২৫ জুন ২০১৭
সকাল ৬:১৬, রবিবার

জনতার হাতে আটক ‘ধর্ষক’কে ছেড়ে দিল পুলিশ

জনতার হাতে আটক ‘ধর্ষক’কে ছেড়ে দিল পুলিশ 

ijakqbx7-copy

সাভার, ১৭ মে : ধামরাইয়ে লেবু ক্ষেতের ভেতরে প্রথম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে (১২) ধর্ষণের সময় হাতে নাতে আটক বখাটেকে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ধামরাই মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হক দিপু প্রতিবেদককে বলেন, বখাটে ছেলেটিকে আটক করা হয়েছিল তবে ধর্ষিতার পরিবারের কোন অভিযোগ ও ধর্ষণের বিষয়টি প্রমান না হওয়ায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ধর্ষিতার পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, মেয়েটি সাভার পৌর এলাকার রেডিও কলোনী মহল্লার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণিতে পড়ে। প্রতিদিনের মতো গত সোমবার সকালেও সে স্কুলে যায়। এসময় একই এলাকার বুদ্ধ নাথ নামের এক বখাটে যুবক তাকে পেপসির মধ্যে ওষুধ সেবন করিয়ে কৌশলে ধামরাই এলাকায় নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে তাকে ধামরাইয়ে কাওয়ালীপাড়া এলাকার এটি লেবু ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে পাশবিক নির্যাতন শুরু করে। এসময় শিশুটির গোঙ্গানির শব্দ পেয়ে স্থানীয় কয়েকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছে বখাটে যুবককে আটক করে। পরে স্থানীয়রা জড়ো হয়ে ওই যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে ধামরাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই যুবককে আটক করে ও ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এদিকে ধর্ষককে আটকের পর ওই দিন রাতেই তাকে ছেড়ে দেয় ধামরাই থানা পুলিশ। পরে বিষয়টি প্রকাশ হয়ে গেলে বুধবার সকালে ধামরাই থানা এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করে।

এ বিষয়ে শিশুটির মা  প্রতিবেদকের কাছে অভিযোগ করে বলেন, তার মেয়েকে উদ্ধারের পর পুলিশ তাকে থানায় খবর দেয়। এসময় তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে তার মেয়ের সাথে কথা বলার পর বিষয়টি থানায় জানালেও পুলিশ তাতে কোন সাড়া দেয়নি।

তবে এ বিষয়ে ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হক দীপু বলেন, স্থানীয়রা ধর্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। তবে ওই সময় ধর্ষিতার পরিবার এ বিষয়ে কোন অভিযোগ করেনি। এছাড়াও ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত না হওয়ার কারণে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানায়।

এদিকে রেডিও কলোনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিখা রানী এই প্রতিবেদককে বলেন, এই ছাত্রী স্কুলে ব্যাগ রেখে স্কুলের বাইরে চলে যাওয়ার পর আর স্কুলে ফিরে আসেনি। পরে জানতে পারলাম যে, আমার স্কুলের ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। আমি খবর পেয়ে  ঢাকা মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে গিয়ে নানা বিষয় জানতে পারি । তিনি ২৪ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষককে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

Share This:

পাঠকের মতামতঃ

comments

এই পেইজের আরও খবর