১৭ অক্টোবর ২০১৭
দুপুর ১২:০০, মঙ্গলবার

বাংলাদেশে অর্থ আদান-প্রদান সহজ করতে হবে

বাংলাদেশে অর্থ আদান-প্রদান সহজ করতে হবে 

636

অর্থনৈতিক ডেস্ক : ‘বাংলাদেশে অর্থ প্রেরণে প্রবাসীদের ভূমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনারে অতিথি ও বক্তারা।রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান মঞ্জুর হোসেন বলেছেন, প্রবাসী বাংলাদেশিরা বাংলাদেশের অর্থনীতির চালিকাশক্তি। তাই পরিবর্তিত পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে বিশ্বায়নের যুগে বাংলাদেশে অর্থ আদান-প্রদান সহজ করতে হবে। কারণ, এখন মানুষ শুধু দেশেই অর্থ পাঠায় না, প্রয়োজনে দেশ থেকে অর্থ আনে। রূপালী ব্যাংক লিমিটেড প্রবাসীদের সেবায় যে ঘাটতি রয়েছে তা পূরণ করার চেষ্টা করবে।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের ব্যালিজিনো পার্টি হলে ‘বাংলাদেশে অর্থ প্রেরণে প্রবাসীদের ভূমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনারে মঞ্জুর হোসেন এসব কথা বলেন। নিউইয়র্কে এবিসিসিআই’র উদ্যোগে এই সেমিনারটির আয়োজন করা হয়।

মঞ্জুর হোসেন বলেন, বাংলাদেশ নয়, সব দেশেই কম-বেশি সমস্যা রয়েছে। তার সমাধানও আছে। কিন্তু বাংলাদেশের জন্য হুন্ডি একটি বড় সমস্যা। তাই বাস্তবতার প্রয়োজনেই অর্থ আদান-প্রদান পদ্ধতি সহজ করতে হবে। কারণ, বৈধ পথে সরকারিভাবে অর্থ না পাঠানো হলে দেশের প্রবৃদ্ধি বাড়বে না। আর প্রবৃদ্ধি না বাড়লে দেশের উন্নয়ন হবে না।

রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ আতাউর রহমান প্রধান বলেন, রূপালী ব্যাংক বাংলাদেশের শীর্ষ চারটি ব্যাংকের মধ্যে অন্যতম। জনগণের সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে এই ব্যাংকের ন্যূনতম কোনো ঘাটতি নেই। রূপালী ব্যাংক দেশবাসীর পাশাপাশি প্রবাসীদের সঙ্গেও থাকবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের চলমান উন্নয়নের ব্যাপারে কারও কোনো দ্বিমত নেই। প্রবাসীরা দেশের অর্থনীতি সমৃদ্ধ করছে, তাই দেশের প্রবৃদ্ধিও বাড়ছে। গত দুই মাসে নিউইয়র্ক থেকে ২৭৩ মিলিয়ন ডলার বাংলাদেশে গেছে। তবে সঠিক পথে দেশে অর্থ যাচ্ছে না বলেই রেমিট্যান্সের হার কমে যাচ্ছে। তাই প্রবাসীদের সেবায় রূপালী ব্যাংক আরও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে চায়।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নিউইয়র্কে বাংলাদেশে কনস্যুলেটে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল শামীম আহসান বলেন, যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স পাঠানো কমে যাচ্ছে। এটা উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার বিষয়। প্রবাসীদের সেবায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট সব সময় পাশে থাকবে।

জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান এ কে আবদুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে চলছে। বাংলাদেশসহ সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের বিভিন্ন নিয়ম-নীতির কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর হার কমে যাচ্ছে।

এবিসিসিআই-এর নির্বাহী পরিচালক হাসানুজ্জামান হাসানের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আ ন ম ফজলুল হক, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার (জেএমসি) পরিচালনা কমিটির সভাপতি খাজা মিজান হাসান, প্রবীণ প্রবাসী নাসির আলী খান পল, নর্থ বেঙ্গল ফাউন্ডেশন ইউএসএ’র সভাপতি আবদুল লতিফ ও ব্যবসায়ী ফাহাদ সোলায়মান। উপস্থাপনায় ছিলেন আশরাফুল হাসান বুলবুল।

সেমিনার শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে শিল্পী নিলুফার বানু গান ও মোরশেদ খান অপু সেতার পরিবেশন করেন। কবিতা আবৃত্তি করেন অধ্যাপক হাসান কবীর। সূত্র: প্রথম আলো

Share This:

Comments

comments

এই পেইজের আরও খবর