২০ নভেম্বর ২০১৭
সকাল ৯:৪৮, সোমবার

তামিম-লিটনকে জরিমানা

তামিম-লিটনকে জরিমানা 

087

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৯ নভেম্বর : আম্পায়ারের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে জরিমানা করা হয়েছে। দুজনকেই ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ করে জরিমানা করা হয়।

শনিবার মিরপুররে শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বিপিএলের পঞ্চম আসরের ম্যাচে মুখোমুখি হয় রংপুর রাইডার্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। রংপুরের ব্যাটসম্যান রবি বোপারার বিপক্ষে কট বিহাউন্ডের আবেদন নাকচ করে দিলে আম্পায়ারের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হন তামিম ও লিটন। বিবিসির কোড অব কন্ডাক্টের দুই নং ধারা ভঙ্গ করায় দায়ে দুজনকে জরিমানা করা হয়।

ম্যাচ শেষে দুই অনফিল্ড আম্পায়ার র‌্যানমোর মার্টিনেজ ও মাহফুজুরু রহমান, তৃতীয় আম্পায়ার মোর্শেদ আলি খান ও চতুর্থ আম্পায়ার মুজাহিদুজ্জামান তামিম ও লিটনের বিপক্ষে অভিযোগ জানান। এরপর দুজনকে জরিমানা করা হয়।

জরিমানার পাশাপাশি দুজনের নামের পাশে ৩ ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয়। চলতি টুর্নামেন্টে আর এক ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হলেই এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হবেন তামিম-লিটন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

টস জিতে চিটাগংকে ব্যাটিংয়ে পাঠালো খুলনা 

211

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৭ নভেম্বর : পাঁচ ম্যাচে মাত্র একটি জয় নিয়ে দারুণ বিপদে আছে চিটাগং ভাইকিংস। ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়েও জিততে পারছে না দলটি। বিপিএলে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে হলে টানা জয়ের বিকল্প নেই সৌম্য-তাসকিনদের সামনে।

ষষ্ঠ ম্যাচে টস জিতে খুলনার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন চিটাগং ভাইকিংসকে।

বেশ কয়েকটি পরিবর্তন হয়েছে চিটাগংয়ের স্কোয়াডে। অধিনায়ক মিসবাহ ইল হক, দিলশান মুনাবিরা, শুভাশীষ রায় দল থেকে বাদ পড়েছেন। নজিবুল্লাহ জাদরান, আল আমিন ও স্টিয়ান ভ্যান জাইলকে আজ দলে নেয়া হয়েছে। পরিবর্তন এসেছে খুলনার স্কোয়াডেও। জফরা আর্চার ও আকিলা ধনঞ্জয়কে বাদ দেওয়া হয়েছে। তাদের বদলে সেকুগে প্রসন্ন ও কাইল অ্যাবটকে নিয়ে নামবেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের বিপক্ষে ৮ উইকেটে হেরে এবারের বিপিএল পর্বটা শুরু করে চিটাগং ভাইকিংস। পরের ম্যাচে অবশ্য রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচটা জিতেছিল মিসবাহ উল হকের দল। পরের ম্যাচে খুলনা ও দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে আবার কুমিল্লার বিপক্ষে হারে চিটাগং ভাইকিংস। বৃষ্টির কারণে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচটা অবশ্য পরিত্যক্ত হয়েছে।

বর্তমান অবস্থা থেকে দ্রুতই পরিত্রাণ পেতে হবে চিটাগং ভাইকিংসকে। বিশেষ করে ব্যাটসম্যানদের রানে ফেরাটা খুবই জরুরি। ওপেনিংয়ে সৌম্য সরকারকে হাল ধরতে হবে। এনামুলকেও নিজের নামের সুনাম রাখতে হবে। এ ছাড়া অধিনায়ক মিসবাহ, মুনাবিরা, রিসদের রানে ফেরাটা খুবই জরুরি চিটাগং ভাইকিংসের জন্য।

ভালো অবস্থায় নেই খুলনা টাইটানসও। পাঁচ ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা জিতেছেন দুটি ম্যাচে। পয়েন্ট টেবিলের চারে রয়েছে দলটি। এই ম্যাচে জয় পেলে অবশ্য তিন নম্বরে উঠে আসবেন মাহমুদউল্লাহরা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বিয়ের কাজটা সেরেই ফেললেন সেরেনা 

The Met Gala 2017

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৭ নভেম্বর : অনকে জল্পনা কল্পনার পর এবার শুভ কাজটা সেরেই ফেললেন টেনিস রাণী সেরেনা উইলিয়ামস।

বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রেডিটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা অ্যালেক্সিস ওহানিয়ানের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন সেরেনা। তাদের বিয়ে উপলক্ষে নববধূর সাজে সেজেছিল আমেরিকার নিউ অরলিন্স অঙ্গরাজ্যের কনটেম্পোরারি আর্টস সেন্টার।

বিভিন্ন অঙ্গনের একঝাঁক তারকার পদচারণায় মুখর হয়েছিল সেন্টারটি। এতে উপস্থিত হয়ে ভিন্নমাত্রা যোগ করেছিলেন ২৫০ জন অতিথি।

অনুষ্ঠানে ব্যয় হয়েছে ১০ লাখ ডলার। তা আলোকিত করেছেন ভোগ ম্যাগাজিনের কিংবদন্তি সম্পাদক অন্না উইনট্যুর, রিয়েলিটি টিভি তারকা কিম কার্দিশিয়ান, অভিনেত্রী এভা লঙ্গোরিয়া, গায়ক কিয়ারার মতো তারকারা। তাদের জন্য কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল।

গত সেপ্টেম্বরে সেরেনা-ওহানিয়ানের সংসারে আসে প্রথম সন্তান। কন্যাসন্তান ঘর আলোকিত করলেও বিয়ের কাজটি সারেননি তারা। অবেশেষে সেটিও সেরে ফেললেন এ দম্পতি।

২০১৫ সালে রোমে ৩৪ বছর বয়সী ওহানিয়ানের সঙ্গে পরিচয় হয় ৩৬ বছরের সেরেনার। প্রথম দর্শনেই একে অপরকে ভালো লাগে। সেই ভালো লাগা থেকে গভীর প্রণয়। তাই কালবিলম্ব না করে চটজলদি আংটিও বদল করে ফেলেন।

এরপর প্রকাশ্যে বিভিন্ন জায়গায় ডেট করেছেন ওহানিয়ান-সেরেনা। ভালোবাসার প্রতীক হিসেবেই তাদের ঘরে আসে সন্তান। এতকিছু ঘটে গেলেও বিয়ে করেননি প্রেমিক জুটি। এবার তাও সম্পন্ন করলেন। এরই সঙ্গে প্রণয় পরিণত হলো পরিণয়ে।

ক্যারিয়ারে মোট ২৩টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম শোকেসে ভরেছেন সেরেনা। সবশেষ গ্র্যান্ডস্ল্যাম জেতেন গেলো বছরের শুরুতে। অনাগত সন্তানের সুষ্ঠু জন্মদানের কথা ভেবে সেই অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জেতার পর আর কোর্টে নামেননি মার্কিন কৃষ্ণকলি। শিগগির তাকে কোর্ট মাতাতেও দেখা যাবে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

জাকির-মুমিনুলের ব্যাটে উড়ে গেল সিলেট 

08241

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৭ নভেম্বর : দাপটের সঙ্গে বিপিএলের পঞ্চম আসর শুরু করা সিলেট সিক্সার্স দ্রুতই নিজেদের হারিয়ে ফেলেছে। চলতি ঢাকা পর্বে জয়ের মুখ দেখেনি তারা। শুক্রবার পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকা রাজশাহী কিংসের কাছে স্রেফ উড়ে গেল নাসির হোসেনের দল। মুমিনুলের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পর জাকির হাসানের বিস্ফোরক হাফ সেঞ্চুরিতে ১৫ বল এবং ৭ উইকেট হাতে রেখেই আজ শুক্রবারের প্রথম ম্যাচ জিতে নিল ড্যারেন স্যামির দল।

সিলেটের দেওয়া ১৪৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে রাজশাহী কিংস। মুমিনুল হক এবং রনি তালুকদার মিলে ৬৫ রানের উদ্বোধনী জুটি উপহার দেন। ২২ বলে ২৪ করা রনি নাসিরের বলে ক্যাচ দিলে ভাঙে এই জুটি। এরপর সামিট প্যাটেল মাত্র ১ রান করে নাবিল সামাদের শিকার হন। তবে অপর ওপেনার মুমিনুল দারুণ খেলছিলেন। আবুল হাসানের শিকার হওয়ার আগে তার সংগ্রহ ৩৬ বলে ৪২। এতে তেমন কোনো সমস্যা হয়নি রাজশাহীর।

মুশফিকুর রহিম এবং জাকির হাসান দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। ২৬ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ৩ ওভার বাউন্ডারিতে ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন জাকির। আর ২০ বলে ৩ বাউন্ডারিতে অপরাজিত ২৫ রান করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন মুশফিক।

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬ উইকেটে ১৪৬ রান তোলে সিলেট সিক্সার্স। কিন্তু শুরুটা তাদের মসৃণ হয়নি। টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই বড় ওপেনিং জুটি পেয়েছে সিলেট। তবে আজ দলীয় ১ রানেই মোহাম্মদ সামির বলে ফ্র্যাংকলিনের তালুবন্দি হন ফ্লেচার। অপর ওপেনার উপুল থারাঙ্গাও আজ বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ১৪ বলে ১‌০ রান করে তিনি মেহেদী মিরাজের ঘূর্ণিতে বোল্ড হয়ে যান।

সিলেটের তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে উইলিয়ামেসের বলে। ১১ বলে ১০ রান করে মেহেদী মিরাজের হাতে ধরা পড়েন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান। অধিনায়ক নাসির হোসেনও আজ সুবিধা করতে পারেননি। ১১ বলে ৯ রান করে সামিট প্যাটেলের বলে বোল্ড হয়ে যান তিনি।

সতীর্থদের যাওয়া-আসার মাঝে একাই লড়ছিলেন দানুশকা গুনাথিলাকা। ৩৬ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ২ ওভার বাউন্ডারিতে তার ৪০ রানের ইনিংসটি থামে ফ্র্যাংকলিনের বলে। ব্যর্থতার বোঝা টানতে টানতে আজ ঘুরে দাঁড়ান সাব্বির রহমান। ব্রেসনানের সঙ্গে জুটি বেঁধে শুরু করেন পাল্টা আক্রমণ। আউট হওয়ার আগে ২৬ বলে ১ বাউন্ডারি ৪ ওভার বাউন্ডারিতে ৪১ রান করেন। ব্রেসনান ১৭ বলে ২৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

পাকিস্তানের কাছে ২ রানের কষ্টের হার যুবাদের 

33

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৬ নভেম্বর : প্রথমে ব্যাট করে ২৭৪ রানের ভালো স্কোর। অনুর্ধ্ব-১৯ যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার দারুণ সম্ভাবনা উঁকি মারছিল বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু হলো না।বৃষ্টি আইনে ২ রানে হেরে স্বপ্ন ভঙ্গ জুনিয়র টাইগারদের।

মালয়েশিয়াতে ২৭৫ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে ৬ ওভারের মধ্যে পাকিস্তানের ২ উইকেট তুলে নিয়েছিল বাংলাদেশের যুবারা। কিন্তু সেখান থেকে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় পাকিস্তানি যুবারা। ৩৯ ওভারে ৫ উইকেটে ১৯৯ রান তুলে ফেলে তারা। এরপর শুরু হয় বৃষ্টি। খেলা আর মাঠেই গড়াতে পারেনি।ম্যাচের মিমাংসা হয় বৃষ্টি আইনে। সেখানে ২ রানে ম্যাচ জিতে ফাইনালে পৌঁছে পাকিস্তান।

এরআগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২৭৪ রান তুলে বাংলাদেশ। পিনাক ঘোষ ৮২, সাইফ ৬১ রান করেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

আবারও আর্জেন্টিনার কোচ হতে চান ম্যারাডোনা 

3221

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৬ নভেম্বর : আবারও আর্জেন্টিনার কোচ হওয়ার ইচ্ছা দিয়েগো ম্যারাডোনার। গত পরশু রাশিয়ায় প্রীতি ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ৪-২ গোলে আর্জেন্টিনা হেরে যাওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের পর রাশিয়ার কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে যায় গতবারের রানার্সআপরা। প্রথমটিতে স্বাগতিকদের ১-০ ব্যবধানে হারায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু লিওনেল মেসিকে ছাড়া নাইজেরিয়ার বিপক্ষে দুই গোলে এগিয়ে থেকেও ৪-২ ব্যবধানে হারের লজ্জায় ডোবে। এ ম্যাচে বিশ্রাম নিয়ে আগেই বার্সেলোনায় ফিরে যান মেসি। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে ইকুয়েডরের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করে দলকে বিশ্বকাপে তোলেন মেসি। এরপর প্রথমবার প্রীতি ম্যাচ ট্যুর দিয়ে নিজেদের ঝালিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে ২০১৮ বিশ্বকাপের আয়োজক রাশিয়া সফর করেন জর্জ সাম্পাওলির শিষ্যরা।

মেসির অনুপস্থিতিতে যেন বাছাইপর্বের বাজে অবস্থার পুনরাবৃত্তি ঘটাল দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা! প্রত্যাশিত জয়ের সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিতে ব্যর্থ হয় লাতিন আমেরিকান পরাশক্তিরা। কোচ সাম্পাওলির ওপরও চাপটা বেড়ে গেল। উত্তরসূরিদের এমন পারফরম্যান্সে হতাশ ৫৭ বছর বয়সী ম্যারাডোনা। নিজের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম পেজে সাবেক কোচদের সফলতার চিত্র হিসেবে তুলনামূলক পরিসংখ্যান তুলে ধরেছেন ’৮৬-র বিশ্বকাপজয়ী।

সেখানে দেখা যাচ্ছে, ১৯৭০ সালের পর থেকে কোচদের মধ্যে জয়ের হারের দক্ষতায় তার সময়টাতেই সবচেয়ে বেশি সাফল্য পেয়েছে আর্জেন্টিনা। ছবির ক্যাপশনে ম্যারাডোনা লেখেন, ‘কে বেশি জিতেছে? আসুন আমাদের উপসংহার টানা যাক। খেলোয়াড়রা এর জন্য দায়ী নয়। আমি ফিরতে চাই !!!’

ম্যারাডোনার পোস্ট করা গ্রাফিক টেবিল অনুযায়ী, তার দক্ষতা সবার চেয়ে বেশি শতকরা ৭৫ ভাগ। ২০০৮-১০ পর্যন্ত কোচ থাকাকালে তার অধীনে ২৪ ম্যাচে ১৮টি জয় ও ছয় ম্যাচে হার মানে আর্জেন্টিনা। ২০১০ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে জার্মানির কাছে হারের পর তার জাতীয় দলের কোচিং অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটে।

এ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছেন জেরার্ডো মার্টিনো, তার অর্জন ২৯ ম্যাচে ৭৪ ভাগ সাফল্য। এর পরে আছেন ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের রানার্সআপ আলেসান্দ্রো সাবেলা (৪১ ম্যাচে ৭১), আলফিও বাসিলে ও মার্সেলো বিয়েলসা। দু’জনই যথাক্রমে ৪৮ ও ৬৮ ম্যাচে সমান ৭০ শতাংশ দক্ষতা অর্জন করেন। ওয়েবসাইট।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বৃষ্টি বাগড়ায় খুলনা-সিলেটের ম্যাচ পরিত্যক্ত 

087

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৫ নভেম্বর : সাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে সকাল থেকেই গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি। আর এ কারণেই বিপিএলে খুলনা টাইটানস ও সিলেট সিক্সার্সের ম্যাচে টস হতে দেরি হয়। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে দুই দলের মধ্যে ম্যাচ শুরুর কথা ছিল। তবে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় দুই দলই একটি করে পয়েন্ট ভাগ করে নিয়েছে।

সকাল থেকেই গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হওয়ায় উইকেটসহ মাঠের অনেকটা অংশ ত্রিপল দিয়ে ঢেকে রাখা হয়। বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময় দুপুর সাড়ে ১২টায় টসও হয়নি।

শেষ পর্যন্ত বিকাল পৌনে ৪টা পর্যন্ত বল মাঠে না গড়ালে মাহমুদউল্লাহর খুলনা টাইটানস ও নাসির হোসেনের সিলেট সিক্সার্সের মধ্যকার ম্যাচটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন ম্যাচ অফিশিয়ালরা।

আজকের লড়াইয়ে সিলেটকে হারাতে পারলে পয়েন্টের হিসাবে তাদের ধরে ফেলতে পারত খুলনা। তবে ম্যাচটি মাঠে না গড়ানোতে চতুর্থ স্থানেই থেকে যেতে হচ্ছে খুলনাকে।

এদিকে বৃষ্টি কারণে সন্ধ্যা ৬টায় চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে ঢাকা ডায়নামাইটসের মাঠে নামা নিয়ে আশংকা দেখা দিয়েছে।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

ব্রাজিলকে রুখে দিল ইংল্যান্ড 

011

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৫ নভেম্বর : প্রীতি ম্যাচে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলকে রুখে দিল ইংল্যান্ড। আগামী বছর রাশিয়ায় অনুষ্ঠেয় ফিফা বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ব্রাজিলকে আতিথ্য দেয় ইংলিশরা। মঙ্গলবার রাতে সেই প্রীতি ম্যাচে ব্রাজিলের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে স্বাগতিকরা।

আগের ম্যাচে জার্মানির সঙ্গে নামানো তারুণ্য নির্ভর দল নিয়েই ব্রাজিলকেও মোকাবেলা করেন গ্যারেথ সাউথগেট। গোলশূন্য ড্র করলেও খেলার নিয়ন্ত্রণ ব্রাজিলের হাতেই ছিল। পুরো ম্যাচে নেইমাররা বল নিয়ন্ত্রণে রেখেছে ৬৬ শতাংশ। যদিও প্রথমার্ধে গোল হওয়ার মতো কার্যকর কোনো আক্রমণে যেতে পারেনি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের শীর্ষস্থানধারী এই দলটি।

দ্বিতীয়ার্ধে দানি আলভেসের একটি শট দারুণভাবে রুখে দিয়েছেন ইংলিশ গোলরক্ষক জো হার্ট। এরপর ৭৫ মিনিটে ব্রাজিলের বদলি খেলোয়াড় ফের্নানদিনিয়ো গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে গোলমুখে শট নিলেও তা পোস্টে লাগে। তাই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায়নি ব্রাজিল। অপরদিকে অতিথিদের আক্রমণ সামলে গোলের তেমন কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি ইংল্যান্ড।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

নাইজেরিয়ার কাছে হেরে গেছে আর্জেন্টিনা 

032

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৫ নভেম্বর : খেলার ৩৬ মিনিট যেতে না যেতেই ২-০ গোলের লিড। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে মেসিহীন আর্জেন্টিনা বড় জয় পাবে বলেই মনে করেছিলেন অধিকাংশ সমর্থকরা। কিন্তু নিয়তি চিত্রনাট্য লিখে রেখেছিল অন্যভাবে। জমা রেখেছিল বিস্ময় ও ঘোরলাগা চমক। রাশিয়ায় তেমনই এক বিস্ময় জাগানিয়া রাতে প্রত্যাবর্তনের অসাধারণ গল্প রচনা করে আর্জেন্টিনাকে ৪-২ গোলের বড় ব্যবধানে পরাজিত করেছে নাইজেরিয়া।

ক্রাসনোদর স্টেডিয়ামে নাইজেরিয়ার ইতিহাসগড়া জয়ের নায়ক অ্যালেক্স আইয়ুবি। দলের হয়ে জোড়া গোল করেন এই আর্সেনাল তারকা। এছাড়া নাইজেরিয়ানদের হয়ে একটি করে গোল করেন কেলেচি ইয়েনাচো ও ব্রায়ান ইদোয়ু। আর্জেন্টিনার হয়ে এভার বানেগা ও সার্জিও আগুয়েরো একটি করে গোল করেন।

রাশিয়ার মাঠে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকা আর্জেন্টিনা ২৭তম মিনিটে এগিয়ে যায়। ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে ফ্রি-কিকে দারুণ গোল করে আকাশী-নীলদের এগিয়ে নেন বানেগা।

নয় মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে ফেলে আর্জেন্টিনা। ক্রিস্টিয়ান পাভোনের পাস থেকে পেনাল্টি বক্সের ভেতর থেকে দারুণ ফিনিশিংয়ে লক্ষ্যভেদ করে স্কোরলাইন ২-০ করে ফেলেন আগুয়েরো। এরপরের গল্পটুকু যেন শুধু নাইজেরিয়ার।

বিরতির দুই মিনিট আগে ইয়েনাচোর গোলে ব্যবধান কমিয়ে ফেলে নাইজেরিয়া। ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে দৃষ্টিনন্দন ফ্রি-কিকে আর্জেন্টিনার জাল কাঁপান এই লেস্টার সিটি তারকা।

বিরতির পর দুই মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে আর্জেন্টিনাকে ভড়কে দেয় নাইজেরিয়া। ৫২তম মিনিটে ইয়েনাচোর পাস থেকে দারুণ ফিনিশিংয়ে দলকে সমতায় ফেরান আইয়ুবি।

দুই মিনিট পর আর্জেন্টিনা শিবিরকে স্তব্ধ করে লিড নেয় নাইজেরিয়া। ইয়েনাচোর পাস থেকে ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে জোরালো শটে আর্জেন্টাইন গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইদোয়ু।

পিছিয়ে পড়ার পর দিশেহারা আর্জেন্টিনা আক্রমণের ধার আরো বাড়িয়ে দেয়। এই সুযোগ আকাশী-নীলদের রক্ষণ কিছুটা নড়বড়ে হয়ে পড়ে। সেই সুযোগ কাজে লাগাতে মিস করেনি নাইজেরিয়া। ৭৩তম মিনিটে আর্জেন্টিনার রক্ষণের দুর্বলতার সুযোগ কাজে লাগিয়ে নাইজেরিয়াকে ৪-৩ ব্যবধানে এগিয়ে নেন আইয়ুবি। শেষ পর্যন্ত এই স্কোরলাইন নিয়েই আর্জেন্টিনা-বধের উৎসবে মেতে ওঠে আফ্রিকান দেশটি।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

শাসরুদ্ধকর ম্যাচে ঢাকার জয় 

2441

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৪ নভেম্বর : ম্যাচের রং বদল হয়েছে ক্ষণে ক্ষণে। এক সময় খুলনা টাইটানসের দিকে জয়ের পাল্লাটা হেলে পড়লেও পরেক্ষণেই আবার ম্যাচে ফিরেছে ঢাকা ডায়নামাইটস।

মিরপুর শের-ই-বাংলায় আজ দেখা গেল স্নায়ুক্ষয়ী লড়াই। এই লড়াইয়ে জিতে গেল সাকিব আল হাসানের দল। তবে ৪ উইকেটের এই জয়ের জন্য ২০ তম ওভারের পঞ্চম বলটি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলো তাদের। পোলার্ডের হাফ সেঞ্চুরির পর অপরাজিত ৪৫ রান করে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে গেলেন জহুরুল ইসলাম। তবে ঢাকার আসল নায়কের নাম পোলার্ড।

শুরুতেই ম্যাচ থেকে ছিটকে গিয়েছিল ঢাকা। ১৫৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৪ রানেই এভিন লুইসকে মাহমুদ উল্লাহর ক্যাচে পরিণত করেন তরুণ পেসার আবু জায়েদ। ২ রানের ব্যবধানে আঘাত হানেন আরেক পেসার শফিউল ইসলাম। তার বলে ক্লিঙ্গারের তালুবন্দি হন শহিদ আফ্রিদি।

তার সংগ্রহ মাত্র ১ রান। এরপর আর্চারের বলে ২ রান করে ডেলপোর্ট বোল্ড হয়ে গেলে স্পষ্টতই চাপে পড়ে যায় ঢাকা।

ধনঞ্জয়ার বলে ৭ রান করে মাহমুদ উল্লাহর দুর্দান্ত ক্যাচে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সুনিল নারাইন। খুলনা অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহর বলে আউট হওয়ার আগে ঢাকা অধিনায়ক সাকিবের সংগ্রহ ১৭ বলে ২০ রান। ৪১ রানে ৫ উইকেট নেই ঢাকার! কিন্তু এরপরেই খেলার মোড় ঘুরিয়ে দেন কায়রন পোলার্ড। শফিউলের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে ২৪ বলে ৩ চার ৬ ছক্কায় ৫৫ রান করে ভীতি ছড়ান তিনি।

পোলার্ড আউট হলেও অন্যপ্রান্তে লড়াই করছিলেন জহুরুল ইসলাম। শেষ পর্যন্ত তিনি ৩৯ বলে ৫ বাউন্ডারিতে অপরাজিত ৪৫ রন করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। তার সঙ্গী হিসেবে ১২ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন। ১ বল এবং ৪ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচ জিতে নিল সাকিব আল হাসানের দল।

এর আগে আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম ম্যাচে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৫ উইকেটে ১৫৬ রান তোলে খুলনা টাইটানস। দলীয় ২২ রানেই ঢাকা অধিনায়ক সাকিবের ঘূর্ণিতে মাইকেল ক্লিঙ্গারের (১০) উইকেট হারায় রিয়াদের দল। ৭ রানের ব্যবধানে খুলনার দূর্গে দ্বিতীয় আঘাত হানেন রনি-সাকিব জুটি। এবার আবু হায়দার রনির বলে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ধীমান ঘোষের (২) ক্যাচ নেন সাকিব।

নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটে বেশ আত্মবিশ্বাস লক্ষ্য করা যাচ্ছিল শুরু থেকেই। তবে ইনিংসটা শেষ পর্যন্ত বড় হল না। ক্যারিবীয় ‘রহস্য’ স্পিনার সুনিল নারাইনের বলে ২৫ বলে ২৪ রান করে ফিরলেন এই তরুণ। খুলনার চতুর্থ উইকেটের পতন ঘটনা পাকিস্তানি স্পিনার শহিদ আফ্রিদি। তার বলে খুলনার সবচেয়ে বড় উইকেট অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহ (১৪) জহুরুলের তালুবন্দি হন।

রিয়াদকে হারিয়ে মহাবিপদে পড়ে যায় খুলনা টাইটানস। একপ্রান্ত আগলে রাখছিলেন রুশো। আবু হায়দারের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ৩৪ রানে ফেরেন তিনি। কিন্তু খেলার মোড় ঘুরিয়ে দেন কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। এই ক্যারিবিয়ান ৬ নম্বরে নেমে হাফ বিধ্বংসী হাফ সেঞ্চুরি কর খুলনা টাইটানসকে ভালো সংগ্রহ এনে দেন। শেষ পর্যন্ত ২৯ বলে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন ব্র্যাথওয়েট। এই ঝড়ো ইনিংস খেলতে বাউন্ডারি মাত্র ৪টি মারলেও ছক্কা মেরেছেন ৬টি!

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

মালয়েশিয়ার পর এবার ভারতকে হারাল বাংলাদেশ 

022

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৪ নভেম্বর : যুব এশিয়া কাপে কাল মালয়েশিয়াকে ২৬২ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। কুয়ালালামপুরে আজ বাংলাদেশ যুবাদের কাছে পাত্তা পায়নি ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ দলও। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ম্যাচটা বাংলাদেশ জিতেছে ৮ উইকেটে। এই হারে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় ঘণ্টা বেজেছে ভারতের। আর গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে ওঠে গেছে বাংলাদেশ।

বৃষ্টি-বাধায় ৩২ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে বাংলাদেশকে ১৮৮ রানের লক্ষ্য দেয় ভারত। ওপেনিং জুটিতে ৮২ রান যোগ করে জয়ের পথে দলকে অনেকটা এগিয়ে নেন পিনাক ঘোষ-নাঈম শেখ। মন্দ্বীপ সিংয়ের জোড়া ধাক্কায় ২৬ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারালেও পিনাক ও আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান তৌহিদ হৃদয়ের অসাধারণ ব্যাটিং আর কোনো বিপদ ঘটতে দেয়নি। দুজনের অবিচ্ছিন্ন তৃতীয় উইকেট জুটি ৮৩ রান যোগ করে ২৪ বল বাকি থাকতেই দলকে এনে দিয়েছে দুর্দান্ত এক জয়। পিনাক ৮১ ও হৃদয় অপরাজিত ছিলেন ৪৮ রানে।

এর আগে টস জিতে ভারতকে ব্যাটিং করতে পাঠায় বাংলাদেশ। ৩২ ওভারে ভারতীয় যুবারা ৮ উইকেটে তোলে ১৮৭ রান। ৫.৮৪ রানরেটে স্কোরটা যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিংই বলতে হবে। কিন্তু এই চ্যালেঞ্জে উতরে যেতে যে উন্মুখ ছিলেন সাইফরা।

গত মাসে দেশের মাঠে আফগানিস্তান-ধাক্কা সামলে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল যে আবারও ছন্দ ফিরে পাচ্ছে, সেটি বোঝা গেল গ্রুপ পর্বে টানা তিন জয়ে। পরশু প্রথম সেমিফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। গত ডিসেম্বরে সর্বশেষ যুব এশিয়া কাপে বাংলাদেশ বিদায় নিয়েছিল সেমিফাইনালে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে। এবার এই ধাপটা পেরোতে পারলে ১৯ নভেম্বর শিরোপার লড়াইয়ে নামতে পারবেন সাইফরা।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়লো ইতালি 

1244

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৪ নভেম্বর : পরাজয়ের লজ্জা বরণ করে বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকে বিদায় নিতে হলো ফুটবলে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে। খেলা শুরুর আগে থেকে ইতালিকে নিয়ে একটা আশঙ্কা কাজ করেছিল যে, দলটি বিশ্বকাপে খেলতে পারবে তো? ম্যাচ শেষে আশঙ্কা বাস্তবে রূপ নিল। সুইডেনের সঙ্গে জীবন-মরণ ম্যাচে শেষ পর্যন্ত গোল শূন্য ও হওয়ায় রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকে বাদ পড়ল ইতালি।

মিলনের সান সিরোয় আজ সোমবার দিবাগত রাতে বাছাইপর্বের প্লে-অফের ফিরতি লেগের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। প্রথম লেগে ১-০ গোলে জয় লাভ করায় বিশ্বকাপের নিজেদের খেলার সুযোগ পেয়ে গেল সুইডেন। এর ফলে ১২ বছর পর বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়ে গেল ২০০৬ সালে জার্মান আসরে খেলা সুইডেন।

নব্বই মিনিটের খেলার বেশির ভাগ সময় বলের নিয়ন্ত্রণ ছিল ইতালির কাছে। বেশ কয়েকবার সুইডেনের গোল পোস্টে সংঘবদ্ধভাবে আক্রমণও চালায় ইতালি। কিন্তু গোলের দেখা কোনোভাবেই পায়নি দলটি। এদিকে ইতালির গোল পোস্টে সেভাবে আক্রমণ না করতে পারলেও তাদের ঠেকিয়ে রাখতে পেরে অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখেন সুইডেনের খেলোয়াড়েরা।

বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ থেকে বাদ পড়ে যাবেন এই লজ্জা এড়াতে প্রথম থেকেই ইতালি বেশ আক্রমণাত্মক খেলার চেষ্টা করেছে। বেশ কয়েকটি সুযোগও পায় দলটি। কিন্তু বল জাল পর্যন্ত নিতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধেও একইভাবে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে ইতালি। এই সময়টাতেও কোনো ফল পায়নি দলটি। ফলে খেলা গোল শূন্য ড্র হয়।

২০০৬ সালে জার্মান বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর গত দুই আসরে গ্রুপ পর্ব পার হতে পারেনি ইতালি। এবার তো বাদ পড়ল বাছাইপর্ব থেকে। ফলাফল-চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের পেছনে ফেলে মূল পর্বে জায়গা করে নিল সুইডেন।

ব্রাজিলের পর বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় সফল দেশ ইতালি। ব্রাজিল এখন পর্যন্ত পাঁচবার বিশ্বকাপ জিতেছে। ইতালি ও জার্মানি জিতেছে চারবার।

মাত্র দুবার বিশ্বকাপ খেলেনি ইতালি। এর মাঝে একবার নিজেদের ইচ্ছায় অংশ নেয়নি দেশটি। শুধু একবারই বিশ্বকাপে যেতে ব্যর্থ হয়েছে দেশটি। সর্বশেষ ১৯৫৮ বিশ্বকাপে খেলতে পারেনি ইতালি। ঘটনাক্রমে বিশ্বকাপে সুইডেনের সেরা সাফল্য সে বিশ্বকাপেই। সেবার পেলের ব্রাজিলের কাছে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল সুইডেন।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

চতুর্থ সন্তানের বাবা হলেন রোনাল্ডো 

31

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৩ নভেম্বর : রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো চতুর্থ সন্তানের বাবা হয়েছেন।

রবিবার সিআর সেভেন নিজেই এ সুখবর দেন।

বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজের কোলজুড়ে এসেছে এক রাজকন্যা।

বান্ধবী ও সাত বছরের ছেলে ক্রিশ্চিয়ানো জুনিয়রের সঙ্গে হাসপাতালে ছবি তুলে সেটি টুইটারের মাধ্যমে বিশ্বকে জানিয়ে দিয়েছেন এ পর্তুগিজ অধিনায়ক।

জন্মের আগেই মেয়ের নাম ঠিক করে রেখেছিলেন রোনাল্ডো। মেয়ের নাম রাখা হয়েছে অ্যালেনা মার্টিনা।

টুইটারে ৩২ বছর বয়সী ফুটবলার লেখেন, অ্যালেনা মার্টিনা মাত্র জন্মগ্রহণ করল। অ্যালেনা ও জর্জিনা দুজনেই সুস্থ রয়েছেন। আমরা সবাই আনন্দিত।

সিআর সেভেনের বান্ধবী জর্জিনার এটি প্রথম সন্তান হলেও রোনাল্ডোর চতুর্থ সন্তান। রোনাল্ডো জুনিয়রের পর গত জুনে যমজ সন্তানের (একজন ছেলে, একজন মেয়ে) বাবা হন পর্তুগিজ উইঙ্গার।

আগের তিন সন্তানই ছিল গর্ভ ভাড়া করা মায়ের।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

যুব এশিয়া কাপে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের বিশাল জয় 

000

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৩ নভেম্বর : অনূর্ধ্ব এশিয়া কাপ-২০১৭-এ স্বাগতিক মালয়েশিয়ার সঙ্গে ২৬২ রানের দুর্দান্ত জয় পেয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট দল। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় খেলায় পর পর দুটিতেই জয় পেয়ে বাংলাদেশের যোগ হয়েছে ৪ পয়েন্ট।

বি গ্রুপের সর্বোচ্চ পয়েন্ট তালিকায় বাংলাদেশ। আজকের (রোববার) আবহাওয়া রৌদ্রোজ্জ্বল হওয়ায় খেলা যথা সময়ে শুরু হয়। টসে হেরে বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেট হাতে রেখে ৫০ ওভারে ৩৩৫ রান সংগ্রহ করে। এটিই এই সিরিজের এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ।

এর আগে টসে জিতে বল করার সিদান্ত নেয় মালয়েশিয়া। নাঈম শেক ও পিনাক ঘোষর উদ্বোধনী জুটি বেশ চমৎকার খেলা চলে। দলীয় ৩১ রানের মাথায় ৫ম ওভারের শেষ বলে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন নাঈম শেক। তার ঠিক ৪ বলের মাথায় আউট হয় পিনাক ঘোষ।

তবে তৃতীয় উইকেট জুটিতে অধিনায়ক মোহাম্মদ সাইফ ও তৌহিদ হৃদয় ২০৮ বলে ১৯৪ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তুলে। পরে ৪২ ওভার চলাকালে ব্যক্তিগত ৯০ রান নিয়ে মোহাম্মদ সাইফ আউট হয়ে যায়। সর্বোচ্চ ১২০ রান করেছে তৌহিদ হৃদয়।

জয়ের জন্য ৩৩৬ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামে মালয়েশিয়া। ৬ ওভারের খেলা চলাকালে নাঈম শেকের বল আঘাত হানে মালয়েশিয়ার উদ্বোধনী জুটিতে, দলীয় ৩১ রানের মাথায় আউট হয় মোহাম্মদ হাফিজ। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ৭৩ রান করতে পারে মালয়েশিয়া।

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আগামীকাল মঙ্গলবার ভারতের সঙ্গে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর

বাটলারের অর্ধশতে কুমিল্লার বড় জয় 

172

স্পোর্টস ডেস্ক, ১২ নভেম্বর : জস বাটলারের অর্ধশত এবং ইমরুল-লিটনের কার্যকরী ইনিংসে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে বড় জয় পেল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। রবিবার বিপিএলে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে নয় উইকেটের জয় পেল ইমরুল-লিটনরা। তিন ম্যাচ খেলে কুমিল্লার এটি দ্বিতীয় জয়। আর চার ম্যাচ খেলে রাজশাহীর এটি তৃতীয় হার।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে রাজশাহী কিংসের দেয়া ১১৬ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৫.১ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

দলের পক্ষে জস বাটলার ৩৯ বল খেলে ৫০ রান করে অপরাজিত থাকেন। আর ইমরুল কায়েস অপরাজিত থাকেন ৪১ বল খেলে ৪৪ রান করে। ১২ বল খেলে ২৩ রান করে আউট হন লিটন দাস। রাজশাহী কিংসের পক্ষে একমাত্র উইকেটটি নেন ফরহাদ রেজা।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২৩ রানে প্রথম উইকেট হারায়। ফরহাদ রেজার বলে বোল্ড হন লিটন দাস। ১২ বল খেলে ২৩ রান করেন তিনি। এরপর ইমরুল কায়েস ও জস বাটলার ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

ম্যাচটিতে প্রথমে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ১১৫ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী কিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন লেন্ডল সিমন্স। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পক্ষে মোহাম্মদ নবী চার ওভার বল করে ১৫ রান দিয়ে তিনটি উইকেট নেন। রশীদ খান চার ওভার বল করে সাত রান দিয়ে দুইটি উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ফল: নয় উইকেটে জয়ী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

রাজশাহী কিংস ইনিংস: ১১৫/৭ (২০ ওভার)

(লেন্ডল সিমন্স ৪০, মুমিনুল হক ২, রনি তালুকদার ০, মুশফিকুর রহিম ১৬, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ৭, মেহেদী হাসান মিরাজ ৬, ম্যালকম ওয়ালার ১, ফরহাদ রেজা ২৫*, নিহাদুজ্জামান ২, মোহাম্মদ সামি ১০*, আরাফাত সানি ০/২২, মোহাম্মদ নবী ৩/১৫, আল-আমিন হোসেন ১/২৪, রশীদ খান ২/৭, ডোয়াইন ব্রাভো ১/২৮, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ০/১৮)।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ইনিংস: ১২০/১ (১৫.১ ওভার)

(লিটন দাস ২৩, জস বাটলার ৫০*, ইমরুল কায়েস ৪৪*; মোহাম্মদ সামি ০/১৩, ফরহাদ রেজা ১/৩১, মেহেদী হাসান মিরাজ ০/১৩, কেজরিক উইলিয়ামস ০/৩৩, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ০/৮, নিহাদুজ্জামান ০/১৬, ম্যালকম ওয়ালার ০/৬)।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: রশীদ খান (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স)।

Share This:

এই পেইজের আরও খবর