকারীকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

পুলিশ বলছে, পুলিশের খাতায় অপরাধী হিসেবে খালিদ মাসুদের নাম আগে থেকেই ছিল। অস্ত্র রাখা এবং আক্রমণ চালানোর অভিযোগে এর আগেও তার সাজা হয়েছিল। বুধবারের হামলায় হামলাকারী ছাড়াও এক পুলিশ অফিসার সহ আরও তিনজন নিহত হন।

ওইদিন বিকেল পৌনে তিনটার সামান্য আগে হামলকারী খালিদ মাসুদ ওয়েস্টমিনস্টার ব্রিজ দিয়ে ড্রাইভ করে যাওয়ার সময় তার গাড়ি তুলে দেন পথচারীদের ওপর। এসময় দুজন নিহত হয়, আহত হয় আরও বহু মানুষ। এরপর গাড়িটি এসে ধাক্কা দেয় পার্লামেন্ট ভবনের রেলিং-এ।

ছুরি হাতে গাড়ি থেকে বেরিয়ে এরপর হামলাকারী পার্লামেন্ট ভবনের দিকে দৌড়ে যায়। সেখানে পুলিশ তাকে বাধা দিলে একজন নিরস্ত্র পুলিশ অফিসার কীথ পামারকে ছুরিকাঘাত করে সে। ছুরিকাঘাতে ওই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হন। এরপরই হামলাকারীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় পুলিশ। নিহত হয় হামলাকারী খালিদ মাসুদও।

২০০৫ সালে লন্ডন আন্ডারগ্রাউন্ডে সন্ত্রাসী হামলার পর এটি ছিল লন্ডনে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা।

আন্তর্জাতিক ইসলামী জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেট ইতোমধ্যে খালিদ মাসুদকে তাদের একজন ‘সৈনিক’ বলে দাবি করেছে।

এদিকে পুলিশের দাবি, গুলিতে দুই আততায়ীর মৃত্যু হয়৷ তবে আরও আততায়ীর লুকিয়ে থাকার সম্ভাবনাকে তারা উড়িয়ে দিতে চাইছেন না এখনই৷ সমগ্র ঘটনার তদন্ত চলছে৷

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

হামলাকারী সম্পর্কে আগেই জানত ব্রিটিশ গোয়েন্দারা! 

933

অনলাইন ডেস্ক, ২৩ মার্চ : যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের বাইরে হামলাকারী ব্যক্তি ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত। তাঁর সম্পর্কে আগে থেকেই জানত ব্রিটিশ পুলিশ ও গোয়েন্দারা। কয়েক বছর আগে সহিংস সন্ত্রাসবাদের কারণে তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত হয়েছিল। কিন্তু তিনি ঠিক বড়মাপের সন্ত্রাসবাদী ছিলেন না।

বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আজ বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এক বিবৃতিতে হামলাকারী সম্পর্কে এ তথ্য জানিয়েছেন।

যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের বাইরে গতকাল বুধবার রক্তক্ষয়ী হামলায় ওই হামলাকারীসহ চারজন নিহত হন। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে ২৯ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে সাতজনের অবস্থা গুরুতর। এ ঘটনায় আট ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিবৃতিতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, গোয়েন্দা সংস্থা ‘এমআই ফাইভ’ হামলাকারী সম্পর্কে আগেই জানত। তবে ইদানীং ওই হামলাকারী গোয়েন্দা নজরদারিতে ছিলেন না।

তিনি বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১২ জন ব্রিটিশ নাগরিক। এ ছাড়া তিন সন্তান নিয়ে ফ্রান্সের একজন নাগরিক, রোমানিয়ার দুজন, দক্ষিণ কোরিয়ার চারজন, জার্মানির একজন, পোল্যান্ডের একজন, আয়ারল্যান্ডের একজন, চীনের একজন, ইতালির একজন, মার্কিন একজন ও গ্রিসের দুজন নাগরিক রয়েছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লন্ডনের মেয়র সাদিক খানকে একহাত নিলেন ট্রাম্পপুত্র 

883

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৩ মার্চ : যুক্তরাজ্যের লন্ডনে পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে সন্ত্রাসীয় হামলায় পুলিশসহ নিহত হয়েছেন পাঁচজন। আহত হয়েছেন ৪০ জনের বেশি। হৃদয়বিদারক পরিস্থিতি লন্ডনে। সন্ত্রাসী হামলার সমালোচনায় মুখর বিশ্ববাসীও। এর মধ্যেই নগরীর মেয়র সাদিক খানকে একহাত নিলেন ট্রাম্পের ছেলে জুনিয়র ট্রাম্প।

নিজের টুইটারে সাদিক খানকে ব্যঙ্গ করে জুনিয়র ট্রাম্প লেখেন, ‘তুমি আমার সঙ্গে মশকরা করছ?’ এর পর সাদিক খানের বক্তব্যের একটি অংশ তুলে ধরে জুনিয়র ট্রাম্প লেখেন, ‘একটি বড় শহরে সন্ত্রাসী হামলা বসবাসেরই অংশ : সাদিক খান।‘

এর আগে ২০১৬ সালে নিউইয়র্কের পাশের শহর চেলসিয়ায় বোমা হামলার পর সাদিক খান বলেছিলেন, ‘সন্ত্রাসী হামলার জন্য তৈরি থাকাটাও একটি বড় শহরে জীবনযাত্রার স্বাভাবিক অংশ। লন্ডনও এ জন্য প্রস্তুত। যথার্থ সতর্কতা অবলম্বন করেই লন্ডন টিকে আছে।’

সাদিক খানের ওই বক্তব্যকে ব্যঙ্গ করেই লন্ডনে হামলার পর সাদিককে একহাত নিলেন ট্রাম্পপুত্র।

সিএনএনের খবরে জানানো হয়, ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর হোয়াইট হাউসের রাজনৈতিক বিষয়ে জুনিয়র ট্রাম্প কোনোভাবে হস্তক্ষেপ করেননি। এমনকি বাবার নির্বাচনী প্রচারের সময় নিজের টুইটারে রাজনৈতিক বিষয়ে কথা বললেও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর তিনি টুইটারেও সচল ছিলেন না। অনেক দিন পরে বুধবার লন্ডনে হামলার পর সাদিক খানকে তিরস্কার করে টুইট করেন ট্রাম্প জুনিয়র।

এদিকে, ট্রাম্প জুনিয়রের এই বিদ্রূপপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদ করেছেন ব্রিটিশরা। লন্ডনের মেয়রের পাশে দাঁড়িয়ে ব্রিটিশরা উত্তর দিয়েছেন ট্রাম্প জুনিয়রের টুইটের।

লন্ডনের বাসিন্দা গ্যারেথ হেথি রিটুইটে লেখেন, কাউকে লন্ডনের নিরাপত্তার বিষয়ে খোঁচা দেওয়ার প্রয়োজন নেই। এ শহর ঐতিহ্যের শহর। এ হামলার রেশ কাটিয়ে উঠবে বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীন শহরগুলোর অন্যতম লন্ডন।

তবে ট্রাম্প জুনিয়র ব্যঙ্গ করলেও ভয়াবহ এই সন্ত্রাসী হামলার পর যুক্তরাজ্যের পাশে দাঁড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হামলার কিছুক্ষণ পরই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। তিনি এ সময় এই কঠিন সময়ে যুক্তরাজ্যের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

চালকবিহীন যুদ্ধবিমান তৈরি করছে ভারত 

811

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৩ মার্চ : সামরিক ক্ষেত্রে নিত্য নতুন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে ভারত। এবার নতুন পরিকল্পনা হিসেবে ভারতের কমব্যাট যুদ্ধবিমান তেজসকে নিয়ে পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এই লাইট কমব্যাট যুদ্ধবিমানকে রূপান্তরিত করা হবে ড্রোনে। এই বিষয়ে চলছে জোরদার গবেষণা।

তেজসকে ড্রোনে রূপান্তিরিত করতে ইতোমধ্যেই গবেষণা শুরু করেছে একটি বিশেষ টিম। এয়ারক্রাফট নির্মাণকারী সংস্থা হিন্দুস্থান অ্যারোনটিক্স লিমিটেড মনে করছে, খুব কম সময়ের মধ্যেই এই কাজ সম্পূর্ণ হবে।

পাশাপাশি, চেতক হেলিকপ্টারেরও একই রকম একটি ভার্সান তৈরি করা হবে বলেও জানিয়েছেন সংস্থার প্রধান টি সুবর্ণ রাজু।

বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে ইতোমধ্যেই ওই সংস্থাকে ১২৩টি এলসিএ ফাইটার জেটের অর্ডার দেওয়া হয়েছে। আগামী কয়েক বছরে ভারতীয় বিমানবাহিনীর অন্তত ২০০টি যুদ্ধবিমানের প্রয়োজন পড়বে বলেও মনে করা হচ্ছে। মূলত সীমান্ত পেরিয়ে হামলা চালানোর জন্য এই ড্রোন ব্যবহার করা হবে। শত্রুপক্ষের এলাকায় ঢুকে পড়ার পর পাইলটদের প্রাণের ঝুঁকি থাকে। সেটা এড়াতেই এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এছাড়াও ভারত AURA নামের একটি প্রজেক্টের কাজ করছে, যাতে কাভেরি ইঞ্জিন ব্যবহার করে কমব্যাট ড্রোন তৈরি করা হচ্ছে। যদিও সেই ড্রোন এখনও ডিজাইনের পর্যায়ে রয়েছে। তবে চালকবিহীন তেজস কিন্তু কোনোভাবেই আর্মি স্টিলথ ড্রোনের সমতুল্য নয়। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, আমেরিকা এরিয়াল টার্গেট প্র্যাকটিসের জন্য চালকবিহীন F-16 ব্যবহার করে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সন্ত্রাসের কাছে হার মানবে না ব্রিটেন 

372

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৩ মার্চ : লন্ডনে ব্রিটিশ সংসদের কাছে গুলি এবং ওয়েস্টমিনস্টার ব্রিজের কাছে সন্ত্রাসী হামলাকে প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে অসুস্থ ও বিকৃতি রুচির অভিহিত করে নিন্দা জানিয়েছেন।

সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীদের নিয়ে জরুরী বৈঠক, যা কোবরা সিকিউরিটি মিটিং নামে পরিচিত, শেষে ডাউনিং স্ট্রিটে এক ব্রিফিং-এ মে নিহত ও আহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

তিনি বলেন, ব্রিটিশ পার্লামেন্ট গণতন্ত্র, স্বাধীনতা, মানবাধিকার ও আইনের শাসনের মত মূল্যবোধ চর্চা করে বিশ্বের শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা অর্জন করেছে। যারা এই মূল্যবোধ প্রত্যাখ্যান করেছে, তাদের কাছে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট অবশ্যই একটি টার্গেটে পরিণত হয়েছে।

কিন্তু সন্ত্রাসের কাছে ব্রিটেন হার মানবে না, প্রত্যয় ব্যক্ত করে মিজ মে বলেন, বৃহস্পতিবার স্বাভাবিক নিয়মে সংসদের সভা বসবে। স্বাভাবিকভাবে লন্ডনের বাসিন্দারা নিজেদের দৈনন্দিন কাজকর্ম সারবেন। এবং শহরে বেড়াতে আসা পর্যটকেরাও স্বাভাবিক নিয়মে যা করছিলেন, এবং যা তাদের পরিকল্পনায় ছিল, তাই করবেন। ঘৃণা এবং অশুভ শক্তি ব্রিটেনকে বিভক্ত করতে পারবে না।

লন্ডন পুলিশ কর্তৃপক্ষ বলছে, সংসদ ভবনের কাছে এবং ওয়েস্টমিনস্টার ব্রিজের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় পাঁচজন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে একজন পুলিশ অফিসার, একজন হামলাকারী এবং দুজন পথচারী রয়েছেন। মেট্রোপলিটান পুলিশ জানিয়েছে, অন্তত ৪০জন আহত হয়েছে।

আহতদের মধ্যে তিনজন ফরাসী শিক্ষার্থী এবং দুইজন রোমানিয় রয়েছেন। এই সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়ে ইতিমধ্যেই সংহতি প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স এবং জার্মানী।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর