২৩ মে ২০১৭
রাত ১:২০, মঙ্গলবার

বিয়ের কথা বলে বাড়িতে নিয়ে প্রেমিকাকে মারধর

বিয়ের কথা বলে বাড়িতে নিয়ে প্রেমিকাকে মারধর 

আসাদুজ্জামান সাজু, লালমনিরহাট, ১৯ মে : বিয়ে করার জন্য প্রেমিকাকে তার দাদার বাড়ি থেকে নিয়ে গিয়ে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকের পরিবাবের বিরুদ্ধে। আহত ওই প্রেমিকাকে বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে প্রেমিকের দাবি, তাকে আমার বাসায় নিয়ে আসি নাই। সে নিজেই আমার বাসায় এসেছিল। ঘটনাটি ঘটেছে, লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের জাওরানী গ্রামে।

হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের পূর্ব কাদমা এলাকার আব্দুল করিমের মেয়ে রোমানা আক্তার বলেন, দুই বছর আগে পাশ্ববর্তী জাওরানী গ্রামের কাজিমুদ্দিনের ছেলে শামীম হোসেনের সাথে আমার প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। ওই সর্ম্পকের জের ধরে গত রোববার শামীম আমাকে বিয়ে করার কথা বলে তাদের বাড়ি নিয়ে যায়। কিন্তু এই বিয়েতে বাঁধা হয়ে দাড়াঁয় শামীমের পরিবারের লোকজন। শুরু হয় আমার উপর নিযার্তন। বিয়ের কথা বলে বৃহস্পতিবার রাতে উভয় পক্ষের মধ্যে বৈঠক বসে। কিন্তু বিয়ে না দিয়ে উল্টো আমার উপর আরও নিযার্তন করা হয়। পরে আমার পরিবারের লোকজন আমাকে অসুস্থ্য অবস্থায় উদ্ধার করে শুক্রবার সকালে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করান। শামীমের ভাই-বোন আমার মোবাইল ফোন ও মেমোরী কার্ড ভেঙ্গে ফেলেছে। সেই ফোনে শামীম আর আমার অনেক ছবি ও রেকোর্ড ছিল।

শামীম হোসেন বলেন, তার সাথে আমার প্রেমের সর্ম্পক ছিল একটা ঠিক। কিন্তু এখন নাই, ভেঙ্গে গেছে। তাকে আমি আমার বাসায় নিয়ে আসিনি। সে নেজেই আমার বাসায় এসে উঠেছিল। আর তাকে কোন মারধর করা হয় নাই।

হাতীবান্ধা থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন, এ রকম কোন অভিযোগ আমি পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

Share This:

পাঠকের মতামতঃ

comments

এই পেইজের আরও খবর