২৯ মে ২০১৭
সকাল ৮:০১, সোমবার

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সাংবাদিক সমীর কুমার দে

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সাংবাদিক সমীর কুমার দে 

20

ঢাকা, ৬ মে : দৈনিক ইত্তেফাকের জ্যেষ্ঠ অপরাধ-বিষয়ক প্রতিবেদক সমীর কুমার দে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টায় রাজধানীর আগারগাঁও এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তাকে উদ্ধার করে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যান।

সমীর কুমারের সহকর্মী জামিউল আহসান শিপু জানান, দুর্ঘটনায় সমীর কুমারের মুখ-হাত-পাসহ বিভিন্ন স্থানে গুরুতর আঘাত ও রক্তক্ষরণ হয়েছে।

প্রাথমিক চিকিৎসার পর চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার এক হাতের হাড় ভেঙে গেছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

দেশে অনলাইন গণমাধ্যমের অগ্রযাত্রা কেউ ব্যহত করতে পারবেনা : ইকবাল সোবহান 

ঢাকা, ৪ মে : গতকাল ০৩ মে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বোমার উদ্যোগে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস-২০১৭ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় “সঙ্কটকালের পর্যালোচনামূলক ভাবনা : সকলের অংশগ্রহণমূলক, ন্যায়ভিত্তিক শান্তিপূর্ণ একটি সমাজকে এগিয়ে নিতে গণমাধ্যমের ভূমিকা” শীর্ষক এক আলোচনা সভা ও সাংবাদিক সম্মাননা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বোমার সাধারণ সম্পাদক এ কে এম শরিফুল ইসলাম খানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের  মাননীয় তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

গতকাল বুধবার বিকাল ৪ টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের উদ্যোগে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস-২০১৭ আলোচনা সভার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশে যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমান সরকার বেশি গণমাধ্যমবান্ধব। বর্তমানে গণমাধ্যম সবচেয়ে বেশি স্বাধীনভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তবে স্বাধীনতার নামে গণমাধ্যমের অপপ্রয়োগ যাতে না হয় তার জন্যও সচেতন থাকতে হবে সাংবাদিক ও গণমাধ্যম মালিকদের।

বুধবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স হলরুমে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের (বোমা) উদ্যোগে আয়োজিত বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র আর গণমাধ্যম একটি আরেকটির পরিপূরক। যেখানে গণমাধ্যম যত বেশি শক্তিশালী সেখানে গণতন্ত্রও তত বেশি শক্তিশালী। পরমত সহিষ্ণুতাই গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় কথা। আলোচনা, মতপ্রকাশ, ঐক্য, সংহতি হলো গণতন্ত্রের গুরুত্বপূর্ণ সিঁড়ি। মৌলিক অধিকার হলো মতপ্রকাশের স্বাধীনতা।

তিনি আরো বলেন, অনলাইন সাংবাদিকতাকে একটি নীতিমালার আওতায় এনে শক্তিশালী গণমাধ্যম হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত আন্তরিক। দ্রুততম সময়ে এই নীতিমালা চূড়ান্ত করা হবে। অনলাইন গণমাধ্যমের অগ্রযাত্রা কেউ দাবিয়ে রাখতে পারবে না।

অনলাইন সংবাদ মাধ্যমের মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এ মাধ্যমে নিয়োজিত সংবাদকর্মীদের পারিশ্রমিক যথাযথভাবে প্রদান করুন। অর্থের অভাবে যাতে তারা অপসাংবাদিকতায় লিপ্ত না হয়।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব ওমর ফারুক বলেন, যারা অনলাইন পত্রিকায় কাজ করেন, তাদের বেতন-ভাতা মালিকরা নিশ্চিত করবেন। আমরা প্রয়োজনে অনলাইন গণমাধ্যমের অগ্রগতিতে সহযোগিতায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করব। আশা করি, তিনি বিগত সময়ে গণমাধ্যমের বিভিন্ন সহযোগিতার মতো অনলাইন গণমাধ্যমের বিকাশে সহায়তা করবেন।

অনুষ্ঠানে তার বক্তব্যে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এবং নিউজ ২১ বিডির সম্পাদক ও এ কে এম শরিফুল ইসলাম খান বলেন যদিও সংবিধানে গণমাধ্যম রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ কিন্তু সরকার বিগত এক যুগেও অনলাইন গণমাধ্যমকে কোন স্বীকৃতি প্রধান করতে পারে নাই। গত ৫ বছরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে কমিটি একটি খসরা নিতিমালা জমা দিলেও আজও তা বাস্তবায়নের জন্য কোন উদ্যোগ নেয়নি, বরং নিবন্ধনের নামে সারাদেশে অনলাইন গণমাধ্যম মালিক বা প্রকাশকদের নানা হয়রানি করছে আইন শরিলিংখলা। কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী একটি স্বাধীন অনলাইন কমিশন গঠন না করে জোর করে সম্প্রচার কমিশনের অধীনে চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে যা অনলাইনের সাথে সংশ্লিষ্টরা কখনো মেনে নিবেনা। এছারা অন্যান্য দেশের থাকলেও বাংলাদেশে কোন ডোমেইন নীতিমালার উদ্যোগ সরকার এখনো নেয়নি।সরকার অনলাইন গণমাধ্যম এর সাথে বিমাতা সুলভ আচরন করে পরিস্থিতি জটিল করছে। এই বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে অবিলম্বে বাবস্থা নিতে অনুরোধ জানাচ্ছি।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারেও যে ৩ জনকে বোমা সম্মাননা দেয়া হয়েছে তারা হলেন  ফটো নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক আবু সুফিয়ান, দৈনিক সময় সংবাদের পক্ষে  সম্পাদক ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আরিফ মোতাহার এবং সাপ্তাহিক জনতার গোয়েন্দার সম্পাদক মোহাম্মদ মহসিন। এছাড়া মরণোত্তর সম্মাননা দেয়া হয় মরহুম সাংবাদিক সফিউদ্দিন আহমেদকে, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির সাবেক সভাপতি।

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের আলোচনা অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বোমার প্রতিস্তাতা উপদেষ্টা খালেকুজ্জামান চৌধুরী, ইউএনবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্যারিস্টার জাকির হোসাইন, নিউজ২১ বিডির ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সৈয়দ হোসাইন সৈকত, দৈনিক সময় সংবাদের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আরিফ মোতাহার, হুমায়ন কবির, কাউসারুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এসোসিয়েশনের সভাপতি সাংবাদিক নেতা জয়ন্ত আচার্য্য। সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ স্বপন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মিডিয়া এসোসিয়েশনের ক্যাপেন্টন রেজাউল করিম সম্পাদক আমাদের সংবাদ, তুসার আহমেদ সম্পাদক মোহাম্মাদী নিউজ এজেন্সী,খালেদ সাইফুল্লাহ সম্পাদক প্রকাশক ডিজিটাল সময়,  মনোয়ার হোসেন সিদ্দিকি সম্পাদক দৈনিক বাংলার ডাক, ফটো নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক আবু সুফিয়ান, টোটাল নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক মাহফুজা ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ও মু্ক্তি নিউজের সম্পাদক মোঃ শাহপান সিদ্দিকী( তারেক), নতুন দিনের সম্পাদক তাজউদ্দীন উল্লাস, নিউজ টুডের সম্পাদক রিয়াজুদ্দিন, বিডিটুডেস এর সম্পাদক সজিব খান, বিবিসি নিউজ এর সম্পাদক নাইম, ঢাকা নিউজ ১৬ এর সম্পাদিকা শেখ লাবণ্য হক, পিপলস নিউজের মেহেদি হাসান, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রেসিডিয়াম সদস্য , মো. নুরুজ্জামান ভুট্ট, ভিনিউজের নিউজ এডিটর নুরে আলম সিদ্দিকী খোকন প্রমু্খ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

সাংবাদিক ওমর ফারুক আর নেই 

8882

ঢাকা, ৩০ এপ্রিল : সাংবাদিক ওমর ফারুক আজ রবিবার ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি… রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৫১ বছর।

শনিবার দুপুরে অফিসে প্রবেশের সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সংবাদ সংগ্রহ শেষে শনিবার বেলা দেড়টার দিকে ধানমন্ডির ৩২ নম্বর থেকে অফিসের গেটে এসে পৌঁছার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

সঙ্গে সঙ্গে সহকর্মীরা তাকে স্কয়ার হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করিয়ে দেন। সেখানে ইসিজি ও এনজিওগ্রাম করার পর হার্টের শিরায় দু’টি ব্লক ধরা পড়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে তাৎক্ষণিকভাবে সিসিইউতে ভর্তি করা হয় তাকে। শুরুতে রিং পড়াতে চাইলেও কিছু জটিলতা দেখা দেয়ায় তার বাইপাস সার্জারির প্রয়োজন হবে বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা।

কর্মজীবনে তিনি দৈনিক সমাচার, দৈনিক রুপালি, দৈনিক আজকের কাগজ, দৈনিক যুগান্তর ও সর্বশেষ বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেছেন বাংলা ট্রিবিউনে। ওমর ফারুক ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্য। মৃত্যুকালে স্ত্রী ও দুই কন্যা রেখে গেছেন তিনি। পাঁচ ভাই ও চার বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। তার প্রথম মেয়ে ফারিহা ওমর ইরা দশম শ্রেণীতে পড়েন এবং দ্বিতীয় মেয়ে দীপিকা ওমর দিয়া ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে পড়েন। তার স্ত্রী সানজিদা ওমর সৈকত।

আজ রবিবার রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) দুপুর ১টায় তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর দুপুর দুইটার দিকে বাংলা ট্রিবিউনে তার দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বাদ আসর মীর হাজিরবাগ খালপাড় জামে মসজিদে তার শেষ জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর জুরাইন কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আবৃত্তিকার কাজী আরিফ আর নেই 

363

ঢাকা, ২৯ এপ্রিল : আবৃত্তি শিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা কাজী আরিফ আর নেই। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর।

কাজী আরিফের মেয়ে আনুশকা মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ কাজী আরিফের হার্টের বাল্ব অকেজো হলে তাকে ম্যানহাটনের মাউন্ট সিনাই সেন্ট লিওক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত মঙ্গলবার বাল্ব পুনঃস্থাপন এবং আর্টারিতে বাইপাস সার্জারি করা হয়। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রাতে পৃথিবী ছেড়ে চলে যান আরিফ।

কাজী আরিফের মৃত্যুর খবর শোনার পর হাসপাতালের সামনে ভিড় করেন নিউইয়র্কে অবস্থানরত বাংলাদেশের সাংষ্কৃতিক কর্মীরা।

১৯৫২ সালের ৩১ অক্টোবর ফরিদপুর রাজবাড়ীতে জন্মগ্রহণ করেন কাজী আরিফ। কিন্তু বেড়ে উঠেছেন চট্টগ্রাম শহরে। এখানেই তার পড়াশোনা, রাজনীতি, শিল্প-সাহিত্য এসব কিছুরই হাতেখড়ি হয়। তিনি একাধারে একজন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, আবৃত্তিকার, লেখক ও মুক্তিযুদ্ধ সংগঠক ছিলেন।

১৯৭১ সালে ১ নম্বর সেক্টরে মেজর রফিকের কমান্ডে সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। যুদ্ধ শেষে বুয়েটে পড়াশোনা শুরু করেন। এর পাশাপাশি শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি চর্চাও চালিয়ে যান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

শোক সংবাদ 

dd

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ২৪ এপ্রিল : বৈশাখী টেলিভিশন ও দৈনিক সকালের খবরের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি মাজহারুল আনোয়ার টিপুর বাবা অবসরপ্রাপ্ত কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ারুল হক (৭০) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়া নিল্লাহে রাজিউন)। রোববার (২৩ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে হ্নদযন্ত্রের ক্রিয়াবন্ধ হয়ে পৌরসভার বাঞ্চানগর এলাকার বাসভবনে তিনি মারা যান। সোমবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে মরহুমের নামাজের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। জানাযায় প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনীতিবীদ সাংবাদিক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন-শ্রেণি-পেশার বিপুল সংখ্যক লোক অংশ নেয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে, ১ মেয়ে ও আত্মীয়-স্বজনসহ বহু শুভাকাঙ্খী রেখে গেছে। তার মৃত্যুতে সাংবাদিকরা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক আফতাব হত্যা মামলায় পাঁচজনের ফাঁসি 

25555

ঢাকা, ২৮ মার্চ : একুশে পদকপ্রাপ্ত চিত্র সাংবাদিক আফতাব আহমেদ হত্যা মামলায় পাঁচজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। ঢাকার ৪নং দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আব্দুর রহমান সরদ এ রায় ঘোষণা করেন।

এ সময় একজনকে ৭ বছরের কারাদন্ড দেন বিচারক।

এর আগে ২০ মার্চ রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে মামলার রায় ঘোষণা করার জন্য ২৮ মার্চ দিন ধার্য করেন ট্রাইব্যুনাল।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২৪ ডিসেম্বর রাতে রাজধানীর পশ্চিম রামপুরা ওয়াপদা রোডে ৬৩ নম্বরের নিজ বাসায় খুন হন ফটো সাংবাদিক আফতাব আহমেদ। পরদিন সকালে তার হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। চার তলার ওই বাড়ির তৃতীয় তলায় আফতাব আহমেদ একাই বসবাস করতেন।

২০১৪ সালের ২৫ মার্চ আফতাব আহমেদের গাড়িচালক মো. হুমায়ুন কবিরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব-৩ এর উপ-পরিদর্শক আশিক ইকবাল। ২০১৪ সালে ঢাকা তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েস আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এ মামলায় বিভিন্ন সময় ২০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন- আফতাব আহমেদের গাড়িচালক মো. হুমায়ুন কবির, মো. বিল্লাল হোসেন, হাবিব হাওলাদার, মো. রাজু মুন্সি, মো. সবুজ খান ও মো. রাসেল (পলাতক)।

তিনি ১৯৬৪ সালে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার মাধ্যমে আফতাব আহমেদ সাংবাদিকতা শুরু করেন। ১৯৭৪ সালের দুর্ভিক্ষের সময় কুড়িগ্রামে বাসন্তীর ছবি তুলে তিনি দেশে এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আলোড়ন তুলেছিলেন। আলোকচিত্র সাংবাদিকতায় অনন্য অবদানের জন্য ২০০৬ সালে তিনি একুশে পদকে ভূষিত হন।

এছাড়া তিনি ১৯৭৪ সালের ভয়াবহ দুর্ভিক্ষের সময় উত্তরাঞ্চলে জাল পরে লজ্জা নিবারণকারী বাসন্তীর ছবি তুলে বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেছিলেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের নির্বাচন ১১ এপ্রিল 

58

ঢাকা, ২৮ মার্চ : ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ও নির্বাচন আগামী ১১ এপ্রিল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাব অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ডিএসইসির প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী মোহসিন আল-আব্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। সভায় নির্বাচন কমিশনার ড. উৎপল কুমার সরকার, অশোক কুমার সিংহ ও সরদার ফরিদ আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

তফসিল অনুযায়ী মনোনয়পত্র সংগ্রহ ১ এপ্রিল বেলা ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ও ২ এপ্রিল বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত, মনোয়নপত্র জমাদান ২ এপ্রিল বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত, মনোনয়নপত্র বাছাই ও খসড়া প্রার্থী তালিকা প্রকাশ ২ এপ্রিল, ৩ এপ্রিল মনোনয়ন প্রত্যাহার ও চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ। ভোট গ্রহণ ১১ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুর ১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

মনোয়নপত্র সংগ্রহ, জমা ও প্রত্যাহার কার্যক্রম চলবে ডিএসইসি কার্যালয়ে। ১১ এপ্রিল সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২.৩০টা পর্যন্ত এজিএম অনুষ্ঠিত হবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুর অনলাইন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত 

জামাল উদ্দিন বাবলু, লক্ষ্মীপুর, ২২ মাচ : লক্ষ্মীপুর অনলাইন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) ও দৈনিক মানবকন্ঠ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে চন্দ্রগঞ্জ আফজাল সড়কের ১ নম্বর ব্রীজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

লক্ষ্মীপুর অনলাইন সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, সাংবাদিক আজাদ মোটরসাইকেল যোগে চন্দ্রগঞ্জের বাড়ি থেকে লক্ষ্মীপুর যাচ্ছিলেন। পথে ব্রীজ এলাকায় পৌঁছলে আভ্যন্তরীণ রাস্তা থেকে একটি বাইসাইকেল তার মোটরসাইকেলের সামনে এসে পড়ে। এসময় সাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে আহত সাংবাদিককে উদ্ধার করে নোয়াখালীর উড ল্যান্ড প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

একুশে টেলিভিশনের সাবেক চেয়ারম্যানের জামিন 

ঢাকা, ২১ মার্চ : অর্থপাচারের একটি মামলায় একুশে টেলিভিশনের (ইটিভি) সাবেক চেয়ারম্যান আবদুস সালামকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।  একইসঙ্গে তাঁকে কেন স্থায়ী জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে করা আবেদনের শুনানি শেষে আজ মঙ্গলবার বিচারপতি শেখ আবদুল আউয়াল ও বিচারপতি খসরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মাদ আলী জিন্নাহ বিষয়টি জানিয়েছেন।

গত বছরের ১৩ এপ্রিল দুপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপপরিচালক সামছুল আলম বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার অন্য আসামিরা হলেন- আবদুস সালামের ভাই আফতাবুল আলম এবং ইটিভির সাবেক জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক ফজলুর রহমান শিকদার। তিনজনের বিরুদ্ধে পরস্পরের যোগসাজশে বৈদেশিক মুদ্রা ক্রয়,সংরক্ষণ ও পাচারের অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, আবদুস সালাম একুশে টিভির চেয়ারম্যান থাকাকালে প্রতিষ্ঠানের হিসাব থেকে ২৬ লাখ ৭০ হাজার টাকা তোলেন। পরে সে টাকা দিয়ে ৩০ হাজার ইউরো কিনে সংরক্ষণ ও পাচার করেন।

ইটিভির সাবেক এ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আরো একাধিক অভিযোগের অনুসন্ধান করছে দুদক।

আবদুস সালাম এক বছরেরও বেশি সময় ধরে কারাগারে ছিলেন। গত বছরের ৬ জানুয়ারি ভোরে তাঁকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। পরে তাঁকে পর্নোগ্রাফি আইনে দায়ের করা ক্যান্টনমেন্ট থানার একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এর পর ২০১৫ সালের ৮ জানুয়ারি বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও আবদুস সালামসহ আরো কয়েকজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে আরেকটি মামলা  করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লক্ষ্মীপুরে বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন 

sqiz5y5d-copy

মোঃ জামাল উদ্দিন  বাবলু, লক্ষ্মীপুর ১৫ মার্চ : লক্ষ্মীপুরে কোটি মানুষের দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের ৮ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, কেক কাটা ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (১৫ মার্চ) বেলা ১১ টায় লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণ থেকে র‌্যালি শুরু হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। পরে প্রেসক্লাব হলরুমে এসে কেক কাটা ও আলোচনাসভায় মিলিত হয় সবাই।

দেশের সর্বাধিক প্রচারিত স্বনামধন্য ও পাঠক প্রিয় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মাইন উদ্দিন পাঠান। বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি সাইদুল ইসলাম পাবেলের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো.কামাল হোসেন।

অন্যান্যের মধ্যে আরো ছিলেন, লক্ষ্মীপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. জহির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস নয়ন, সাংবাদিক মহিউদ্দিন মুরাদ, তৌহিদুর রহমান, মাহবুবুল ইসলাম ভূঁইয়া, সাজ্জাদুর রহমান, মাজহারুল আনোয়ার টিপু, মোহাম্মদ আক্তার আলম, শাকের মোহাম্মদ রাসেল, আনিস কবির, রবিউল ইসলাম খাঁন, পলাশ সাহা, আফজাল হোসেন সবুজ, বিএম সাগর, ফয়জুল আজিম শিশির, নজরুল ইসলাম জয়, রাকিব হোসেন রনি, মো. রুবেল, জামাল উদ্দিন বাবলু, অ আ আবির আকাশ, কিশোর কুমার দত্ত, মো. নজির আহম্মদ, বন্ধু প্রতিদিনের জেলা শাখার সদস্য সচিব রেজাউল করিম রিয়ান, সদস্য জগন্নাথ দাস, মাহমুদুল হাসান রবিন ও মো. সোহাগ প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন- বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে কোটি মানুষের দৈনিকে পরিনত হয়েছে ‘বাংলাদেশ প্রতিদিন’। পত্রিকাটি প্রচার সংখ্যায় শীর্ষ অবস্থানে সবার হাতে-হাতে পাঠকের অন্তরে স্থান করে নিয়েছে। পত্রিকাটির উত্তোরোত্তর সম্বৃদ্ধি কামনা করেন বক্তারা।
পরে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটেন অতিথিবৃন্দ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মাহমুদুর রহমানের সেমিনারে পুলিশের বাধা 

ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি : দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করতে দেয়নি পুলিশ। প্রবন্ধ উপস্থাপনের আগেই পুলিশের বাধার সেমিনার বন্ধ হয়ে যায়। আজ শনিবার গুলশানের একটি সেন্টারে এ সেমিনার হওয়ার কথা ছিল।

‘সীমান্ত হত্যা রাষ্ট্রের দায়’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজক ছিল ‘জনগণতান্ত্রিক আন্দোলন’ নামের একটি সংগঠন। এতে উপস্থাপক ছিলেন বিশিষ্ট কলামিস্ট ফরহাদ মজহার। সেমিনার মুল প্রবন্ধ উপস্থাপনের কথা ছিল মাহমুদুর রহমানের।

সকাল ১০ টায় সেমিনার শুরুর সাথে সাথে গুলশান থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা অনুষ্টানে গিয়ে তা বন্ধ করতে বলেন। তিনি জানান অনুমতি না থাকায় এ সেমিনার করতে দেয়া যাবে না। তাই তা বন্ধ করতে হবে।

এরপর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মাহমুদুর রহমান বলেন, আজকের ঘটনা প্রমান করে দেশ পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। কারণ কোন ঘরোয়া অনুষ্টানে পূর্বানুমতির প্রয়োজন হয় তা কখনো শুনিনি।

পরে উপস্থাপক ফরহাদ মজহার সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে সেমিনারের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

লন্ডন গেলেন শফিক রেহমান 

ঢাকা, ২৪ ফেব্রুয়ারি : অবশেষে লন্ডন গেলেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক শফিক রেহমান। আজ শুক্রবার সকাল ৭টা ৪৯ মিনিটে তাকে বহনকারী তুর্কি এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

শফিক রেহমানের সম্পাদনায় বের হওয়া ‘মৌচাকে ঠিল’ পত্রিকার সহকারী সম্পাদক সজিব ওনাসিস এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, লন্ডনে চিকিৎসারত ক্যান্সার আক্রান্ত স্ত্রী তালেয়া রেহমানকে দেখতে শফিক রেহমানের বৃহস্পতিবার লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল। ভুল বোঝাবুঝিতে তাকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ ফেরত পাঠায়।

সজিব ওনাসিস আরো বলেন, পরে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ইমিগ্রশন কর্তৃপক্ষ শফিক রেহমানকে ফোন করে বিদেশ যেতে তার কোনো বাধা নেই বলে জানান। এরপর শুক্রবার তিনি লন্ডন গেলেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা ও তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ করে হত্যা পরিকল্পনার অভিযোগে গত বছরের ১৬ এপ্রিল রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল সাংবাদিক শফিক রেহমানকে। পরে গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর জামিনে মুক্তি পান তিনি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

শফিক রেহমানকে বিদেশ যেতে বাধা 

ঢাকা, ২৩ ফেব্রুয়ারি : প্রখ্যাত সাংবাদিক শফিক রেহমানকে বিদেশ যেতে বাধা দেয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার অসুস্থ স্ত্রীকে দেখতে তার লন্ডন যাওয়ার কথা থাকলেও বিমানবন্দরে পুলিশের বাধা কারণে তিনি যেতে পারেননি।

শফিক রেহমানের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, তার স্ত্রী তালেয়া রহমান ক্যান্সারে আক্রান্ত। তিনি এখন লন্ডনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাকে দেখার জন্যই শফিক রেহমানের আজ বৃহস্পতিবার সকালে টার্কিশ এয়ারলাইন্সযোগে লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি বিমানবন্দরে পৌঁছালে ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে বাধা দেয়।

উল্লেখ্য, এর আগে উচ্চ আদালত জানিয়েছিলেন, শফিক রেহমানের বিদেশ যেতে বাধা নেই। তার পাসপোর্টও ফেরত দেয়া হয়েছিল।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

দৈনিক আমার দেশের প্রেস খুলে দেয়ার দাবি মাহমুদুর রহমানের 

ঢাকা, ১৩ ফেব্রুয়ারি : দৈনিক আমার দেশের প্রেস খুলে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন পত্রিকাটির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান।

সোমবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সভায় তিনি এ দাবি জানান।

উল্লেখ্য, আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান সাড়ে তিন বছরেরও বেশি সময় কারাবন্দি থাকার পর গত ২৩ নভেম্বর গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

অবশেষে প্যান্ট চুরির মামলায় সাংবাদিক নাজমুলের জামিন 

ঢাকা, ১২ ফেব্রুয়ারি : ঢাকার আশুলিয়া থানায় দায়ের করা প্যান্ট চুরির মামলায় অবশেষে জামিন পেয়েছেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাভার প্রতিনিধি নাজমুল হুদা। ফলে মুক্তিতে আর বাধা নেই তার।

আজ রবিবার ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এস এম কুদ্দুস জামান এ জামিন আদেশ দেন।

এর আগে, আশুলিয়া থানায় করা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলাসহ আরও পাঁচ মামলায় জামিন পান সাংবাদিক নাজমুল। এ নিয়ে সব মামলায় জামিন পেলেন তিনি। ফলে মুক্তি পেতে এখন আর কোনো বাধা নেই তার।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার আশুলিয়ায় তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকদের সাম্প্রতিক আন্দোলন নিয়ে রিপোর্ট করায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাভার প্রতিনিধি নাজমুল হুদাকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনসহ ছয়টি মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তাদের নিষেধ অমান্য করে সংবাদ প্রচার করায় তাদের আক্রোশের শিকার হন সাংবাদিক নাজমুল হুদা।

গত বছর ২৩ ডিসেম্বর রাতে আশুলিয়া থানা পুলিশ বাদী হয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনের সাভার প্রতিনিধি নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে মামলা করে। এর কিছুক্ষণ পরই তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর পুলিশ গত বছর করা ঢাকার আশুলিয়া থানায় প্যান্ট চুরির মামলাসহ আরও পাঁচটি পৃথক মামলায় নাজমুলকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদন করে আদালতে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর