২৪ এপ্রিল ২০১৭
ভোর ৫:৩৭, সোমবার

চৌদ্দগ্রামে ১৫ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৫

চৌদ্দগ্রামে ১৫ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৫ 

10

কুমিল্লা, ২৩ এপ্রিল : কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পৃথক অভিযানে সাড়ে ১৫ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও একটি প্রাইভেটকারসহ পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থানার গোরাই আতারামপাড়া গ্রামের জহিরুল ইসলামের ছেলে কামরুল ইসলাম হৃদয় (২২), গোরাই নাজিরপাড়া গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে মতিউর রহমান (৩২), গোরাই খামারপাড়া গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে জুয়েল রানা (২৪), কক্সবাজার সদরের টেকপাড়ার ইলিয়াছ আলীর মেয়ে মরিয়ম বেগম (৩৮) ও চৌদ্দগ্রামের কাশিনগর ইউনিয়নের পূর্ব শাহাপুর গ্রামের আলী আকবরের ছেলে মনির হোসেন (৩৪)।

আজ রবিবার তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা শেষে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার এএসআই শাহজাহান ও এএসআই হিরণ কুমার দে জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলা দোয়েল চত্বর থেকে শনিবার রাতে সাড়ে ৮ হাজার পিস ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী মনির হোসেন আটক করা হয়। অপর অভিযানে সন্ধ্যায় মহাসড়কের থানা গেইট থেকে একটি প্রাইভেটকারে ৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ হৃদয়, মতিউর, রানা ও মরিয়মে আটক করা হয়।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

হবিগঞ্জে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত ১ 

24

হবিগঞ্জ, ২৩ এপ্রিল : হবিগঞ্জে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে একজন নিহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত ব্যক্তি সদর উপজেলার জমুনাবাদ গ্রামের সুরত আলীর ছেলে জুয়েল মিয়া। এসময় হামলায় অপর একজন আহত হয়েছেন।

এলাকাবাসী জানায়, রোববার ভোর রাতে পূর্ব সুলতানশী গ্রামের জবেদ আলীর ঘরের দরজায় শব্দ হয়। তখন ঘরের লোকজন চিৎকার দেয়। পরে আবারও শব্দ হলে বাড়ির লোকজন ঘর থেকে বের হয়ে ধাওয়া করে জুয়েল মিয়াকে আটক করলে ধস্তাধস্তি শুরু হয়।

এসময় তাদের চিৎকারে এলাকার লোকজন বেরিয়ে এসে গণপিটুনি দিলে জুয়েল মিয়া ঘটনাস্থলেই মারা যান। ধস্তাধস্তিতে আহত হন জবেদ আলীর ছেলে তাজুল ইসলাম। তাকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়াছিনুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, জুয়েলের মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বিশ্বজুড়ে বিজ্ঞানের জন্য মিছিল 

28

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৩ এপ্রিল : প্রকৃত তথ্যের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক আক্রমণের প্রতিবাদে বিশ্বজুড়ে হাজার-হাজার বিজ্ঞানী বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।

ধরিত্রী দিবসকে সামনে রেখে প্রথমবারের মত এই ‘বিজ্ঞানের জন্য যাত্রা/মার্চ’ আয়োজন করা হয়। মার্চ থেকে পরিবেশ সুরক্ষার বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী তোলেন বিজ্ঞানীরা।

আয়োজকরা বলছেন, তারা বিজ্ঞানীদের সুরক্ষা এবং তাদের প্রতি সমর্থনের আহ্বান জানাচ্ছেন।

দিনের প্রধান মিছিলটি অনুষ্ঠিত হয় ওয়াশিংটন ডিসিতে।

উদ্যোক্তারা বলছেন, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরোধিতা করা এই মার্চের উদ্দেশ্য নয়, যদিও প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড অনুঘটকের কাজ করেছে।

ওয়াশিংটন ডিসির মিছিলে ক্যালিফোর্নিয়া একাডেমি অফ সায়েন্সের নির্বাহী পরিচালক, জনাথন ফলি বলেন, বিজ্ঞানীদের গবেষণাকে অযৌক্তিকভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করা হচ্ছে এবং রাজনীতিবিদরা গবেষণাকর্মকে যেভাবে আঘাত করছেন তা নির্যাতনের সমতুল্য।

আমাদের স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা এবং পরিবেশবিষয়ক বিজ্ঞানকে তারা সুনির্দিষ্টভাবে টার্গেট করছে। যে বিজ্ঞান আমাদের সবচেয়ে মূল্যবান বিষয়গুলোকে সুরক্ষা করে।

এর ফলে কিছু মানুষ হয়তো দুর্ভোগে পড়বে, কিছু মানুষ মারা যাবে, বলেন ড. ফলি।

অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় আয়োজকদের ফেসবুক পেজে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউজে মি. ট্রাম্প আসার পর থেকে যে আন্দোলন শুরু হয়েছে তাতে অংশ নিতে মানুষকে তারা উদ্বুদ্ধ করছে।

অতীতে মি. ট্রাম্প জলবায়ু পরিবর্তনকে একটি ভাঁওতাবাজি হিসেবে মন্তব্য করেছিলেন। তার এই দৃষ্টিভঙ্গি বিজ্ঞানীদের মধ্যে উদ্বেগ তৈরি করেছে এবং যুক্তরাষ্ট্রে সাধারণ মানুষদের কেউ কেউ বৈজ্ঞানিকভাবে প্রতিষ্ঠিত তথ্যের বিষয়েও সন্দিহান হয়ে পড়ছেন।

মার্চ ফর সায়েন্সের আরেকটি লক্ষ্য হচ্ছে বিজ্ঞানী এবং তাদের গবেষণাকর্মকে সাধারণ মানুষের আরো কাছে নিয়ে আসা।

আয়োজকরা মনে করেন, সাধারণ মানুষদের সাথে যোগাযোগ সৃষ্টি করাটা বিজ্ঞানীদের জন্য কঠিন হতে পারে এবং তারা এই মার্চ থেকে বিজ্ঞানীদেরও রাজনীতিতে আসার জন্য উদ্বুদ্ধ করছেন, যাতে তাদের কথা তারা কার্যকরভাবে তুলে ধরতে পারেন। -বিবিসি

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জঙ্গির নামে বাংলাদেশকে নিয়ে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র চলছে 

35

ঢাকা, ২৩ এপ্রিল : জঙ্গির নামে বাংলাদেশকে নিয়ে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র চলছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

শনিবার বিকালে ময়মনসিংহের অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটরিয়ামে কওমী মাদরাসা শিক্ষা সনদের সরকারি স্বীকৃতি বিরতণ অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইসলামের নামে একের পর এক মুসলিম দেশকে সন্ত্রাসী ও জঙ্গি রাষ্ট্র বানানো হচ্ছে। সিরিয়া, লিবিয়া, ইরাকের মতো বাংলাদেশকেও অকার্যকর রাষ্ট্র করার আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র চলছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, কওমী সনদ স্বীকৃতি দেশের আলেম ওলামারা যেভাবে চেয়েছেন সেভাবেই প্রধানমন্ত্রী স্বীকৃতি দিয়েছেন। খুব শিগগিরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ স্বীকৃতি রি-প্রেজেন্ট করার নির্দেশনা দেবেন।

ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ খান পাঠান, জেলা প্রশাসক খলিলুর রহমান, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, জাতীয় দ্বীনি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ, হাফেজ মাওলানা মাজহারুল ইসলাম, বড় মসজিদের খতিব আব্দুল হক, মুফতি তাজুল ইসলাম কাসেমী প্রমুখ।

সবশেষে ওলামা মাশায়েখদের উদ্দেশ্য ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমান স্লোগান দেন। এ সময় বরেণ্য আলেম-ওলামা ও অনুষ্ঠানে উপস্থিত শ্রোতারাও তার সঙ্গে কন্ঠ মেলান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আ.লীগকে প্রমাণ করতে হবে জনবিরোধী কাজে তারা নেই: বি. চৌধুরী 

91111

ঢাকা, ২২ এপ্রিল : রামপাল কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পকে জনবিরোধী উল্লেখ করে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিকল্পধারার চেয়ারম্যান এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগ জনগণের সঙ্গে থাকার বেশি দাবি করে। তাই তাদের প্রমাণ করতে হবে, জনবিরোধী কাজে তারা নেই।

আজ শনিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে এক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

‘রামপাল কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র-সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্যের ওপর প্রভাব’ শীর্ষক এই গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে ‘সেভ দ্য সুন্দরবন’ ফাউন্ডেশন।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘শেষবারের মতো বলব, এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের কথাগুলো শুনুন।’ তিনি আরও বলেন, ‘সরকার বোঝে না, তাদের বোঝাতে হবে। সোজা কথা, বাংলাদেশে কয়লাবিদ্যুৎ হবে না।’

একই অনুষ্ঠানে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘এত কিছু বলার পরও সরকারের কানে ঢুকছে না। আসলে কেউ জেগে ঘুমালে জাগানো যায় না। এই জাগানোর জন্য চেষ্টা করতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপিকেও জাগানোর দরকার আছে।’

জাফরুল্লাহ চৌধুরী অভিযোগ করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে ভারত বিজয় হয়নি। কিন্তু ফিরে এসে হেফাজত বিজয় করেছেন। এটা রামপালের মতো আরেকটি বিপর্যয় যেন ডেকে না আনতে পারে, সে জন্য সবাইকে সতর্ক হতে হবে।

‘সেভ দ্য সুন্দরবন’ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শেখ ফরিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে গোলটেবিল বৈঠকে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, কল্যাণ পার্টির সভাপতি সৈয়দ মো. ইব্রাহিম, গণমোর্চার প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সব বক্তাই রামপাল কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলের দাবি জানান।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ম্যানইউ’র খেলা দেখতে গিয়ে নিহত ৭ ফুটবল সমর্থক 

5887

স্পোর্টস ডেস্ক, ২২ এপ্রিল : ইউরোপা লিগের প্রিয় ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের (ম্যানইউ) খেলা দেখতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কমপক্ষে৭ জন সমর্থক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন। তবে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। মর্মান্তিক ও ভয়াবহ এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়ার কালাবার নামক একটি এলাকায়।

গেলো বৃহস্পতিবার রাতে আন্ডারলেখতের বিরুদ্ধে খেলা ছিল ম্যানইউ’র। একটি টিনের ছাউনি দেয়া ঘরে অনেক ম্যান ইউ সমর্থক জড়ো হয়েছিলেন টিভিতে খেলা দেখার জন্য। খেলা চলাকালীন ঘরের পাশে একটি ট্রান্সফর্মারে হঠাৎই জোরালো বিস্ফোরণ হয়। তার পরই হাইটেনশন কেবল ছিঁড়ে পড়ে ওই ঘরের ছাদে। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন ওই সমর্থকরা।

এই বীভৎস ট্রাজেডিতে স্তম্ভিত ফুটবলবিশ্ব। গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড কর্তৃপক্ষ এবং নাইজেরিয়ায় অবস্থিত ব্রিটিশ হাইকমিশন। নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে তারা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, অন্ততপক্ষে ৭ জন মারা গেছেন। এছাড়া পুলিশের দাবিও, মৃতের সংখ্যা ৭, হাসপাতালে ভর্তি ৩০ জন।

ঘটনার এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, ‘‌ট্রান্সফর্মারে আগুনের ফুলকি দেখে আমিই প্রথম ছিটকে বেরিয়ে আসি ওই ঘর থেকে। সবাই তখন বাইরে বেরনোর জন্য হুড়োহুড়ি ফেলে দিয়েছিল। কিন্তু দরজা দিয়ে তো আর সবাই বেরতে পারবে না। তখনই হাইটেনশন কেবল ছিঁড়ে পড়ে ঘরের ওপর। যারা বাইরে বেরতে পারেননি, তারাই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। ’‌ ইতিমধ্যেই নাইজেরিয়া সরকার ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। সূত্র: বিবিসি

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আমিরাতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত 

911

ঢাকা, ২২ এপ্রিল : সংযুক্ত আরব আমিরাতের গ্রিন সিটি আল আইনে সড়ক দুর্ঘটনায় আবদুস ছামাদ (৫০) নামের এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। নিহত আবদুল  ছামাদ মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আল আইনে ঠিকাদারের কাজ করতেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে আল আইনের আল জাহার সড়কে দ্রুতগামী একটি যানবাহনকে জায়গা দিতে গিয়ে নিজের সাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গ্রিলের সঙ্গে ধাক্কা খান আব্দুস ছামাদ। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। লাশ আল আইন হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে লাকী আখন্দের মরদেহ 

39

বিনোদন ডেস্ক, ২২ এপ্রিল : বাংলা সঙ্গীতাঙ্গনের কিংবদন্তি ও মুক্তিযোদ্ধা লাকী আখন্দের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হয়েছে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তার মরদেহ শহীদ মিনারে নেওয়া হয়। সেখানে তার মরদেহে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। এ সময় বিউগলে করুণ সুর বাজানো হয়। সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরসহ অন্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য  দুপুর ১টা পর্যন্ত তার মরদেহ এখানে রাখা হবে।

এর আগে শনিবার সকাল ১০টায় রাজধানীর আরমানিটোলা মাঠে তার নামাজে জানাজা সম্পন্ন হয়।

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে তার দ্বিতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

টানা আড়াই মাস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শেষে গত সপ্তাহে আরমানিটোলার নিজ বাসায় ফিরেছিলেন এই শিল্পী। শুক্রবার দুপুরে তার শরীরের অবনতি ঘটে। দ্রুত নিয়ে যাওয়া হয় রাজধানীর মিটফোর্ড হাসপাতালে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬১।

লাকী আখন্দের উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে রয়েছে— ‘এই নীল মনিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘কবিতা পড়ার প্রহর এসেছে’, ‘যেখানে সীমান্ত তোমার’, ‘মামনিয়া, ‘কি করে বললে তুমি’ ‘লিখতে পারি না কোনও গান, ‘ভালোবেসে চলে যেও না’ প্রভৃতি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

দাউদ ইব্রাহিমকে খুন করতে চান দীপিকা? 

38

বিনোদন ডেস্ক, ২২ এপ্রিল : ঠিকই পড়ছেন। দীপিকা দাউদকেই খুন করতে চাইছেন। তবে তা বাস্তবে নয়, বড়পর্দায়। জানা গেছে, বিশাল ভরদ্বাজের পরের ছবিতে জুটি বাঁধবেন দীপিকা পাড়ুকোন ও ইরফান খান। আশির দশকের এক ভয়ানক নারী ডনের চরিত্রে অভিনয় করবেন দীপিকা। ফের বড়পর্দায় দেখা যাবে ‘পিকু’র এই জুটির ম্যাজিক।

চিত্রনাট্য অনুযায়ী, দীপিকার চরিত্রের নাম রহিমা খান। যদিও সকলে তাকে স্বপ্না দিদি নামেই চিনবেন। এমন একজন মাফিয়া যিনি দাউদ ইব্রাহিমকে মেরে ফেলতে চান। ইরফানের চরিত্রটি এক স্থানীয় গ্যাংস্টারের। যিনি দীপিকাকে ভালবেসে দাউদকে মারার কাজে সাহায্য করেন। হানি ত্রেহান পরিচালিত এ ছবির গল্প নেওয়া হয়েছে এস হুসেন জায়িদির বই ‘মাফিয়া কুইনস্ অব মুম্বাই’ থেকে।

এ ছবির সহপ্রযোজক প্রেরণা আরোরা সাংবাদিকদের বলেন, ‘খবরটা ঠিক। আমরা বিশালজির সঙ্গে একটা ছবি প্রযোজনা করছি। এই যৌথ প্রকল্প নিয়ে আমরা খুবই আশাবাদী।’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নিরপেক্ষ সরকার বলে কিছু নেই: নাসিম 

gbw6gb1c-copy

ঢাকা, ২১ এপ্রিল : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, সংবিধানে নিরপেক্ষ সরকার বলে কিছু নেই। এ দেশে আর কোনো দিন অনির্বাচিত সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না। বিএনপির দাবি অযৌক্তিক। তাই দলটির উচিত, চক্রান্ত আর ষড়যন্ত্রের পথ পরিহার করে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে ফিরে আসা।

নাসিম আরও বলেন, কোনো দল নির্বাচনে এল কি এল না, তা দেখার সুযোগ নেই। এ দেশের মানুষ আর হরতালের নামে অরাজকতা ও অশান্তি চায় না।

মন্ত্রী আজ শুক্রবার বিকেলে সিরাজগঞ্জ সার্কিট হাউসে জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের উদ্দেশে এ কথাগুলো বলেন।

নির্বাচনে বিজয়ের জন্য হেফাজতের সঙ্গে সরকারের সখ্য বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নাসিম বলেন, আওয়ামী লীগ তার দলীয় নীতি ও আদর্শ নিয়ে জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে এবং যাবে। হেফাজতের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নীতি ও আদর্শের কোনো মিল নেই। বরং বিএনপি হেফাজতকে কাজে লাগিয়ে ষড়যন্ত্রের পথে পা দিয়েছিল।

সিরাজগঞ্জের জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দীকার সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদ, চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রেসিডেন্ট আবু ইউসুফ, পৌর মেয়র সৈয়দ আবদুর রউফ প্রমুখ।

সভায় সব দপ্তরের প্রধান, তাঁদের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শামীম আলম অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

মন্ত্রী এর আগে কাজীপুরে আরআইএম ডিগ্রি কলেজের এবং সীমান্ত বাজারে আইএইচটি ভবনের নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন।

শেখ হাসিনাকে উন্নয়নের নেত্রী উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, সারা বিশ্ব বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রশংসা করেছে। ছিটমহল উদ্ধার, পদ্মা সেতু নির্মাণ, বিদ্যুৎ উৎপাদনসহ সব ক্ষেত্রেই উন্নয়নের মডেল এখন বাংলাদেশ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বিএনপি মানসিক ও রাজনৈতিক প্রতিবন্ধী দল : হানিফ 

186

ঢাকা, ২১ এপ্রিল : আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি বিভিন্ন সময় সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও অসংলগ্ন কথা বলে জনগণের কাছে ‘মানসিক ও রাজনৈতিক প্রতিবন্ধী দল’ হিসেবে প্রমাণ করেছে।

শুক্রবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা করেন।

হানিফ বলেন, বিএনপি রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকাকালীন ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছে। এখন বর্তমান সরকারের উন্নয়নে ঈর্ষান্বিত হয়ে মিথ্যাচার করছে। সরকারের উন্নয়ন পদক্ষেপ নিয়ে অহেতুক মিথ্যাচার করে জনমনে বিভ্রান্তি ছাড়াচ্ছে। এসব করে দলটি মানসিক প্রতিবন্ধী হিসেবে জনগণের কাছে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। রাজনৈতিক বিকারগ্রস্ত ও দেউলিয়া হয়ে গেছে।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে কী নেবে না সেটা বিএনপির বিষয় বলে মন্তব্য করে হানিফ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে। আমরা আশা করি, বিএনপি ওই নির্বাচনে এসে জনগণের কাছে নিজেদের আস্থার পরীক্ষা দেবে। তবে, নির্বাচনে অংশ নেয়া বিএনপির গণতান্ত্রিক অধিকার। না নেয়াও তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার।

এ সময় দায়িত্বশীল দল হিসেবে বিএনপিকে সরকারের পাশে থেকে দুর্গত মানুষকে সহায়তা করার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের এ নেতা।

হাওর পরিস্থিতি সম্পর্কে হানিফ বলেন, হাওরে বাঁধ নির্মাণে কারও গাফলতি থাকলে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আহমেদ হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, সামছুন্নাহার চাঁপা, রোকেয়া সুলতানা, রেমন আরেং, এসএম কামাল হোসেন, গোলাম রব্বানী চিনু, ফরিদুন্নাহার লাইলী, ড. আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

এফবিসিসিআই নির্বাচনে শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের প্যানেল ঘোষণা 

88

অর্থনৈতিক ডেস্ক, ২১ এপ্রিল :  ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই নির্বাচনে (২০১৭-১৯) শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদের প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। প্যানেলে অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ থেকে ১৮ জন এবং চেম্বার গ্রুপ থেকে ১৮ জনের নাম ঘোষণা করা হয়।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাবেক নেতাদের উপস্থিতিতে মহিউদ্দিন নিজের প্যানেল সদস্যদের নাম ঘোষণা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি সালমান এফ রহমান, কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, এ কে আজাদ, ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হক প্রমুখ।

নির্বাচনে প্যানেল অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের সদস্যরা হলেন বাংলাদেশ এগ্রিকালচার মেশিনারিজ মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের খন্দকার মঈনুর রহমান জুয়েল, বাংলাদেশ এগ্রো প্রসেসর অ্যাসোসিয়েশনের এসএম জাহাঙ্গীর হোসাইন, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউট সোর্সিংয়ের সাফকাত হায়দার, বাংলাদেশ অটো স্পেয়ার পার্টস মার্চেন্ট অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের আবুল আয়েস খান, বাংলাদেশ কোল্ড স্টোরেজ অ্যাসোসিয়েশনের মুনতাকিম আশরাফ, বাংলাদেশ হার্ডবোর্ড ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের নিজামুদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ জুয়েলারি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের আনোয়ার হোসাইন, বাংলাদেশ লেদারগুড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের আমজাদ হোসাইন, বাংলাদেশ পেপার ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের শফিকুল ইসলাম ভরসা, বাংলাদেশ প্লাস্টিক প্যাকেজিং, রোল ম্যানুফ্যাকচারার্স ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের আবু মোতালেব, বারবিডার হাবিবুল্লাহ ডন, রেস্টুরেন্ট ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের খন্দকার রুহুল আমিন, সেকেন্ডারি কোয়ালিটি টিনপ্ল্যাট ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেনের নিজামুদ্দিন রাজেশ, সুইয়িং থ্রেড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েশনের আব্দুল হক, ক্যাব অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের হাফেজ হারুন, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশনের শমী কায়সার, আউট সোর্সিং অ্যান্ড লজিস্টিক সার্ভিস প্রভাইডার অ্যাসোসিয়েশনের আবু নাছের ও প্রাইভেট রেডিও ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের রাশেদুল হোসাইন চৌধুরী রনি।

এছাড়া চেম্বার গ্রুপ থেকে এই প্যানেলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বাগেরহাট চেম্বারের হাসিনা নেওয়াজ, বরিশাল মেট্রোপলিটন চেম্বারের নিজাম উদ্দিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া চেম্বারের আজিজুল হক, চুয়াডাঙ্গা চেম্বারের দীলিপ কুমার আগারওয়াল, কুমিল্লা চেম্বারের মাসুদ পারভেজ খান, ফেনী চেম্বারের একেএম শাহেদ রেজা, গাজীপুর চেম্বারের মোহাম্মদ আনোয়ার সাদাত সরকার, গোপালগঞ্জ চেম্বারের শেখ ফজলে ফাহিম, জামালপুর চেম্বারের রেজাউল করিম রেজনু, কিশোরগঞ্জ চেম্বারের কাজী গোলাম আশরিয়া, লালমনিরহাট চেম্বারের শেখ আব্দুল হামিদ, মানিকগঞ্জ চেম্বারের তাবারুকুল তাসাদ্দেক হোসাইন খান টিটু, মুন্সিগঞ্জ চেম্বারের কোহিনূর ইসলাম, নরসিংদী চেম্বারের প্রবীর কুমার সাহা, নোয়াখালী চেম্বারের মোহাম্মদ আতাউর রহমান ভূইয়া, রাঙ্গামাটি চেম্বারের মোহাম্মদ বজলুর রহমান, সুনামগঞ্জ চেম্বারের খায়রুল হুদা চপল এবং টাঙ্গাইল চেম্বারের আবুল কাশেম আহমেদ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পাকিস্তানে সামরিক আদালতে ৩০ জঙ্গির ফাঁসির আদেশ 

588

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২১ এপ্রিল : পাকিস্তানে সামরিক আদালত অভিযুক্ত ৩০ জঙ্গির ফাঁসির আদেশে বুধবার স্বাক্ষর করেছেন দেশটির সেনাপ্রধান কামার জাবেদ বাজওয়া। ২০১৪ সালে পাকিস্তানের পেশওয়ারে তালেবান জঙ্গিদের হামলায় ১৪৪ স্কুলশিশু নিহত হওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত ওই ৩০ জঙ্গির ফাঁসির আদেশে তিনি স্বাক্ষর করেন।

এ বিষয়ে দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাবেদ বাজওয়া জানান, খুবই গোপনীয়তার সঙ্গে আমরা বিচারকাজ সম্পন্ন করেছি। অতি দ্রুত অভিযুক্তদের ফাঁসির এ রায় কার্যকর করা হবে।

এদিকে পাকিস্তানের বিরোধী দল ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো এই বিচার ব্যবস্থার সমালোচনা করে বলছেন, সেনাবাহিনী ছাড়া সাধারণ মানুষের বিচার সামরিক আদালতে করা সঠিক হয়নি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নান্দাইলে বাসের ধাক্কায় স্কুলছাত্রসহ নিহত ২ 

98

ময়মনসিংহ, ২১ এপ্রিল : ময়মনসিংহের নান্দাইলে বাসের ধাক্কায় এক স্কুলছাত্রসহ সিএনজি আটোরিকশার দুই আরোহী নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার কানারামপুর এলাকায় ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার কাছিনগর ইউনিয়নের বিল ভাজেরা এলাকার সাহাদুল ইসলামের ছেলে রাকিব (১৩) ও একই এলাকার সিএনজি আটোরিকশার চালক সাথিল (২৮)। তারা সম্পর্কে মামাতো-ফুপাতো ভাই।

নান্দাইল হাইওয়ে থানার ওসি ওহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ঘুষ ছাড়া কেউ চাকরি পেলে সংবর্ধনা দেব: সেলিম 

25uw1mka-copy

ঢাকা, ২০ এপ্রিল : বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, এখন বাংলাদেশে চাকরির জন্য প্রত্যেককেই ঘুষ দিতে হয়। ঘুষ ছাড়া চাকরি পেয়েছেন এমন লোক এখন খুঁজে পাওয়া যাবে না। ঘুষ ছাড়া চাকরি নিয়েছেন এমন কাউকে পাওয়া গেলে তাকে সংবর্ধনা দেবেন তিনি।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘ঘুষ ছাড়া চাকরি চাই’সহ সাত দফা দাবিতে যুব ইউনিয়নের সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম আরও বলেন, ‘এমএ, বিএ ও মেট্রিক পাস, শিক্ষাবঞ্চিত সাধারণ নাগরিক কিংবা বড় অফিসার থেকে শুরু করে পিয়নের চাকরি হোক, ঘুষ ছাড়া চাকরি পেয়েছে— এরকম লোকের খোঁজ পেলে আমার কাছে নিয়ে আসবেন। আমি এই প্রেসক্লাবের সামনে তার ছবি সাঁটিয়ে রেখে দেব, যাতে দেশের ১৬ কোটি মানুষ দেখতে পারে।’

স্বাধীন দেশে ঘুষ ক্রমান্বয়ে ছড়িয়ে পড়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, দুর্নীতির কারণেই মগবাজার ফ্লাইওভারের নির্মাণ ব্যয় বেড়ে গেছে। কাজ শুরু হয়, ছয় মাস পেছালে সেটা দ্বিগুণ হয়ে যায়। আবার ছয় মাস পেছালে আরও দ্বিগুণ বেড়ে যায়। যেটা তিন হাজার কোটি টাকায় শেষ হওয়ার কথা, সেটা দুই লাখ কোটি টাকায়ও শেষ করতে পারে না।

চাকরিসহ সব ক্ষেত্রে সবার সমান অধিকার ও সুযোগ নিশ্চিত করার দাবি জানিয়ে সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘সব সরকার আমাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে। অধিকার যেন বাস্তবায়ন হয় সেজন্য সব কিছু করতে হবে। ঘুষ ছাড়া চাকরির দাবির পাশাপাশি বদলি ও পদোন্নতিতে ঘুষ এবং স্বজনপ্রীতির বিরুদ্ধেও আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।’

যুব ইউনিয়ন সভাপতি হাসান হাফিজুর রহমান সোহেলের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন সুমনা সোমা, সাব্বাহ আলী, রোকনুজ্জামান, জিএম জিলানী শুভ, হাফিজ আদনান রিয়াদ, শেখ আবদুল মান্নান, শিশির চক্রবর্তী, জোনাকি জাহান, রিয়াজ উদ্দিন, খান আসাদুজ্জামান মাসুম প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে ঘুষ ছাড়া চাকরির দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিতে একটি মিছিল বের হলে শাহবাগ শিশুপার্কের সামনে পুলিশ আটকে দেয়। পরে একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়ে স্মারকলিপি দিয়ে আসে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর